Home /News /kolkata /

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শনিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শনিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

    anandabazar11

    ‘ভুতুড়ে’ ঘর বালি ব্রিজে, ভয়ে কাঁটা পুরো এলাকা

    সূর্য ডুবলেই নেমে আসে ঘুটঘুটে অন্ধকার। চারপাশে গজিয়ে ওঠা বট-অশ্বত্থ গাছ, মাকড়সার জালে মোড়া জানালাহীন বদ্ধ ঘরগুলির কোনওটায় তখন জমে ওঠে নেশার আসর। কোনওটায় আবার টিমটিমে কুপির আলোয়, গাঁজার ধোঁয়ায় ঢেকে সাধনায় বসেন ভিনদেশি সাধু। অসামাজিক কাজকর্মও যে হয় না, তা-ও হলফ করে কেউ বলতে পারেন না।

    সংঘর্ষে হত ৭ পাক রেঞ্জার, বিএসএফ সাফল্যের দাবি

    সীমান্তে ফের সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন পাকিস্তানের। পাল্টা জবাব দিল বিএসএফও। জম্মু ও কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলার হীরানগর সেক্টরে আজকের এই ঘটনায় অন্তত সাত জন পাক রেঞ্জারের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে বিএসএফ। সংঘর্ষে জখম হয়েছেন গুরনাম সিংহ নামে বিএসএফের এক জওয়ানও। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম প্রথমে পাঁচ রেঞ্জারের মৃত্যুর খবর প্রচার করলেও পরে সে দেশের সেনাবাহিনী কোনও প্রাণহানির কথা অস্বীকার করেছে। ঠিক যে ভাবে তারা সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের কথাও মানতে চায়নি।

    বুদ্ধদেবের কনভয় লক্ষ্য করে ল্যান্ডমাইন, চার্জশিট দিতে গড়াল ৮ বছর

    এমন ঘটনা, যেখানে বিস্ফোরণে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে উড়িয়ে দেওয়ার চক্রান্ত হয়েছিল। যার অভিঘাতে এ যাবৎকালের সবচেয়ে বড় মাওবাদী আন্দোলনের সূচনা হয় পশ্চিমবঙ্গে। উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। ঘটনা, মানে শালবনি থানার কেস নম্বর ৮১/০৮, তারিখ ০২.১১.২০০৮। সে দিন শালবনিতে জিন্দলদের ইস্পাত কারখানার শিলান্যাস করে তদানীন্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য যখন মেদিনীপুর শহরে ফিরছিলেন, তাঁর কনভয় লক্ষ করে ল্যান্ডমাইন ফাটায় মাওবাদীরা। বুদ্ধবাবু অল্পের জন্য রক্ষা পান। এত বড় কাণ্ড, অথচ তার চার্জশিট পেশ করতে আট-আটটা বছর লেগে গেল! উপরন্তু ধেয়ে এল বেশ কিছু প্রশ্ন ও পক্ষপাতের অভিযোগ।

    সুপ্রিম কোর্টের ধাক্কায় আবার চাপে বোর্ড

    লোঢা কমিশনের সঙ্গে যুদ্ধে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে ভারতীয় বোর্ডের যা দশা চলছে, তা বোধহয় জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে থাকা যে কোনও মুমূর্ষুর সঙ্গে তুলনীয়! যার অবস্থা পাল্টাচ্ছে দিন-দিন। একদিন ভাল। পরের দিন খারাপ।

    bartaman_big11

    জঙ্গি নিশানায় নবান্নসহ বহু গুরুত্বপূর্ণ স্থান

    নবান্নসহ রাজ্যের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ভবন, প্রতিষ্ঠান, বাণিজ্যিক কেন্দ্র ও ধর্মীয়স্থানে জঙ্গিহানার আশঙ্কায় নিরাপত্তা আরও জোরদার করার পরামর্শ দিল ন্যাশনাল সিকিউরিটি গার্ড (এনএসজি)। শুক্রবার দুপুরে নবান্নে এসে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র ও পুলিশ বিভাগের শীর্ষকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে এই আশঙ্কার কথা জানিয়ে, কী ভাবে সতর্ক হতে হবে, তাও বাতলে দিয়ে যান এনএসজি প্রধান সুধীর প্রতাপ সিং। এরই পাশাপাশি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সামগ্রিক নিরাপত্তার বিষয়টিও নিয়ে বৈঠক করেন এনএসজি প্রধান। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, নিরাপত্তার ক্ষেত্রে রাজ্যের এই সচিবালয়ে বেশ কিছু খামতির উল্লেখ করেছে এনএসজি। এমনকী মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরসহ তাঁর অফিসঘরের নিরাপত্তা আরও বাড়ানোর উপর জোর দিয়েছেন জঙ্গি দমনকারী এই এলিট সংস্থার কর্তা।

    এটিএম কার্ডে জালিয়াতির পিছনে চীনা সাইবার হানা?

    তাহলে কি এবার ব্যাপক হারে উচ্চপ্রযুক্তির এটিএম কার্ড জালিয়াতির মধ্যে দিয়ে সাইবার সন্ত্রাসই শুরু করে দিল জঙ্গিরা? এবং তা হল সম্পূর্ণ চীনের মদতে? সাম্প্রতিকতম সাইবার আক্রমণের মাধ্যমে ভারতের ৩২ লক্ষ এটিএম কাম ডেবিট কার্ডের যাবতীয় তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এই ধারণা কিন্তু ক্রমেই বদ্ধমূল হচ্ছে। আর তাতেই বাড়ছে আতঙ্ক। গোটা কাণ্ডের পিছনে নিছক ম্যালওয়ার ভাইরাস ব্যবহারকারী হ্যাকাররাই আছে নাকি সন্ত্রাসবাদীদের সক্রিয় হাত রয়েছে, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ভারতের ১৯টি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ও বেসরকারি ব্যাংকের এই ৩২ লক্ষ কার্ডের তাবৎ পিন নম্বর জেনে নিয়ে যে লেনদেন হয়েছে তার সিংহভাগই হয়েছে চীন এবং আমেরিকায়। এখনও পর্যন্ত যার পরিমাণ প্রায় দেড় কোটি টাকা। এর পিছনে চীনের হ্যাকারদের হাত নেই তো?

    ইন্টারভিউতে ৩৯৭টি ভুয়ো অ্যাডমিট কার্ড ধরল পর্ষদ

    চাকরি বড় বালাই। তাই জয়েন্ট বা অন্যান্য হাইপ্রোফাইল প্রবেশিকার মতো হাইটেক জাল-জোচ্চুরির অনুপ্রেবেশ ঘটল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ইন্টারভিউতেও। টেটে ভাগ্যের শিকে ছেঁড়েনি। তাতেও দমে না গিয়ে বহু প্রার্থী প্রযুক্তির শরণ নিয়েছে। ফোটোশপের মতো সফটওয়্যার ব্যবহার করে নিজের অ্যাডমিট কার্ডে টেট উত্তীর্ণ প্রার্থীর রোল নম্বর বসিয়ে নিয়েছে তারা। এতটাই নিখুঁত সেই কাজ যে ইন্টারভিউয়ে সেই অ্যাডমিট কার্ড দেখে বোকা বনেছেন অভিজ্ঞ কর্তারাও। কিন্তু একই রোল নম্বরের অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে একাধিক প্রার্থীকে ইন্টারভিউয়ে দেখে ভুল ভাঙে। শুক্রবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি মানিক ভট্টাচার্য জানান, এরকম মোট ৩৯৭টি অ্যাডমিট কার্ড তাঁরা ধরেছেন। কিন্তু কীভাবে এই জালিয়াতদের ধরা গেল? মানিকবাবু জানাচ্ছেন, হুবহু একই রকম দেখতে একই রোল নম্বরের দু’টি অ্যাডমিট কার্ড নিয়ে তাঁরা সেই প্রার্থীদের ওএমআর শিট মিলিয়েছেন।

    রাজ্যের নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই বাজারে ১০০ টন চকোলেট বোমা ও দোদমা

    ইতিমধ্যে ১০০ টন চকোলেট বোমা এবং দোদমা তৈরি হয়ে গিয়েছে। অধিকাংশ বাজিও বাজারে চলে এসেছে। শুক্রবার একথা জানিয়ে দিলেন সারা বাংলা আতশবাজি উন্নয়ন সমিতির চেয়ারম্যান বাবলা রায়। চকোলেট বোমা এবং দোদমার উপর রাজ্য সরকার নিষেধাজ্ঞা জারির সিদ্ধান্ত নেওয়ায় তাকে এভাবেই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন বাজি নির্মাতা সংগঠনের এই নেতা। রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ইতিমধ্যে প্রচুর বাজি বাজারে এসে গিয়েছে। এর জন্য বাজি নির্মাতাদের যে খরচ হয়েছে, সেই ব্যয়ভার কে বহন করবে? তাই গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে বাজি শিল্পীদের স্বার্থে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করলেন তিনি। পাশাপাশি এবিষয়ে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ দাবি করে, বাজি শিল্পের স্বার্থে তিনি কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের দ্বারস্থ হয়েছেন।

    ei samay

    বোর্ডের হাতে আর্থিক বেড়ি

    কড়া দাওয়াইয়ের ইঙ্গিত আগেই ছিল, এবার তা বাস্তব ৷ এক কথায় ভারতীয় বোর্ডকে শুক্রবার আর্থিক বেড়ি পরিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট ৷

    জম্মু সীমান্তে বিএসএফের পালটা গুলিতে হত ৭ পাক রেঞ্জার্স

    ফের অস্ত্র বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গোলাগুলি চালানোর সময় বিএসএফের পালটা প্রতিরোধের মুখে প্রাণ হারালেন ৭ পাক রেঞ্জার্স ৷ ওই পাক জওয়ানদের সহ্গে এক জঙ্গিও মারা পড়েছে বলে বিএসএফ সূত্রে দাবি করা হয়েছে ৷

    ১৭ নভেম্বরের মধ্যে গ্রেপ্তার করতে হবে ইমরানকে, নির্দেশ পাক আদালতের

    প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার ও তেহরিক-ই-ইনসাফের নেতা ইমরান খানকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিল পাকিস্তানের সন্ত্রাস বিরোধী আদালত ৷

    ATM কার্ডের নিরাপত্তা নিয়ে SBI-র টিপস

    নিজস্ব গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে সতর্ক জারি করল স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ৷ টাকা যদি তুলতেই হয়, তাহলে এসবিআই-র এটিএম-ই ব্যবহার করুন ৷

    First published:

    Tags: Bengali News, ETV News Bangla, Morning Daily, Morning Digest, Morning Newspaper, Saturday Morning Newspapers

    পরবর্তী খবর