Covid Restrictions Extended in Bengal: বাংলায় কড়া বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়ল, ১৫ জুন পর্যন্ত সময়বৃদ্ধি মমতার

সময়বৃদ্ধি মমতার

Covid Restrictions Extended: লকডাউন (West Bengal Lockdown) কার্ফু না, বাংলায় বিধিনিষেধের সময়সীমা বাড়িয়ে ১৫ জুন পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

  • Share this:
    #কলকাতা: করোনা পরিস্থিতির কারণে ১৬ মে থেকে কড়া বিধিনিষেধে চলে গিয়েছিল বাংলা। নবান্নের নির্দেশ ছিল, ৩০ মে পর্যন্ত চলবে এই কার্যত লকডাউন প্রক্রিয়া(Almost Lockdown In West Bengal)। কিন্তু রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সামান্য কমলেও পরিস্থিতি এখনও ভয়াবহ। তাই সেই বিধিনিষেধের সময়সীমা বাড়িয়ে ১৫ জুন পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'দয়া করে লকডাউন কার্ফু এসব বলবেন না। বিধিনিষেধ জারি থাকছে এটাই বলুন।' অর্থাৎ, সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী, রাজ্যে সমস্ত গণপরিবহণ বন্ধ থাকছে আপাতত ১৫ জুন পর্যন্ত৷ সরকারি- বেসরকারি বাস, ট্যাক্সি, অটো, ফেরি পরিষেবা- সবকিছুর চলাচলের উপরেই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকছে৷ বন্ধ হচ্ছে মেট্রো পরিষেবাও৷ শুধুমাত্র জরুরি প্রয়োজন ছাড়া অটো, ট্যাক্সির মতো যানবাহনও রাস্তায় বেরোতে পারবে না৷ তবে বিমানবন্দর থেকে চালু থাকবে ট্যাক্সি পরিষেবা৷ আগামী ৩০ মে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত এই নির্দেশিকা জারি ছিলই, তা বাড়ানো হল ১৫ জুন পর্যন্ত। রাজ্যের নির্দেশিকা অনুযায়ী, আন্তঃ রাজ্য বাস, ট্রেন চলাচলও বন্ধ থাকছে ১৫ জুন পর্যন্ত৷ জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত না থাকলে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়েও রাস্তায় বেরনোর উপর কড়াকড়ি জারি থাকছে৷ রাত ৯টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউই বাইরে বেরোতে পারবেন না৷ রাজ্য প্রশাসন স্পষ্ট করে দিয়েছে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত কেউই বাড়ির বাইরে বেরোতে পারবেন না৷ তবে যানবাহন চলাচলে বিধিনিষেধ থাকলেও চালু খোলা থাকবে পেট্রোল পাম্প, গাড়ি মেরামতির দোকান৷ সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টো পর্যন্ত ব্যাঙ্ক খোলা থাকবে৷ চালু থাকবে সমস্ত অনলাইন পরিষেবা৷ মুদি খানা, মাছ. মাংসের দোকানও সকাল ৭টা থেকে বেলা ১০টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে৷ মিষ্টির দোকান খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত৷ তবে চা বাগানগুলির ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চালু রাখা যাবে৷ জুট মিলগুলি ৩০ শতাংশ কর্মী নিয়ে চালু রাখা যাবে৷ বিয়ের অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ ৫০ জন জমায়েতের অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ সৎকারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ২০ জন একত্রিত হতে পারবেন৷
    Published by:Suman Biswas
    First published: