corona virus btn
corona virus btn
Loading

রেলে হাজার হাজার লোক আসতে পারলে মন্দির, মসজিদও খুলতে পারে, বললেন মমতা

রেলে হাজার হাজার লোক আসতে পারলে মন্দির, মসজিদও খুলতে পারে, বললেন মমতা

তিনি জানিয়ে দিলেন, ১ জুন সকাল ১০টা থেকে রাজ্যে সমস্ত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে।

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে পরবর্তী পর্যায়ের লকডাউন নিয়ে রাজ্যের প্রশাসনের রূপরেখা স্পষ্ট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানিয়ে দিলেন, ১ জুন সকাল ১০টা থেকে রাজ্যে সমস্ত ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। তবে তিনি জানিয়েছেন, কোনও রকম জমায়েত ছাড়াই সর্বাধিক দশজনকে নিয়ে মন্দিরের কাজকর্ম চালানো যাবে। কারণ, ধর্মীয় স্থান খুলছে মানেই সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের নিয়ম চলে যাচ্ছে, এমনটা নয়। করোনা মোকাবিলায় বড় কোনও জমায়েত এখনও এড়িয়েই চলতে হবে। কোনও ধর্মীয় জমায়েত করা যাবে না। তবে মন্দির, মসজিদ, গুরুদ্বার বা অন্য ধর্মীয় স্থান খুলবে। সেখানে ভিড় এড়িয়ে কাজ করতে হবে। ধর্মীয় স্থানে একবারে দশজন করে ঢুকতে পারবে। বেশি লোক ঢোকা চলবে না।

মমতা এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে গাদাগাদি করে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর বিষয়টি সামনে এনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "যদি ট্রেনে এভাবে লোক ফেরানো হয়, তাহলে ধর্মস্থান খুলতে কী দোষ!"‌ তাঁর কথায়, "‌আমার মনে হয়, আমাদের দেবদেবীরও পুজো হোক। তবে প্রার্থনা বা অন্য কোনও বিষয়ে ধর্মস্থানে জমায়েতের এখনই অনুমতি দেওয়া যাবে না। একজন যাবেন, পুজো দেবেন বা প্রার্থনা করবেন, চলে আসবেন। বড় জমায়েত যেন না হয়। মনে রাখবেন, এখন সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং বজায় রাখতে হবে। আমি ধর্মস্থান কর্তৃপক্ষকে বলব, আপনারা স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা রাখুন। খেয়াল রাখুন যাতে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মানা হয়

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: May 29, 2020, 6:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर