সিসি ক্যামেরা, ওয়াচ টাওয়ারে নজরদারি...কার্নিভাল ঘিরে কড়া নিরাপত্তা

সিসি ক্যামেরা, ওয়াচ টাওয়ারে নজরদারি...কার্নিভাল ঘিরে কড়া নিরাপত্তা

রাত পোহালেই রাজ্য সরকারের মেগা বিসর্জন কার্নিভাল

  • Share this:

#কলকাতা: রাত পোহালেই রাজ্য সরকারের মেগা বিসর্জন কার্নিভাল। রেড রোডে চলছে শেষ মুহূর্তের টাচ। টেরাকোটা মন্দিরের আদলে তৈরি মূল মঞ্চ। মুখ্যমন্ত্রীর মঞ্চের পাশেই রাজ্যপালের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা। কার্নিভালের থিম রাঙামাটির বাংলা।

সিসি ক্যামেরা, ওয়াচ টাওয়ারে নজরদারি...কার্নিভাল ঘিরে কড়া নিরাপত্তা। মোট ৩ হাজার পুলিশ মোতায়েন থাকছেন। রেড রোড এলাকায় বসানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা, নজরদারি চালানো হবে ১০টি ওয়াচ টাওয়ার থেকে। আমন্ত্রিতদের জন্য থাকছে এলইডি স্ক্রিনের ব্যবস্থা। কার্নিভালে উপস্থিত থাকবেন ডেপুটি ও যুগ্ম কমিশনার, থাকবেন অতিরিক্ত কমিশনার পদমর্যাদার অফিসারও।

ঠাকুর দালানে বসে বিসর্জন কার্নিভাল উপভোগ। পুজো শেষে পুজোর আনন্দ দিতে তৈরি রেড রোড। শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে থেকে শুরু শহর ও শহরতলির মেগা পুজোর রঙিন কার্নিভাল। টেরাকোটা মন্দিরের আদলে তৈরি হয়েছে মঞ্চ। মূল মঞ্চে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার ডান দিকের মঞ্চে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের বসার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা। সঙ্গে থাকবেন রাজ্যের মন্ত্রীরা। মুখ্যমন্ত্রীর মঞ্চের বাঁ দিকে আমলা ও সেনাবাহিনীর কর্তাদের বসার ব্যবস্থা। মুখ্যমন্ত্রীর মঞ্চের উলটো দিকে একই রকম মঞ্চ তৈরি হয়েছে। সেখানে বসবেন বিভিন্ন রাষ্ট্রদূত ও বিদেশি পর্যটকরা। সঙ্গে থাকছে প্রেস গ্যালারি, বিশেষ অতিথি ও সাধারণ দর্শকদের বসার ব্যবস্থা।

বিশ্বমঞ্চে বাংলার দুর্গোৎসবকে পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ। তাই এবারের বিসর্জন কার্নিভালের থিম রাঙামাটির বাংলা। চন্দননগরের আলোয়ে সেজেছে রেড রোড। তাতেই কন্যাশ্রী, যুবশ্রী থেকে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প ফুটে উঠবে। কার্নিভালের সূচনা করবে কলকাতা পুলিশের কমব্যাট ফোর্স। বাইকে কসরত দেখাবেন টর্নেডোর পঁয়তাল্লিশ জন সদস্য। এরপরই ঢাকের তাল, পুরুলিয়ার ছৌ নাচের পর শুরু প্রদর্শন। কলকাতা ও শহরতলির বিশ্ব বাংলা শারদ সম্মান প্রাপ্ত প্রায় ৮০টি পুজো কমিটি কার্নিভালে অংশ নেবে। প্রত্যেক পুজো কমিটি ২-৩টি ট্যাবলো রাখতে পারবে। সর্বাধিক ৫০ জন সদস্য আনতে পারবে এক একেকটি পুজো কমিটি। অনুষ্ঠানের জন্য পাঁচ মিনিট করে সময়।

রাজ্য সরকারের মেগা বিসর্জন কার্নিভাল। তাই নিরাপত্তার জন্য বাড়তি ব্যবস্থা। মঞ্চের পিছনে থাকবে দমকলের গাড়ি। কুড়ি মিটার অন্তর অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র নিয়ে থাকবেন দমকল কর্মীরা। থাকছে আপতকালীন চিকিৎসা পরিষেবাও। বৃহস্পতিবার রাত থেকেই বন্ধ রেড রোড। পলাশী গেট রোডে থাকবে কার্নিভালের গাড়ি। শুক্রবার দুপুর ২টো থেকে বন্ধ থাকবে খিদিরপুর রোড। শুক্রবার দুপুর থেকে বন্ধ থাকবে লাভার্স লেন, কুইন্সওয়ে, পলাশী গেট রোড, এসপ্লানেড র‍্যাম্প। কার্নিভালে যারা আসবেন তাঁরা, এজেসি বোস রোড, চৌরঙ্গি রোড, আউটরাম রোড, মেয়ো রোড ধরে রেড রোডে আসতে পারবেন।

First published: 10:08:03 PM Oct 10, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर