কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

সাদা কাগজে রং মাখিয়ে ঘোরালেই হয়ে যাচ্ছে নতুন টাকা, অভিনব প্রতারণা করে পুলিশের জালে ২

সাদা কাগজে রং মাখিয়ে ঘোরালেই হয়ে যাচ্ছে নতুন টাকা, অভিনব প্রতারণা করে পুলিশের জালে ২

এদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ৮ টি বিভিন্ন রঙের ছোট বোতল, একটি ছোট স্প্রিটের বোতল, ৩ টি ১০০ ডলারের কালার জেরক্স নোট, দুই বান্ডিল ১০০০ পিস টাকার মাপের কাগজ।

  • Share this:

Anup Chakroborty

#কলকাতা: এ এক নতুন কায়দায় প্রতারণা, সেই প্রতারণা চক্রের দুই পান্ডাকে গ্রেফতার করল নিউটাউন থানার পুলিশ। সাদা কাগজে রং করে তার ওপর আর একটি সাদা কাগজে মুড়ে হাতের তালুতে রেখে ঘোরালেই নাকি হয়ে যাচ্ছে আরও একটি নোট। আর সেই রং কিনতে গেলে দিতে হবে লাখ টাকা। এই ভাবেই মানুষকে ঠকিয়ে আসছিল দুই প্রতারক। শুধু তাই নয়, ডলার ভাঙিয়ে দেওয়ার নাম করেও প্রতারণা করত তারা। অবশেষে নিউটাউনে এসে ধরা পড়ে গেল দুই প্রতারক। তাদের তারুলিয়া এলাকা থেকে ধরা হয়। এদের নাম দেবাশীষ মন্ডল (বাসন্তী) সৌরভ মল্লিক (বাসন্তী)। এদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ৮ টি বিভিন্ন রঙের ছোট বোতল, একটি ছোট স্প্রিটের বোতল, ৩ টি ১০০ ডলারের কালার জেরক্স নোট, দুই বান্ডিল ১০০০ পিস টাকার মাপের কাগজ।

পুলিশ সূত্রে খবর, এ দিন সকালে তাঁরা খবর পান তারুলিয়া এলাকায় দুই ব্যক্তি সন্দেহজনক ভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশ গিয়ে তাদেরকে পরিচয় জানতে চাইলে তারা বলছিল না । এরপরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা তাদের পরিচয় জানায়। জানা যায়, তারা দু’জনেই বাসন্তী এলাকার বাসিন্দা । জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে নেয় যে, তারা নানা পদ্ধতিতে মানুষকে ঠকিয়ে বেড়াত।

দুটি পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে তারা মানুষকে ঠকাত। প্রথম পদ্ধতি হল, টাকা দিয়ে নতুন টাকা তৈরি করা। নানা রকম রং মিশিয়ে। সেই রং লাখ টাকায় বিক্রি করার নামে প্রতারণা। প্রথমে তারা একটি টাকায় আগে থেকে রঙ করে সাদা কাগজে মুরে ব্যাগের মধ্যে রাখত। এরপর তারা সবার সামনে একটি সাদা কাগজে রঙ করে আর একটি সাদা কাগজে মুড়ে চোখে ধুলো দিয়ে হাতের কারসাজিতে ব্যাগের মধ্যে থাকা আগে থেকেই রাখা রঙ করা টাকা বের করে হাতের তালুতে রেখে ঘোরাত । কিছুক্ষণ পরে বলতো দেখো সাদা কাগজ টাকা হয়ে গিয়েছে। এটা করতে গেলে এই রং কিনতে হবে। এই রঙের দাম লাখ টাকা। এই বলে তারা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করত।

দ্বিতীয় পদ্ধতি হল, ডলার ভাঙনোর নাম করে প্রতারণা । প্রতারকরা তাদের সমস্যার কথা বলে মানুষের কাছে বলতো তার কাছে কিছু ডলার আছে সেটি ভাঙাতে চায় অল্প টাকার বিনিময়ে। কেউ রাজি হয়ে গেলে তাদের জেরক্স করা ডলার দিয়ে টাকা নিয়ে ডলার নিয়ে আসার নাম করে পালিয়ে যেত। আজ ধৃতদের বারাসত কোর্টে তোলা হবে।

Published by: Simli Raha
First published: October 1, 2020, 2:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर