corona virus btn
corona virus btn
Loading

সেতু ঠিক তো শহর ফিট ! হাওড়া ব্রিজ, দ্বিতীয় হুগলি সেতু নিয়ে জনস্বার্থ মামলা হাইকোর্টে

সেতু ঠিক তো শহর ফিট ! হাওড়া ব্রিজ, দ্বিতীয় হুগলি সেতু নিয়ে জনস্বার্থ মামলা হাইকোর্টে

সেতু ঠিক তো শহর ফিট !

  • Share this:

ARNAB HAZRA

#কলকাতা: শহরবাসীর নিত্য সঙ্গী এখন যানজট। সম্প্রতি পরপর কিছু  সেতু বিপর্যয় যানজট অভিজ্ঞতা-কে আরও দুর্বিষহ করে তুলেছে। নতুন করে সেতু বিপর্যয় না হওয়া মানে যানজটে অনেকটা লাগাম। সেতু আশঙ্কা মুক্ত রাখতে তাই উদ্যোগ একদল আইনজীবীর।

কলকাতা হাইকোর্টের আইনজীবীদের একটি দল একজোট হয়ে আইনি এই লড়াইয়ে নেমেছেন। দায়ের হয়েছে জনস্বার্থ মামলা। হাওড়া ব্রিজ, দ্বিতীয় হুগলি সেতু, নিবেদিতা সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা চালান তাঁরা। পাশাপাশি শহরের আরও ১১ টি সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষাও চাইছেন তাঁরা। ১৪ সেতুর ফিটনেস ধরে রাখতে কি পদক্ষেপ নিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ? সেতুর স্বাস্থ্য ধরে রাখার পদ্ধতিগত  ফান্ডা কী কী।

একাধিক প্রশ্ন তুলে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছে। জনস্বার্থ মামলাকারী আইনজীবী সৌম্যশুভ্র রায় হাইকোর্টের কাছে আবেদনে জানিয়েছেন-- পোস্তা, মাঝেরহাট সেতু বিপর্যয়ের পর সব সেতু নিয়েই আলাদা গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। কয়েকদিন আগে দ্বিতীয় হুগলি সেতু থেকে চাপ চাপ কালো গুঁড়ো বস্তু নদীতে সরাসরি পড়তে দেখা গিয়েছে । বিদ্যাসাগর সেতুর স্বাস্থ্য নিয়ে একটা আশঙ্কা তৈরি হয়েছে মানুষের মনে। নদীর ওপর ব্রিজ গুলির শুধু রং আর আলো ছড়িয়ে স্বাস্থ্য ধরে রাখা সম্ভব নয়।

জনস্বার্থ মামলার আবেদন-- এক, বর্তমানে ১৪ সেতুর স্বাস্থ্যের হাল ঠিক কী রকম দুই, কত সময় অন্তর সেতু গুলির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয় তিন, সেতু কত ওজনের যানবাহণ বইতে সক্ষম তার কোন অডিট হয়েছে কী ? চার, রাজ্যের পরিবহন দফতর-কে নির্দেশ দেওয়া হোক সেতু নিয়ে যথাযথ পদক্ষেপ করতে

জনস্বার্থ মামলাকারীর আইনজীবী শমিক চট্টোপাধ্যায় নিউজ ১৮ বাংলা কে জানান, " পুরনো শহর কলকাতার মোট জমির তুলনায় রাস্তার পরিমাণ খুব কম। সেতু অনিবার্য তাই এই শহরের জন্য। সেতুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা নিয়মিত করা জরুরি। হাওড়া ব্রিজ, দ্বিতীয় হুগলি সেতু নিয়ে বিশেষ গুরুত্বের কথা তুলে ধরব আদালতের কাছে।" বুধবার বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের ডিভিশন বেঞ্চে জনস্বার্থ মামলাটি শুনানির জন্য উঠতে পারে।

First published: December 7, 2019, 9:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर