• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • চালুর হওয়ায় অপেক্ষায় ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন, কেমন দেখতে হল ফুলবাগান, দেখুন

চালুর হওয়ায় অপেক্ষায় ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন, কেমন দেখতে হল ফুলবাগান, দেখুন

স্টেশনের প্রথম তলেই থাকছে এটিভিএম মেশিন। এছাড়া থাকছে টিকিট কাউন্টার।

স্টেশনের প্রথম তলেই থাকছে এটিভিএম মেশিন। এছাড়া থাকছে টিকিট কাউন্টার।

স্টেশনের প্রথম তলেই থাকছে এটিভিএম মেশিন। এছাড়া থাকছে টিকিট কাউন্টার।

  • Share this:

#কলকাতা: তিন দশক পরে কলকাতা শহরে পাতালে নয়া মেট্রো স্টেশন। ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন চালু হচ্ছে শীঘ্রই, এমনটাই মেট্রো সূত্রে খবর। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কেমন হচ্ছে ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন। ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে প্রতি স্টেশনের নামকরণ করা হয়েছে একটা থিম বাছাই করে। ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনের নাম অনুযায়ী স্টেশন চিত্রায়িত করা হয়েছে বাহারি ফুল দিয়ে। স্টেশনে ঢোকা থেকে প্ল্যাটফর্মে ট্রেন ধরা অবধি অপেক্ষা করলে গোটা পথেই নজরে আসবে এই সব ফুল।

লাল, হলুদ, সবুজ বাহারি ফুলে স্টেশন সাজানো হয়েছে। মেট্রো স্টেশনে থাকছে তিনটি এসক্যালেটর, তিনটি লিফট ও ছয়টি সিঁড়ি। শারীরিক ভাবে যারা অক্ষম তাদের জন্যে লিফটে ওঠানামা দেখাশোনার জন্যে থাকবে কর্মী। চওড়া, প্রশস্ত সিঁড়ি ধরে একসাথে অনেকেই ওঠা নামা করতে পারবেন। স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে লম্বায় ১৪০ মিটার। দুটি প্ল্যাটফর্মে থাকছে ২৪টি করে প্ল্যাটফর্ম স্ক্রিন ডোর। মেট্রো এসে স্টেশনে পৌছনো আর প্ল্যাটফর্ম স্ক্রিন ডোরের দরজার মধ্যে নজর রাখার জন্যেও প্ল্যাটফর্মের মেঝেতে বিশেষ চিহ্ন দেওয়া থাকছে। এছাড়া যারা অন্ধ তাদের জন্যে প্ল্যাটফর্মের মেঝেতে বিশেষ চিহ্ন থাকছে।

স্টেশনের প্রথম তলেই থাকছে এটিভিএম মেশিন। এছাড়া থাকছে টিকিট কাউন্টার। যারা শারীরিক ভাবে অক্ষম তাদের জন্যে টিকিট কাউন্টার এর উচ্চতা কমানো আছে। যাতে হুইল চেয়ারে বসে টিকিট কাটার সুযোগ পাওয়া যায়। এছাড়া ইলেকট্রনিক ফ্ল্যাপ গেটের সামনে থাকছে বিশেষ ব্যবস্থা। যেখানে মেট্রো কাড ঠেকালেই ব্যালেন্স জানা যাবে। অন্যদিকে প্ল্যাটফর্মে থাকছে টক ব্যাগ ব্যবস্থা। যেখানে কোনও বিপত্তি হলেই প্ল্যাটফর্মে থাকা মেট্রো কর্মী টক ব্যাগের বাটন পুশ করলেই কথা বলা যাবে সরাসরি মেট্রোর কন্ট্রোল রুমের সাথে। এছাড়া পাশে থাকছে আরও একটা গ্লাস বক্স। যেটা ভাঙলে ও বিশেষ বাটন পুশ করলে মেট্রো চলাচল পুরোপুরি বন্ধ থাকবে।

এছাড়া এই স্টেশনে থাকছে বিশেষ স্টেশন কন্ট্রোল রুম। যেখান থেকে সহজেই গোটা স্টেশনের যাবতীয় ট্রেন অপারেশন কন্ট্রোল করা যাবে। ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের এই স্টেশনে থাকছে শৌচালয়। কলকাতার পুরনো উত্তর-দক্ষিণ মেট্রোতে অবশ্য শৌচালয় নেই। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের আদেশ মতো প্রতি মেট্রো স্টেশনে শৌচালয় বাধ্যতামূলক। ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনে তা থাকছে। কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে করপোরেশন লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার সিভিল নরেশ চন্দ্র কারমালি জানিয়েছেন, "ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পে প্রথম পাতাল স্টেশন। ফলে আগামী স্টেশন চালুর আগে আমরা বুঝে যেতে পারব আমাদের ত্রুটি কোথায়।" যেহেতু মাটির নীচে স্টেশন তাই ফুলবাগানের এসি বা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা বারবার পরীক্ষা করা হচ্ছে। এছাড়া সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল, স্টেশনে কোন ধরণের সমস্যা হলে কত দ্রুত যাত্রীদের বাইরে বের করে আনা যাবে। কে এম আর সি এল জানাচ্ছে, ৬ মিনিট সময়ের মধ্যে বার করে নিয়ে আসা যাবে। আপাতত সব প্রস্তুতি সেরে ফেলা হয়েছে। এবার শুধু যাত্রা শুরুর অপেক্ষা।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: