Home /News /kolkata /
Speed Boat At Ravindra Sarobar: রবীন্দ্র সরোবরে পেট্রোলচালিত স্পিড বোট! 'কাণ্ড' দেখে অবাক পরিবেশপ্রেমীরা

Speed Boat At Ravindra Sarobar: রবীন্দ্র সরোবরে পেট্রোলচালিত স্পিড বোট! 'কাণ্ড' দেখে অবাক পরিবেশপ্রেমীরা

Speed Boat At Ravindra Sarobar পরিবেশ প্রেমীরা রবীন্দ্র সরোবরে এমন কাণ্ড দেখে অবাক। নিয়ম ভাঙছে কে? 

  • Share this:

#কলকাতা: 'একটি অতি দুঃখের কথা জানাচ্ছি। যদি এটি কর্তৃপক্ষের চোখে ধরা পড়ে। দেখলাম, রবীন্দ্রসরোবরের লেকে স্পিডবোট চলছে। যা সমস্ত নিয়মের বিপক্ষে, কেন তা একটু বুঝিয়ে বলি'।

আমরা জানি, দক্ষিণ কলকাতার লেক অর্থাৎ রবীন্দ্রসরোবর জাতীয় সরোবরের মর্যাদা পেয়েছে। এটি হেরিটেজ তকমার যোগ্য। মহামান্য আদালতের নির্দেশানুসারে, ভোরবেলায় ঘন্টা তিনেক এই সরোবরের চারপাশের রাস্তার ধারেকাছেও কোনও  মোটরযান প্রবেশ করতে পারে না।রাস্তা সিল করা হয়।

আরও পড়ুন- ছেড়ে আসা বাড়িতে পড়ে লক্ষ লক্ষ টাকার সোনা!ঘুম উড়েছে দুর্গা পিতুরি লেনের কারিগরদের

কলকাতা ইম্প্রুভমেন্ট ট্রাস্টের তত্ত্বাবধানে এই জাতীয় সরোবরটির ভেতর সাইকেল পর্যন্ত প্রবেশ করতে পারে না।  এতটাই কড়া কর্তৃপক্ষ। কিন্তু হঠাৎ পরিবেশ সংরক্ষণের সমস্ত নিয়মনীতি ভেঙে লেকের জলে স্পিডবোট! যা কি না পেট্রোলইঞ্জিন চালিত।

এই পেট্রোল ইঞ্জিন দারুণভাবে দূষিত করে তুলছে সমগ্র  লেক চত্বরকে।লেকে নিয়মিত ব্যায়ামচর্চাকারী এবং প্রাতঃভ্রমণকারীরা এই ঘটনায় যারপরনাই ক্ষুব্ধ এবং সর্বোপরি বিস্মিত।

লেকের পাহারায় যে পুলিশ বাহিনী রয়েছে, তাদেরও শুধু ব্যাটারীচালিত গাড়ি ব্যবহারের অনুমতিই দেওয়া হয়েছে। কলকাতার সাইকেলপ্রেমীরা  সপ্তাহের কোনও নির্দিষ্ট দিনে নির্দিষ্ট সময়ে পরিবেশ-বান্ধব সাইকেল চালাবার অনুমতি চেয়েছিলেন। অথচ সেই অনুমতিটুকুও দেওয়া হয়নি নিয়ম দেখিয়ে। সেখানে লেকের জলে স্পিডবোট চলছে কী করে?

এই অনুমতি তারা পেল কী করে? সে এক বিষ্ময় গোটা বাংলার পরিবেশপ্রেমী এবং সাধারণ মানুষের কাছে। ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের নির্দেশ রয়েছে, যেখানে দুস্প্রাপ্য প্রাণী এবং অন্যান্য জীব ক্ষতিগ্রস্ত হবে, এমন পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষের উদ্দেশ্য হবে তৎক্ষনাৎ ব্যবস্থা নেওয়া।

যা দেখা যাচ্ছে তাতে লেকের জলে স্পিডবোটের বর্জ্যতেলের ফেনা হাওয়ার ধাক্কায় লেকের  পাড়ে জমা হচ্ছে। মাছ মরে যাচ্ছে। এখন পরিযায়ী পাখিরও আনাগোনা বেড়েছে। সেখানে এই মারাত্মক পরিবেশ ধ্বংসকারী জলযান চালাবার যুক্তি কী? জানতে চাইছে সাধারণ মানুষ।

কোথাও বজ্রআঁটুনি আবার  কোথাও ফস্কা গেরো? এটা কীরকম পরিবেশ নীতি?  দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ  থেকে কেএমডিএ ( KMDA )  সহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের কাছে খোলা চিঠিতে এই প্রশ্নই পরিবেশ প্রেমীদের।

আরও পড়ুন- কলকাতার ব্যস্ত রাস্তায় আচমকা নামল ধস! প্রশাসনের তৎপরতায় বড়সড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা

পরিবেশপ্রেমী সোমেন্দ্র মোহন ঘোষ বলেন, প্রাতঃভ্রমণে গিয়ে হঠাৎ করে দেখছি নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে লেকে স্পিডবোট চলছে। আমরা মনে করি এর জেরে পরিবেশ ভয়ঙ্করভাবে দূষিত হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমাদের দাবি, অবিলম্বে  রবীন্দ্র সরোবর লেকে অন্যায় ভাবে চলাচলকারি স্পিডবোট বন্ধ করা হোক'।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Kolkata Municipal Corporation, Ravindra Sarobar

পরবর্তী খবর