• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • OXYGEN PARLOUR STARTS IN KOLKATA TO COMBATING COVID SITUATION SB

Oxygen Parlour in Kolkata: সঙ্কট কমাতে অভিনব উদ্যোগ, কলকাতায় খুলে গেল অক্সিজেন পার্লার! রইল নম্বর...

অভিনব উদ্যোগ

পরিস্থিতি মোকাবিলায় বেসরকারি সংস্থা লায়ন্স ক্লাবের সঙ্গে যৌথ ভাবে পরিকাঠামো বাড়াতে উদ্যোগ নিল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর ও কলকাতা পুরসভা।

  • Share this:

    #কলকাতা: গোটা দেশের মতো বাংলাতেও আছড়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ (Second Wave of Coronavirus)। দিকে-দিকে অক্সিজেন (Oxygen)-ওষুধের আকাল। এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগেই একাধিক পরিকল্পনা নিয়েছিল রাজ্য সরকার (West Bengal Government)। সেই সূত্রে রাজ্যে যত বেশি সম্ভব অক্সিজেন জোগান রাখতে তৎপরতাও তুঙ্গে। এই এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় বেসরকারি সংস্থা লায়ন্স ক্লাবের সঙ্গে যৌথ ভাবে পরিকাঠামো বাড়াতে উদ্যোগ নিল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর ও কলকাতা পুরসভা।

    উত্তীর্ণ ভবনে সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে ২৫ শয্যার অক্সিজেন পার্লার (Oxygen Parlour)। পরিকাঠামো দিচ্ছে কলকাতা পুরসভা। জানা গিয়েছে, সেখানে এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে শিফট ভাগ করে ডাক্তার ও নার্স দেবে স্বাস্হ্য দফতর। আর অক্সিজেন দেবে লায়ন্স ক্লাব। ২৫টি শয্যা দিয়ে শুরু হলেও মে মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে অক্সিজেন পার্লারের শয্যা সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াবে ২০০।

    ইতিমধ্যে উত্তীর্ণ ভবনের ৩ ও ৪ তলায় ১০০টি করে মোট ২০০ টি বেডের সেফ হাউস চলছে। সেই সংখ্যাও আগামী মাসের মাঝামাঝি থেকে বেড়ে হবে ৪০০।সেফ হাউসে যাঁরা আছেন, তাঁরা তো বটে, বাইরে কোনও রোগীর হঠাৎ অক্সিজেন স্যাচুয়েশনের মাত্রা কমে গেলে এই পার্লারে আসতে পারেন। আসার আগে এখানকার হেল্পলাইন নম্বর অর্থাৎ, 9831768684 নম্বরে ফোন করে জেনে নিতে হবে বেড ফাঁকা রয়েছে কিনা। আজ সেখানকার পরিকাঠামো খতিয়ে দেখেন বিদায়ী পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

    কলকাতায় প্রতিদিন করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এই পরিস্থিতিতে বাড়ানো হচ্ছে বেডের সংখ্যাও। দিনকয়েক আগেই উত্তীর্ণ ভবনে ৫০০ বেডের সেফ হোম তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি গীতাঞ্জলী স্টেডিয়ামেও তৈরি করা হয়েছে সেফ হোম। ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, উত্তীর্ণ ভবনে করোনার প্রথম পর্যায়েই সেফ হোম তৈরি করার কথা ছিল। করোনার সংক্রমণ কমে যাওয়ায় তা আর করা হয়নি। দ্বিতীয় ঢেউ ভয়ংকর রূপ নেওয়ায় আবার সেই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এখানে ১০টি অ্যাম্বুল্যান্স থাকছে, এবার চালু হল অক্সিজেন পার্লারও।

    Published by:Suman Biswas
    First published: