Home /News /kolkata /
এক সময়কার কিডনি বিক্রেতারা, এখন কিডনি পাচার চক্রের দালাল

এক সময়কার কিডনি বিক্রেতারা, এখন কিডনি পাচার চক্রের দালাল

এই শহরে প্রচুর মানুষ রয়েছেন যারা তাদের একটি করে কিডনি বিক্রি করে দিয়েছেন, কিডনি পাচার চক্রের প্রলোভনে পড়ে

  • Share this:

#কলকাতা: আবার কিডনি চক্র সক্রিয় কলকাতাতে। রবিবার কলকাতার বহুল প্রচলিত সংবাদপত্রে কিডনি চাই বলে বিজ্ঞাপন বেরোয়। সেই বিজ্ঞাপন দেখে, অরূপ দে এবং ডানকুনির এক ব্যক্তি ওই নম্বরে ফোন করে।ওই নম্বরে ফোন করলে ওই দুজনকে আজ মঙ্গলবার বিকেল তিনটের সময় রুবি হসপিটালের মোড়ে আসার কথা বলে।অরূপ ফোনে অপর প্রান্তে থাকা ব্যক্তির সঙ্গে কিডনি বিক্রি সংক্রান্ত সমস্ত কথাবার্তা বলে। তিন লক্ষ টাকায় কিডনি বিক্রি হবে।এটা চূড়ান্ত হয়ে যায় দুজনের মধ্যে।   আজ বিকেল তিনটের সময় অরূপ কথামতো রুবি হাসপাতালের সামনে ওদের দেওয়া ঠিকানা অনুযায়ী বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে দাঁড়ায়। সেখানে গিয়ে অরূপ দেখে দুই ব্যক্তি রয়েছে। তারমধ্যে একজনের মাথার চুল উস্কখুস্ক। আর একজন ব্যক্তি, যিনি এসেছেন ডানকুনি থেকে। ওদের মধ্যে শুরু হয় কথাবার্তা। রুবি হাসপাতাল এর গেটের মুখে একটি চায়ের দোকানে গিয়ে তিনজন মিলে বসে (আনন্দপুর থানা এলাকা)। সেখানে চা খেয়ে নীতিশ নামে একজনের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা হয়। ওই নীতিশ ওদের বস।সেই সময় দেখা যায় ,চুল উস্কোখুস্কো রোগা আকৃতির ব্যক্তি রণবীর রজক। ওরই ফোন নাম্বারটা বিজ্ঞাপনে ছিল।রণবীর জানায় নীতিশ নামে একজন তার ফোন নম্বরটা দিয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছে।

রণবীর নিজেও তিন লক্ষ টাকার বিনিময়ে নীতিশের কাছে ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে একটি কিডনি বিক্রি করেছিল।ও বলে নীতিশের সঙ্গে চুক্তি হল,ফোনে কথা বলে কিডনি বিক্রেতাকে নিয়ে যেতে পারলেই,তার বিনিময়ে টাকা পাবে সে। ওর কিডনি বিক্রির তিন লক্ষ টাকা শেষ হয়ে গেছে। এখন আরও টাকার জন্য নেমে গেছে এই চক্রে।শুধু এই ছেলেটি নয়।এই রকম যতজন কিডনি বিক্রি করেছে, একটা সময়ে এসে টাকার অভাবে তারাও কিডনি বিক্রেতা ধরে আনছে নীতিশের কাছে। আজ নীতিশ আঁচ পেয়ে আসেনি।ও নিজেকে একজন ডাক্তার বলে পরিচয় দেয়। পুলিশকে বিষয়টি জানানোর পরও, তাদের দিক থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি এখনো।

Published by:Ananya Chakraborty
First published:

Tags: Kidney Racket

পরবর্তী খবর