Home /News /kolkata /

পুলিশের পদক্ষেপে আশ্বস্ত, জুনিয়র ডাক্তারদের লালবাজার অভিযান স্থগিত

পুলিশের পদক্ষেপে আশ্বস্ত, জুনিয়র ডাক্তারদের লালবাজার অভিযান স্থগিত

Photo -PTI

Photo -PTI

লালবাজার অভিযান কর্মসূচী প্রত্যাহার করলেন জুনিয়র ডাক্তাররা ৷ এনআরএসের ঘটনায় ধৃত আরও ২ ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: লালবাজার অভিযান কর্মসূচী প্রত্যাহার করলেন জুনিয়র ডাক্তাররা ৷ এনআরএসের ঘটনায় ধৃত আরও ২ ৷ এনআরএসে চিকি‍ৎসক নিগ্রহের পরেই পাঁচজন গ্রেফতার হয়। কিন্তু এনআরএস হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের নিগ্রহে অভিযুক্তরা ছাড়া পেয়ে যায় চিকি‍ৎসক দিবসেই। ফের বাড়তে থাকে ক্ষোভ। প্রতিবাদে মঙ্গলবার লালবাজারের অভিযান ডাক দেন জুনিয়র ডাক্তাররা। এই অবস্থায় আরও দু’জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। এর পরেই পুলিশি পদক্ষেপে আশ্বস্ত হয়ে এই কর্মসূচী স্থগিত করেন জুনিয়র ডাক্তাররা ৷

    ১০ জুন রোগী মৃত্যু ঘিরে রণক্ষেত্র এনআরএস হাসপাতাল। রোগীর আত্মীয় পরিজনদের মারধরে গুরুতর আহত হন জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ মুখোপাধ্যায়। প্রতিবাদে কর্মবিরতির ডাক দেন জুনিয়র ডাক্তাররা। রাজ্যজুড়ে সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা এই আন্দোলনে সমর্থন জানান। এরপরই সিসিটিভি ফুটেজ ও বাইকের সূত্র ধরে পাঁচজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

    পুলিশ ও জেল হেফাজত মিলিয়ে ১৯ দিন তাদের আটকে থাকতে হয়। তাদের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার ধারাও যোগ করা হয়। কিন্তু ঘটনার ২১ দিনের মধ্যে হামলায় ব্যবহৃত লাঠি ও হামলাকারীদের বাইক ছাড়া অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনও প্রমাণই জোগাড় করতে পারেনি পুলিশ। তাই জামিন পেয়ে যায় ধৃতরা। শনিবার ভবানীভবনে পুলিশ ও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তার সঙ্গে বৈঠকে জুনিয়র ডাক্তাররা এই নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করে। তারপরেই সোমবার আরও দু’জনকে গ্রেফতার করল এন্টালি থানার পুলিশ। ধৃত তাবের ও নিজামুদ্দিন ৷ ঘটনার দিন লাঠি নিয়ে এনআরএসে ছিল দু’জন ৷ এন্টালির বাড়ি থেকে দু’জন গ্রেফতার ৷ প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান ও সিসিটিভি ফুটেজ দেখে গ্রেফতার করা হয় ৷

    ৩০৭ ধারায় খুনের চেষ্টা, ৩২৪ ধারায় মারধর, ৩২৬ ধারায় মারধরে গুরুতর জখম, ৩৩৩ ধারায় সরকারি কর্মীকে কাজের সময় জখম করা ও চার নম্বর পিডিপিপি অ্যাক্টে সরকারি হাসপাতালে ঢুকে হামলা ও ভাঙচুরের মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবীর দাবি, জুনিয়র ডাক্তাদের সন্তুষ্ট করতেই সোমবারের গ্রেফতারি। ধৃত দু’জনকে ৯ অগাস্ট পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

    First published:

    Tags: Doctors strike, Junior Doctors, Laalbazar avijan, NRS, NRS case, NRS Doctors

    পরবর্তী খবর