স্টেশন থেকে যে খাবার কিনে খাচ্ছেন, সেটা কি স্বাস্থ্যকর?

স্টেশন থেকে যে খাবার কিনে খাচ্ছেন, সেটা কি স্বাস্থ্যকর?

বহু অভিযোগ জমা পড়েছে। এমনকি যাদের কাছে অনুমতি নেই তারাও খাবার বিক্রি করছেন। যাদের থেকে খাবার খে বহু মানুষ অসুস্থ হওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

  • Share this:

ABIR GHOSHAL #কলকাতা: শিয়ালদহ স্টেশন দিয়ে প্রতিদিন লাখ লাখ মানুষ যাতায়াত করেন । এদের মধ্যেই প্রায় ৫৫ শতাংশ রেল যাত্রী স্টেশন থেকে খাবার কিনে খান। কিন্তু সেই খাবার কি আদৌ স্বাস্থ্য সম্মত? উত্তর জানতে এবার খাবার পরীক্ষায় নামল রেল। সাহায্য নেওয়া হচ্ছে কলকাতা পুরসভার। ভারতীয় রেলে খাবার পরিবেশনের দায়িত্বে রয়েছে IRCTC। স্টেশনে রয়েছে জন আহার। যা নিয়ন্ত্রণ করে IRCTC। এছাড়া শিয়ালদহ স্টেশনে রয়েছে একাধিক ফুড স্টল। যেখানে নানা ধরনের খাবার পাওয়া যায়। তবে এই সব স্টলে খাবারের তদারকিও করে IRCTC ৷ বেশ কিছুটা নজরদারি করে রেল। নজরদারির ফাঁক গলে যে সমস্ত খাবার বিক্রি করা হয় তার মধ্যে অধিকাংশ খাবারই স্বাস্থ্যকর নয় বলে অভিযোগ।

এই অভিযোগ জমা পড়ার পরেই স্টেশনে শুরু হয়েছে খাবার পরীক্ষা করার কাজ। খাবার পরিদর্শকদের তরফে রান্নাঘরে গিয়ে দেখা হচ্ছে যেখানে যেভাবে খাবার রান্না করা হচ্ছে সেই খাবার তৈরি করার উপযুক্ত পরিবেশ আদৌও আছে কিনা । বিশেষ করে অভিযোগ, একাধিক রান্নাঘরে আরশোলা ও টিকটিকি ঘুরে বেড়াচ্ছে। যে বা যারা খাবার রান্না করার কাজ করেন তারা কি আদৌ মাস্ক, গ্লাভস পরে কাজ করেন? অভিযোগ অধিকাংশ জনই তা করেন না। যা আসলে নিয়ম বিরুদ্ধ । খাবার পরীক্ষার অভিযানে নেমে শিয়ালদহ স্টেশনের প্রায় সমস্ত স্টল থেকেই খাবার সংগ্রহ করা হয়েছে। শিয়ালদহ স্টেশনের জন আহার থেকেও ফুড স্যাম্পেল নেওয়া হয়েছে । জন আহারের তৈরি করা খাবার স্যাম্পেল হিসাবে নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে মাছ ও মাংস নেওয়া হয়েছে। পরিদর্শক দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক বলেন, এত মানুষের খাবার যারা তৈরি করে তারা সত্যি কতটা নিরাপদ সেটা যাচাই করতেই এই পরীক্ষা। যদি কোনওভাবে পরীক্ষার ফল দেখা যায় খাদ্যের মান খারাপ তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, রেল জানাচ্ছে বাতিল করে দেওয়া হবে ফুড লাইসেন্স। পরীক্ষা নিরপেক্ষভাবে হয়েছে কিনা তা বোঝাতে শুধু রেল নয় কলকাতা পুরসভার ল্যাবরেটরিতেও পরীক্ষা করানো হবে ফুড স্যাম্পেল। রেলের এই ভূমিকায় খুশি যাত্রীরাও। পূর্ব রেল সূত্রে খবর, ডিভিশনের সমস্ত স্টেশনের খাবারের দোকানেই এই অভিযান চালানো হবে। রেলও জানতে চায়, স্টেশনের খাবার সত্যিই স্বাস্থ্যসম্মত কিনা!

First published: January 19, 2020, 5:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर