'উচ্চমাধ্যমিক স্থগিত রাখার এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি': পার্থ চট্টোপাধ্যায়

'উচ্চমাধ্যমিক স্থগিত রাখার এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি': পার্থ চট্টোপাধ্যায়

ছাত্র-ছাত্রীদের মানসিকতাটা খেয়াল রাখতে হবে

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আতঙ্কে ইতিমধ্যেই সিবিএসই,আইসিএসইএবং আইএস সি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। তবে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা স্থগিত করার ব্যাপারে রাজ্য কোনও সিদ্ধান্ত এখনও পর্যন্ত নেয়নি বলেই শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে স্পষ্ট করলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন তিনি জানান "আমরা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার উপর নজর রাখছি। ছাত্র-ছাত্রীদের মানসিকতাটা খেয়াল রাখতে হবে। আমাদের তেমনি তাদের স্বাস্থ্যের ওপরও নজর দিতে হবে। পুরো বিষয়টি নিয়ে আমরা সতর্ক রয়েছি। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদকে বলা হয়েছে যে কেন্দ্রগুলিতে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে সেগুলিতে যেন স্যানিটাইজার ও স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া নির্দেশ মানা হয় তা নিশ্চিত করতে।"

অন্যদিকে করোনা আতঙ্কে স্কুল গুলি বন্ধ থাকার জেরে পড়ুয়ারা যাতে মিড ডে মিল পাওয়া থেকে বঞ্চিত না হয় তার জন্য শুক্রবার একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।শিক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন "যারা মিড-ডে-মিল খেতেন তাদের দু কেজি চাল ও দু কেজি আলু দেওয়া হবে। এই পদ্ধতি কিভাবে কার্যকরী হবে তা ঠিক করবে স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা।"

করোনার জেরে ১৫ ই এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্য স্কুলগুলি ছুটি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু স্কুলগুলি ছুটি দেওয়া হলেও মিড ডে মিল প্রকল্প যে চলবে তা জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মতই শুক্রবার স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতেই বৈঠক করেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে সমস্ত পড়ুয়ারা মিড ডে মিল খেতেন তাদেরকে দু কেজি করে আলু ও দু কেজি করে চাল দেওয়া হবে। আগামী সোমবার থেকেই এই পদ্ধতি কার্যকরী করা হচ্ছে। স্কুল শিক্ষা দপ্তর নির্দেশিকায় জানিয়েছে ছাত্র ও ছাত্রীরা নয়, চাল ও আলু নিতে আসবেন অভিভাবকরা। মূলত প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিক স্কুল গুলি থেকে চাল ও আলু দেওয়া হবে। মূলত সকাল ১১ টা থেকে১টা পর্যন্ত প্রথম ও পঞ্চম শ্রেণীর অভিভাবকদের দেওয়া হবে।দুপুর দুটো থেকে বিকেল চারটে পর্যন্ত দ্বিতীয় ও ষষ্ঠ শ্রেণির পড়ুয়াদের দেওয়া হবে। তবে তৃতীয়়, চতুর্থ এবং সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণীর পড়ুয়াদের অভিভাবকদের ২৪ মার্চের পরে দেওয়া হবে আলু ও চাল।

অন্যদিকে রাজ্যের চলতে থাকা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়েও বিশেষভাবে সতর্ক রয়েছে স্কুলশিক্ষা দপ্তর। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা চলতে থাকা পরীক্ষা কেন্দ্রগুলিতে যাতে স্যানিটাইজার ও অন্যান্য ব্যবস্থা রাখা থাকছে নাকি সে বিষয়ক উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ কে নজর রাখতে বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

First published: March 20, 2020, 7:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर