• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MUKUL RPY FOLLOWER SUDIP ROY BARMAN FROM TRIPURA MAY QUIT BJP AKD

শুধু বাংলা নয় ত্রিপুরাতেও মুকুল-হাওয়া! বিজেপি ছাড়তে পারেন ভাবশিষ্য সুদীপ

শুধু বাংলা নয়, ত্রিপুরাতেও অঙ্ক গুলিয়ে দিতে পারেন মুকুল রায়।

সূত্রের খবর বিজেপি ছাড়ার সম্ভাবনা ত্রিপুরায় মুকুল ঘনিষ্ঠ আরও বেশ কয়েকজন বিধায়কের।

  • Share this:

    #আগরতলা: দলের সঙ্গে তাঁর দূরত্ব ক্রমেই স্পষ্ট হচ্ছিল। তিনি সুদীপ রায় বর্মন, ত্রিপুরার প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা বিপ্লব দেব সরকারের জনপ্রিয়তম মুখ। এখন মুকুল রায় বিজেপি ছাড়তেই বিজেপির ভিতরে বাইরে গুঞ্জন সুদীপ রায় বর্মন এবার বিজেপি ছাড়ছেন। এবং একা নন, সূত্রের খবর বিজেপি ছাড়ার সম্ভাবনা ত্রিপুরায় মুকুল ঘনিষ্ঠ আরও বেশ কয়েকজন বিধায়কের।

    মুকুল রায়ের ভাবশিষ্য সুদীপ রায় বর্মন ত্রিপুরার বিজেপিতে বিপ্লব দেবের উল্টো লবির লোক বলেই পরিচিত। বিপ্লব দেব সরকারের অংশ হলেও বারংবার সরকারের সমালোচনায় মুখর হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। দিন কয়েক আগেই কোভিড ব্যবস্থাপনা নিয়ে সরকারকে বেঁধেছিলেন সুদীপ। তিনি সরাসরি বলেন, প্রতিদিন সরকার করোনা নিয়ে যে তথ্য দিচ্ছে তা হিমশৈলের চূড়ার মতো। পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ। এভাবেই নানা সময় নানা কথা বলে বিপ্লবের বিরাগভাজন হয়েছেন সুদীপ। এমনকি দূরত্ব বেড়েছে কেন্দ্রের সঙ্গেও। অতীতে সুদীপ দিল্লিতে গেলেও তাঁকে সময় দেননি জেপি নাড্ডা। কিন্তু তবুও টালবাহানার মধ্যেই এতদিন তিনি বিজেপিতে ছিলেন। তবে এবার পাশা উল্টে যেতে পারে। মুকুল রায়কে দেখে ত্রিপুরায় যারা বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁরা একযোগে দল ছেড়ে দিতে পারেন বলেই গুঞ্জন রাজনৈতিক মহলেষ

    সূত্রের খবর দৌত্য শুরু করার পর থেকেই মুকুল রায় যোগাযোগ রাখছেন অনুগামীদের সঙ্গে। ইতিমধ্যেই নাকি তিনি ৩৫  জন বিজেপি নেতার তালিকা তুলে দিয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে। এই ৩৫ জনের মধ্যে অন্তত ২৭ জন বিধায়ক, একজন সাংসদ রয়েছেন বলেই গুঞ্জন। সূত্রের খবর, এদের মধ্যে কারা অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন আর কারা পারেন না এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে দল। তবে কিছু শর্ত রয়েছে। দেখা হবে কারা জয়ী হয়েছেন অর্থাৎ সাংগঠনিক দক্ষতাকেই অগ্রাধিকার দেবে তৃণমূল। দেখা হবে ঐ ব্যক্তির ভোট লড়া ছাড়াও অন্যান্য রাজনৈতিক ব্যুৎপত্তিগুলি রয়েছে কিনা।

    তৃণমূল নেত্রী সাফ বুঝিয়ে দিয়েছেন মুকুল রায়কে তিনি দলের নিয়েছেন আগের ভূমিকা পালনের জন্যই। অর্থাৎ সর্বভারতীয় রাজনীতিতে মুকুল রায়ের গুরুত্বকে বুঝেই তাকে কাজে লাগাবে তৃণমূল। ফলে  দায়িত্ব যখন সাম্রাজ্যবিস্তারের,  বাংলা নয়, ভোটের আগে ত্রিপুরায় যে মুকুল ঘাঁই মারবেন তো প্রায় নিশ্চিত। এখন সুদীপ রায় বর্মনেদের দলবদল শুরু হয়ে গেলে বুঝতে হবে কাজ শুরু করে দিয়েছে মুকুল-ম্যাজিক।

    Published by:Arka Deb
    First published: