রাজ্যে বিনিয়োগের ঢল, জটিলতা শেষে রাজ্যে আসছে ইনফোসিস

দীর্ঘ জটিলতা কাটিয়ে রাজ্যে আসছে ইনফোসিস? সেই সম্ভাবনা অনেকটাই উজ্জ্বল। রাজারহাটে তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্রের জন্য জমির বাকি টাকা মিটিয়ে দিয়েছে ইনফোসিস।

দীর্ঘ জটিলতা কাটিয়ে রাজ্যে আসছে ইনফোসিস? সেই সম্ভাবনা অনেকটাই উজ্জ্বল। রাজারহাটে তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্রের জন্য জমির বাকি টাকা মিটিয়ে দিয়েছে ইনফোসিস।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: দীর্ঘ জটিলতা কাটিয়ে রাজ্যে আসছে ইনফোসিস? সেই সম্ভাবনা অনেকটাই উজ্জ্বল। রাজারহাটে তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্রের জন্য জমির বাকি টাকা মিটিয়ে দিয়েছে ইনফোসিস। শনিবার বিধানসভায় ঘোষণা নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের। প্রায় ৭ বছর পর জমির টাকা মেটানোতেই উজ্জ্বল ইনফোসিসের বিনিয়োগ সম্ভাবনা। টিসিএস, আইবিএম, কগনিজান্টের মতো সংস্থাও বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে রাজ্যে।

    ২০০৯ সালে তৎকালিন বাম সরকারের থেকে রাজারহাটে ৫০ একর জমি কিনেছিল ইনফোসিস। জমির দাম ধার্য হয় ৭০ কোটি ৷ ২০০৯ সালে ২০ কোটি জমা দেয় ইনফোসিস ৷ ১৮ মাসের মধ্যে বাকি টাকা জমা দেওয়ার কথা ছিল ৷

    ১৮ মাসের বদলে দীর্ঘ ৯ বছরের অপেক্ষা। অবশেষে রাজ্যে বিনিয়োগে ইতিবাচক বার্তা ইনফোসিসের।

    রাজারহাটের জমিতে ক্যাম্পাস তৈরিতে স্পেশ্যাল ইকমনিক জোন বা এসইজেজডের তকমা নিয়েই তৈরি হয় জট। তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর নীতিগত কারণেই এসইজেডের প্রস্তাবে রাজি হয়নি রাজ্য। বদলে তার সমান সুবিধার প্রস্তাব দেওয়া হয় ইনফোসিসকে। সেই প্রস্তাব মেনেই ইনফোসিস রাজ্যে আসছে কিনা, তা অবশ্য এখনও স্পষ্ট নয়।

    তৃণমূল সরকার দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরই ইনফোসিসকে রাজ্যে আনতে নতুন করে উদ্যোগী হয় রাজ্য। বণিকসভার সম্মেলনের ফাঁকে তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয় ইনফোসিসের প্রতিনিধির। তারপরই জমির দাম মিটিয়ে দেওয়ায় ইনফোসিসের বিনিয়োগ নিয়ে অনেকটাই আশাবাদী  রাজ্য। আশায় বুক বাঁধছে তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রও।

    First published: