হোম /খবর /কলকাতা /
মোবাইল আসক্তিতে টেস্টে খারাপ ফল,উচ্চমাধ্যমিকে ৪৯৯ পেয়ে শীর্ষে কলকাতার স্রোতশ্রী

অতিরিক্ত মোবাইল আসক্তিতে টেস্টে খারাপ ফল, উচ্চমাধ্যমিকে ৪৯৯ পেয়ে শীর্ষে কলকাতার স্রোতশ্রী

একসময় ১২ ঘণ্টারও বেশি মোবাইলে কাটত সময় ৷ ভাল রেজাল্টের হাতছানিতে সেই নেশা ভুলে উচ্চমাধ্যমিকে শীর্ষ স্থানে এই মেধাবী ছাত্রী ৷

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা:  একসময় ১২ ঘণ্টারও বেশি মোবাইলে কাটত সময় ৷ বিদেশে থাকা বন্ধুর সঙ্গে কথা বলার আগ্রহে রাতের পর রাত না পড়ে না ঘুমিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ার চ্যাটবক্সেই  কেটেছে সময়৷ প্রভাব পড়ে পড়াশুনায় ৷ মোবাইল আসক্তিতে টেস্টে খারাপ রেজাল্ট আর সেটাই ছিল টার্নিং পয়েন্ট ৷ আর পাঁচজনের মতো আসক্তিতে নিজেকে দিকভ্রষ্ট হতে দেয়নি স্রোতশ্রী৷ মোবাইল দূরে সরিয়ে মাসের পর মাসের কঠোর পরিশ্রমে উচ্চমাধ্যমিকে একেবারে সর্বোচ্চ নম্বর শাখাওয়াত মেমোরিয়ালের এই ছাত্রীর ঝুলিতে ৷

করোনাকালে উচ্চমাধ্যমিকে রেকর্ডের ছড়াছড়ি ৷ লকডাউনের কারণে ১৫টি বিষয়ের পরীক্ষা বাতিল হলেও রেকর্ড নম্বর পরীক্ষার্থীদের ঝুলিতে ৷ উচ্চমাধ্যমিকে এবার কোনও মেধাতালিকা না প্রকাশিত হলেও জানা গিয়েছে ৪৯৯ সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে শীর্ষে রয়েছেন চার কৃতী ছাত্র-ছাত্রী ৷

এদের মধ্যেই একজন কলকাতার স্রোতশ্রী ৷ কৃতী এই ছাত্রী ভবিষ্যতে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হতে চায় ৷ ইংলিশ বাদে বাকি বিষয়ে ১০০-এ ১০০ স্রোতশ্রী ৷ তবে তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা না দিতে পারায় এই রেজাল্ট একেবারেই অপ্রত্যাশিত স্রোতশ্রীর কাছে ৷ প্রিয় বিষয় অঙ্কে ১০০ পাওয়ায় মূল্যায়নের নিয়ম অনুযায়ী বাকি তিন বিষয় যেগুলির পরীক্ষা বাতিল হয়, অর্থাৎ ফিজিক্স, কেমেস্ট্রি ও স্ট্যাটিসটিক্সে ১০০ পেয়েছে সে ৷

তবে এই রেজাল্ট নিয়ে খুশি হলেও মনের মধ্যে কোথাও খোঁচ রয়ে গিয়েছে ৷ স্রোতশ্রী বলে, ‘করোনা পরিস্থিতি না হলে পরীক্ষা দিয়ে প্রথম হতে পারলে বেশি ভাল লাগত ৷ এভাবে ১০০ পাওয়ার যুক্তি নেই ৷ পরীক্ষা হলে যে এই নম্বরই আসত তা কে বলতে পারে ৷ ’ তার মতে, ভবিষ্যতে ঝক্কি এড়াতে সংসদ যদি ২০২০ বর্ষের পরীক্ষার্থী করোনা ব্যাচ বলে উল্লেখ করে দেয় তাহলে ভাল হয় ৷

বরাবরই মেধাবী ছাত্রী সে ৷ মাধ্যমিকের পরে প্রথম ইকো-সায়েন্স নিয়েছিল সে। কিন্তু কিছুদিন পরেই বিষয় পরিবর্তন করতে চায় সে। স্কুল পরিবর্তনের কারণে একাদশে প্রথম দিকে দু’মাসের একটা গ্যাপ পড়েছিল স্রোতশ্রীর পড়াশুনায় ৷ সেসময় স্কুলে শিক্ষিকা ও প্রাইভেট টিউটরেররা যেভাবে তাঁকে সাহায্য করেছে তার জন্য কৃতজ্ঞ স্রোতশ্রী ৷

কৃতী এই ছাত্রী কোরিয়ান গানের ভক্ত ৷ পড়াশুনা ছাড়াও গান শুনতে তার ভালই লাগে ৷ তবে স্রোতশ্রী জানিয়েছে, টেস্টে ৮০ শতাংশ নম্বর পাওয়ার পর আরও ভাল নম্বর পাওয়ার লক্ষ্যে সবকিছু ভুলে পরীক্ষার আগে শুধুই পড়াশুনার দিকেই ছিল তার মন ৷

সবার আগে নির্ভুল রেজাল্ট দেখতে ছাত্রছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকরা লগ ইন করুন- www.news18bangla.com-এ ৷ এরপর রোল নম্বরের (Roll Number) পাশাপাশি জন্ম তারিখ (Date Of Birth ) দিন ৷ তারপর ক্লিক করুন চেক রেজাল্টে (Check Result) ৷ নেওয়া যাবে রেজাল্টের প্রিন্টআউটও ৷

৩১ জুলাই বেলা ২ টো থেকে ৫২টি বিতরণ কেন্দ্র থেকে পাওয়া যাবে মার্কশিট ৷ পরে তা স্কুল থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন অভিভাবক ও পড়ুয়ারা ৷

Eeron Roy Burman

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: HS Result 2020, HS Topper