Home /News /kolkata /
কাটল জট, প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের অনুমতিতে এসপ্ল্যানেডে তৈরি হবে নতুন ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো স্টেশন

কাটল জট, প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের অনুমতিতে এসপ্ল্যানেডে তৈরি হবে নতুন ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো স্টেশন

আটকে ছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ছাড়পত্রের জন্যই ৷ বহুদিন টালবাহানার পর শেষমেশ মিলল অনুমতি ৷ বৃহস্পতিবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: আটকে ছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ছাড়পত্রের জন্যই ৷ বহুদিন টালবাহানার পর শেষমেশ মিলল অনুমতি ৷ বৃহস্পতিবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের পক্ষ থেকে রেলমন্ত্রককে জানিয়ে দেওয়া হল, এসপ্ল্যানেডে তৈরি হবে নতুন ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো স্টেশন ৷ সঙ্গে অনুমতি দেওয়া হল ট্রামলাইন সরানোরও ৷ ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর জংশন হিসেবে তৈরি করা হবে এসপ্ল্যানেডকে ৷

    ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো নিয়ে নানারকম জট লেগেই ছিল ৷ অগস্ট মাসের ২০ তারিখ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করে রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু জানিয়েছিলেন ৭৬৫ টাকা ইতিমধ্যেই অনুমোদন করেছে রেল মন্ত্রক ৷ বৈঠকে তিনি জানিয়েছিলেন, রেলের উন্নয়নে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করবে ৷ তিনি আশ্বাস দেন, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ২০১৮ সালের জুন মাসে চালু হবে বহু প্রতীক্ষিত ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো৷

    এমনকী, জোকা বিবাদিবাগ মেট্রো প্রকল্পের জট কাটাতে জুন মাসে কলকাতা পৌরনিগম এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করল রেল কর্তৃপক্ষ। বৈঠক শেষে মেট্রো জট বেশ কিছুটা কাটানো সম্ভব হয়েছে বলে জানান কলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়।

    জোকা বিবাদিবাগ মেট্রো প্রকল্পের ক্ষেত্রে মূলত দু’টি সমস্যা দেখা দিয়েছিল। প্রথমত, মেট্রো রেলের ডিপোর জন্য জমি অধিগ্রহণের সমস্যা। এবং দ্বিতীয়ত বেহালা বাজার এবং মাঝেরহাটে বেশকিছু হকার থাকায় সমস্যা রয়েছে।

    অন্যদিকে, চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে গঙ্গার নীচ দিয়ে মেট্রো চলাচলের জন্য সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ শুরু হয়েছে ৷ হাওড়া ময়দান থেকে মাটিতে ঢুকবে অতিকায় যন্ত্র ৷ নদীর নীচ দিয়ে গিয়ে উঠবে মহাকরণের কাছে ৷ লন্ডনের টিউবরেলের ধাঁচে সুড়ঙ্গপথ তৈরিতে সময় লাগবে দেড় বছর ৷

    লন্ডনের টেমস নদীর নীচ দিয়ে গিয়েছে টিউবরেল ৷ সেভাবেই গঙ্গার নীচ দিয়ে যাবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো ৷ জমি জট ও রুট নিয়ে টানাপোড়েনে গত চার বছর ধরে নদীগর্ভে সুড়ঙ্গ তৈরির কাজ থমকে ছিল। অবশেষে শুক্রবার সেই কাজের সূচনা করবেন রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু ৷ হাওড়া ময়দান থেকে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত বিস্তৃত হচ্ছে মেট্রোর নতুন রুট ৷ নতুন রুটে মেট্রো লাইনকে গঙ্গা পেরোতে হবে ৷

    হাওড়া ময়দানে সুড়ঙ্গ খোঁড়া শুরু করবে টানেল বোরিং মেশিন ৷ গঙ্গার নীচে সুড়ঙ্গের দৈর্ঘ্য হবে ৫২০ মিটার যা টেমসের সুড়ঙ্গের থেকেও বড় ৷ মহাকরণের কাছে গিয়ে টানেল বোরিং মেশিন সুড়ঙ্গ খোঁড়ার শেষ হবে ৷ মাটি খোঁড়ার সঙ্গে সঙ্গে কংক্রিটের সুড়ঙ্গ তৈরির কাজও চলবে ৷

    হাওড়া ময়দান থেকে শিয়ালদহ পর্যন্ত দ্বিতীয় পর্যায়ে পরিষেবা শুরুর হবে ২০১৯ সাল নাগাদ ৷ সুড়ঙ্গের কাজ শেষ করতে সময় লাগবে প্রায় বছর দেড়েক সময় লাগবে ৷ নদীর জলতলের সঙ্গে তার নীচের ভূমিতলের দূরত্ব ১৩ মিটার ৷ সেই ভূমিতলের ১৩ মিটার নীচ দিয়ে সুড়ঙ্গ খোঁড়া হবে ৷ জলতলের সঙ্গে সুড়ঙ্গের দূরত্ব থাকবে ২৬ মিটার ৷ দূরত্ব পর্যাপ্ত হলেও পণ্যবাহী বার্জ চলাচলে সতর্কতা নেওয়া হবে। স্বচ্ছ না হলেও সুড়ঙ্গের সাজসজ্জা হবে আকর্ষণীয়। রেলের দাবি, লন্ডনের টিউবরেলের থেকে আর্কষণীয় হবে এই রুটে মেট্রো যাত্রা ৷

    First published:

    Tags: East-West Metro, Esplanade, Kolkata metro, Ministry of Defence

    পরবর্তী খবর