Home /News /kolkata /
উৎসবের নিরাপত্তা নিয়ে জরুরি বৈঠক নবান্নে

উৎসবের নিরাপত্তা নিয়ে জরুরি বৈঠক নবান্নে

Nabanna

Nabanna

উৎসবের নিরাপত্তা নিয়ে জরুরি বৈঠক নবান্নে

  • Share this:

     #কলকাতা: উৎসবের নিরাপত্তা নিয়ে শুক্রবার দুপুরে নবান্নে জরুরি বৈঠক। মুখ্যমন্ত্রীর ডাকে এই বৈঠকে পুজো, বিসর্জনের নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা হবে। মহরমের দিন যাতে সুষ্ঠুভাবে বিসর্জন হয়, তা নিশ্চিত করতেই বৈঠক। থাকছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, ডিজি, পুলিশ কমিশনার, উচ্চপদস্থ পুলিশকর্তারা। এছাড়া কয়েকটি দফতরের মন্ত্রীরাও থাকবেন।

    হাইকোর্টের নির্দেশ মেনেই দুর্গাপুজোর বিসর্জন করতে প্রস্তুতি শুরু হল। রাজ্য প্রশাসন সূত্রে খবর, বিসর্জন নিয়ে কোনও সমস্যা হবে না। সমন্বয় বৈঠকেই সবকিছু ঠিক করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশ মেনেই কাজ হবে। হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী মহরমের দিনও দুর্গাপুজোর বিসর্জন হবে। বিসর্জন ও তাজিয়ার পথ আলাদা করে দেওয়া হয়েছে। অনেক জায়গায় মহরমের শোকযাত্রা ও বিসর্জনের শোভাযাত্রা মুখোমুখি হয়ে যেতে পারে।

    দেশপ্রাণ শাসমল রোড, পার্ক সার্কাস, রাজাবাজার, চিৎপুর, হেস্টিংস, প্রিন্সেপঘাটে মহরমের তাজিয়া আর বিসর্জন শোভাযাত্রা একইসঙ্গে হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় নিরাপত্তায় অতিরিক্ত জোর নেওয়া হবে। আগামীকাল নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে বৈঠক করবেন পুলিশ ও প্রশাসনের শীর্ষকর্তারা। সেই বৈঠকে নিরাপত্তার বাড়তি বন্দোবস্ত নিয়ে আলোচনা হবে।

    কোন পথে মহরমের তাজিয়া? ------------------------------ মহরমের তাজিয়া বেরোবে, রাজাবাজার, মৌলালি, মল্লিকবাজার, পার্ক সার্কাস সেভেন পয়েন্ট, খিদিরপুর, পাহাড়পুর রোড, মোমিনপুর, লেনিন সরণি, দেশপ্রাণ শাসমল রোড থেকে। পদ্মপুকুর রোড মসজিদ থেকে বেরিয়ে পার্ক সার্কাস সেভেন পয়েন্টে হয়ে তাজিয়া যাবে গোবরা কবরস্থান। চিতপুর নাখোদা মসজিদ থেকে মহরমের তাজিয়া বেরিয়ে স্থানীয় কবরস্থানেই যাবে। চারু মার্কেটের টিপু সুলতান মসজিদ থেকে প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোডের কবরস্থান পর্যন্ত তাজিয়া যাবে। এছাড়াও মোমিনপুর ও খিদিরপুর থেকে কারবালা পর্যন্ত মহরমের তাজিয়া যাবে। দেশপ্রাণ শাসমল রোড, পার্ক সার্কাস, চিতপুরে মহরমের তাজিয়া আর দুর্গাপুজোর বিসর্জন একইসঙ্গে হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় নিরাপত্তায় অতিরিক্ত জোর নেওয়া হবে।​

    প্রতিমা বিসর্জন মামলায় বৃহস্পতিবারই রায়দান করেছে কলকাতা হাইকোর্ট ৷ মহরমের দিনও দুর্গাপুজোর বিসর্জন হবে। তবে থাকছে কিছু বিধিনিষেধ। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় তাজিয়া ও বিসর্জনের আলাদা রুট করতে হবে। রাত বারোটার মধ্যে পৌঁছতে হবে ঘাটে। বিসর্জন মামলায় অন্তর্বর্তী নির্দেশ দেয় কলকতা হাইকোর্ট। তিন সপ্তাহের মধ্যে হলফনামা দিতে হবে রাজ্যেকে। পাঁচ সপ্তাহ পর ফের মামলার শুনানি।

    বিসর্জন মামলায় খারিজ হল না রাজ্যের বিজ্ঞপ্তি। মহরমের দিন দুর্গাপুজোর বিসর্জন হলেও, থাকছে কিছু বিধিনিষেধ। বৃহস্পতিবার বিসর্জন মামলায় অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি করল ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

    First published:

    Tags: Durga Puja, Durga Puja 2017, Immersion, Immersion Procession

    পরবর্তী খবর