• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • করোনা জয় করলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি, ২১ দিন পর ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে

করোনা জয় করলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি, ২১ দিন পর ছাড়া পেলেন হাসপাতাল থেকে

তবে আপাতত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন পর্ষদ সভাপতিকে চিকিৎসকরা।

তবে আপাতত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন পর্ষদ সভাপতিকে চিকিৎসকরা।

তবে আপাতত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন পর্ষদ সভাপতিকে চিকিৎসকরা।

  • Share this:

দীর্ঘ ২১ দিন পর করোনাকে জয় করে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। শনিবার দুপুর নাগাদ সল্টলেকের এক বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ছাড়া হয় পর্ষদ সভাপতিকে। গত মাসের শেষ সপ্তাহে করোনাতে আক্রান্ত হয়ে সল্টলেকের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। মাঝখানে শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয় পর্ষদের সভাপতির। অবশেষে চলতি সপ্তাহেই পর্ষদ সভাপতি রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেই হাসপাতাল থেকে ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।

তবে আপাতত বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন পর্ষদ সভাপতিকে চিকিৎসকরা। প্রসঙ্গত, গত মাসেই হার্টের কিছু সমস্যার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতিকে। তারপর অবশ্য পর্ষদ সভাপতিকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তার কয়েক দিনের মধ্যেই করোনাতে আক্রান্ত হন পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। তবে আপাতত বাড়ির বদলে সল্টলেকের এক সরকারি আবাসনেই কিছুদিন বিশ্রাম নেবেন পর্ষদ সভাপতি। সূত্রের খবর, সব ঠিকঠাক থাকলে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকেই কাজে যোগ দিতে পারেন পর্ষদ সভাপতি।

রাজ্যজুড়ে এখনও পর্যন্ত স্কুল বন্ধ হয়েছে। সিলেবাস কমানো হবে বলে স্থির হয়েছিল। বিশেষত, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে সিলেবাস কমানোর একপ্রকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর। তা নিয়ে ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করেছে রাজ্য সিলেবাস কমিটিও। আগামী বছরের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাকে মাথায় রেখে কীভাবে সিলেবাস কমানো যায় তা নিয়ে জোর প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই সিলেবাস কমিয়েছে সিবিএসই ও আইসিএসই বোর্ড। কিন্তু পর্ষদ সভাপতির হঠাৎ শারীরিক অসুস্থতার জেরে মাধ্যমিকের সিলেবাস কমানোর কাজ অনেকটাই পিছিয়ে যায়। বিশেষত মাধ্যমিকের কোন কোন বিষয়ে কোন কোন সিলেবাস কমানো দরকার উচ্চশিক্ষার কথা মাথায় রেখে কোন কোন অধ্যায়কে বাদ দেওয়া উচিত তা নিয়ে পর্ষদ সভাপতি মতামত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে সিলেবাস কমিটি। ফলত পর্ষদ সভাপতির সুস্থ হয়ে আসা পর্যন্তই কিছুটা অপেক্ষা করতে চাইছিল সিলেবাস কমিটি।

সূত্রের খবর, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় কাজে যোগ দেওয়ার পরপরই মাধ্যমিক স্তরে কতটা সিলেবাস অনুযায়ী সেই বিষয় মতামত নিতে পারেন সিলেবাস কমিটির চেয়ারম্যান তথা সদস্যরা। এক্ষেত্রে সিলেবাস কমানোর বিকল্প হিসেবে শিক্ষাবর্ষ পিছনে যায় নাকি সে বিষয়েও ভাবনাচিন্তা শুরু হলেও পর্ষদ সভাপতি অসুস্থ তার জেরে সেই প্রক্রিয়া অনেকটাই পিছিয়ে গেছে। ফলত পর্ষদ সভাপতি কাজে যোগ দেওয়ার পর সেই বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা শুরু হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। আপাতত চিকিৎসকরা বিশ্রাম নিতে বললেও জানা গিয়েছে, আগামী সপ্তাহ থেকেই বাড়ি থেকে বসেই কিছুটা কাজ শুরু করে দেবেন পর্ষদ সভাপতি।

SOMRAJ BANDOPADHYAY

Published by:Arindam Gupta
First published: