Home /News /kolkata /
Kolkata News : দার্জিলিং এর মতো হোমস্টে এবার খাস কলকাতায়! শহরকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগ রাজ্য পর্যটন দফতরের

Kolkata News : দার্জিলিং এর মতো হোমস্টে এবার খাস কলকাতায়! শহরকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগ রাজ্য পর্যটন দফতরের

দার্জিলিং এর মতো হোমস্টে এবার খাস কলকাতায়! শহরকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগ রাজ্য পর্যটন দফতরের

দার্জিলিং এর মতো হোমস্টে এবার খাস কলকাতায়! শহরকে ঢেলে সাজাতে উদ্যোগ রাজ্য পর্যটন দফতরের

Kolkata News : সম্প্রতি রাজ্য পর্যটন দফতর এবং কলকাতা পুরসভার সমন্বয়কারী হিসেবে এক নতুন পদ তৈরি করা হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: দার্জিলিং-এর হোমস্টে কনসেপ্ট এবার কলকাতা শহরে। নিজের ঘরে থাকার অনুভূতি! তাও কলকাতা শহরে? ভাবছেন, এজন্য বাড়তি কড়ি গুনতে হবে? একদমই ভুল ভাবছেন! পকেট ফ্রেন্ডলি থাকার জায়গা গড়তে কলকাতা পৌরসভা ও রাজ্য পর্যটন দফতরের নতুন ভাবনা কলকাতায় হোম স্টে।

‌এবার কলকাতাতেও হোমস্টে ‘কনসেপ্ট’ সরকারিভাবে চালুর ভাবনা সরকারের। সম্প্রতি রাজ্য পর্যটন দফতর এবং কলকাতা পুরসভার সমন্বয়কারী হিসেবে এক নতুন পদ তৈরি করা হয়েছে। সেখানে পুরসভার এক গুরুত্বপূর্ণ আধিকারিককে নোডাল অফিসারের দায়িত্বে বসানো হয়েছে।

বিদেশ থেকে বিশেষ করে বাংলাদেশ থেকে চিকিৎসা কিংবা পড়াশোনা, এমনকী বেড়াতেও বশহরে বহু মানুষ আসেন। দেশের বিভিন্ন রাজ্য তো বটেই পড়শি দেশ বা প্রথম বিশ্বের নানা জায়গা থেকেও পর্যটকরা আসেন কলকাতায়। শহরে বহু ব্যক্তিগত মালিকানার বাড়ি রয়েছে। সেগুলিকে হোটেল বা পিজি হিসেবে ভাড়া দিয়ে আয় করেন বাড়ির মালিকরা।

এই বিক্ষিপ্তভাবে বিভিন্ন বাড়িতে বিদেশিরা থাকলেও তার তথ্য থাকে না সরকার বা পুরসভা কারও হাতে। অনেক সময়ে অপরাধ হলেও সহজে আততায়ীর খোঁজও মেলে না। তাই শহরের আনাচে-কানাচে এই ধরনের পিজি এবং বাড়ি ভাড়া দেওয়ার পুরো ব্যবস্থাটিকে একটি নির্দিষ্ট নিয়মে বাঁধতে চাইছে রাজ্য। এর ফলে যে কোনও সময়ে বাইপাস থেকে শুরু করে কলকাতার যেকোনও জায়গায় কোথায় কে আছেন তার তথ্য স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ও পুরসভার কাছে সহজেই পাওয়া যাবে।

পুর সম্পত্তি কর মূল্যায়ন ও রাজস্ব আদায় বিভাগের ভাস্কর ভট্টাচার্যকে এই নোডাল অফিসার করা হয়েছে। শহরে এই ধরনের বাড়িগুলি চিহ্নিত করা হবে, যাঁরা ইতিমধ্যেই বাড়ি-ভাড়ার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। জেলার মতো এখানেও তাঁদের অতিথি অভ্যর্থনার প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। আরও কীভাবে সেই হোমস্টে আকর্ষণীয় করে তোলা যায়, তার পরিকল্পনা করা হবে।

কলকাতা শহরে হোমস্টের এই ধারণা নতুন নয়। বিশেষ করে ইএম বাইপাস সংলগ্ন কয়েকটি বড় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য বাইরে থেকে বহু রোগী আসেন। তাঁরা আসেন উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিভিন্ন রাজ্য, এমনকী বাংলাদেশ সহ একাধিক দেশ থেকে। রোগীর আত্মীয় পরিজনেরা ওই চত্বরে বিভিন্ন বাড়ি হোটেল বা পিজি হিসেবে ভাড়া নিয়ে থাকেন।

আরও পড়ুন- 'ও তখন ছোট্ট, খুব সৃজনশীল', সৌরভের প্রশংসায় পঞ্চমুখ মহারাজ

সরকার এবং কলকাতা পৌরসভা এই ব্যবস্থার পরিবর্তন চাইছে। একদিকে সরকারের নিয়মিত নজরদারি বজায় থাকবে। অন্যদিকে বিদেশ থেকে আসা মানুষদের তথ্য থাকবে সরকারের কাছে। চাকরি কিংবা পড়াশোনার জন্য বাইরে থেকে আসা অনেকেই শহরে এমনভাবে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকেন। এই সমস্ত তথ্য একটি সরকারি সিস্টেমে এলে সকলেই উপকৃত হবেন। যে কোনও সংকট মুহূর্তে সরকারি সাহায্যও পাওয়া যাবে খুব সহজে।

আরও পড়ুন- অনলাইন শপিং করতে গিয়ে প্রায় লক্ষ টাকা খোয়ালেন গৃহবধূ! বড় প্রতারণার ফাঁদ

শহরের কোন কোন স্থানে এ ধরনের হোমস্টে মিলবে, তার তথ্য থাকবে পর্যটন দফতর এবং পুরসভার ওয়েবসাইটে। বিভিন্ন নিয়ম নীতি মেনে যাঁরা এই ধরনের হোমস্টে চালাবেন, তাঁদের জন্য উৎসাহ ভাতারও ব্যবস্থা রাখছে সরকার। সূত্রের খবর, পর্যটন ব্যবস্থা কে নীচু তলা থেকে ঢেলে সাজাতেই কলকাতা পৌরসভা ও রাজ্য পর্যটন দফতরের এই উদ্যোগ।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Kolkata

পরবর্তী খবর