Home /News /kolkata /
Kolkata Metro: বর্ষবরণের উৎসব, সকাল থেকেই কড়াকড়ি প্রতি মেট্রো স্টেশনে

Kolkata Metro: বর্ষবরণের উৎসব, সকাল থেকেই কড়াকড়ি প্রতি মেট্রো স্টেশনে

২০২১ সালে ছিল বিধানসভা নির্বাচন৷ ফলে ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১-এ কলকাতা মেট্রোর বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য বাজেটে ৫০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত পেয়েছিল মেট্রো রেল৷ সেখানে এ বছর বরাদ্দ কমল৷ প্রতীকী ছবি৷

২০২১ সালে ছিল বিধানসভা নির্বাচন৷ ফলে ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১-এ কলকাতা মেট্রোর বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য বাজেটে ৫০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত পেয়েছিল মেট্রো রেল৷ সেখানে এ বছর বরাদ্দ কমল৷ প্রতীকী ছবি৷

মহিলা এবং শিশুদের নিরাপত্তাতেও রাখা হচ্ছে বিশেষ দল। এই দল সকাল ১১টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত মেট্রো স্টেশনের নজরদারি চালাবে (Kolkata Metro)।

  • Share this:

#কলকাতা: বর্ষবরণের (New Year 2022) রাতে কড়া নিরাপত্তা শহরের সব কটি মেট্রো স্টেশনে। বিশেষ নজরদারি থাকবে এসপ্ল্যানেড,পার্ক স্ট্রিট, ময়দান, রবীন্দ্র সদন স্টেশন জুড়ে (Kolkata Metro)। বড়দিনের ভিড়ের চেহারা দেখে আজকের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা থাকছে মেট্রো স্টেশনগুলিতে।

আজকের জন্য মেট্রো রেলের নিরাপত্তা আধিকারিকদের নিয়ে তৈরি করা হয়েছে ৫'টি কুইক রেসপন্স টিম। যে কোনও সমস্যার মোকাবিলায় ওই টিম পৌঁছে যাবে সবার আগে। এসপ্ল্যানেড, পার্ক স্ট্রিট, ময়দান স্টেশনেই এই কুইক রেসপন্স টিম মোতায়েন থাকবে। ভিড়ের মধ্যে কোনও বিপত্তি হলে রুখবে এই বিশেষ দল।

মহিলা এবং শিশুদের নিরাপত্তাতেও রাখা হচ্ছে বিশেষ দল। এই দল সকাল ১১টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত মেট্রো স্টেশনের নজরদারি চালাবে। অন্যদিকে আরপিএফের সশস্ত্র বাহিনীর দু'টি দল নিরাপত্তার বিশেষ দায়িত্বে থাকবে। এক মহিলা সহ চার সশস্ত্র কনস্টেবল সকাল থেকে পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে থাকবে।

আরও পড়ুন:  নিরাপত্তায় মোড়া কলকাতা, বছরের শেষ দিন শহরে ৩ হাজার পুলিশ, ১ জানুয়ারিও কড়াকড়ি

ভিড় সামলাতে ইতিমধ্যেই আজ সকাল থেকে পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে খোলা হচ্ছে চারটি অতিরিক্ত টিকিট কাউন্টার। ২৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যা থেকে ১লা জানুয়ারি পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ভিড় হয় কলকাতার পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে। আলোর মালায় সাজানো পার্ক স্ট্রিটের রাস্তা, অ্যালেন পার্কে হুল্লোড় সবটাই চলে। ফলে পার্ক স্ট্রিট মেট্রো স্টেশনে ভিড় হয় সবচেয়ে বেশি। তাই এই অতিরিক্ত ব্যবস্থা।  উৎসবের মরসুমে মেট্রো স্টেশনের মধ্যে এসপ্ল্যানেড, ময়দান, পার্ক স্ট্রিট, রবীন্দ্র সদনে ভিড় হয়। ফলে এই সব স্টেশনে, নিরাপত্তার কড়াকড়ি করা হচ্ছে৷

শুধু পার্ক স্ট্রিটের জন্যে ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্যে চার সদস্যের একটি সশস্ত্র দলকে রাখা থাকছে। শনিবার থেকে বাড়তি ট্রেন চলছে, এতদিন শনিবার চালানো হত ২২০টি ট্রেন। তা বাড়িয়ে ২৩০টি করা হতে চলেছে। ১১৫ জোড়া আপ এবং ১১৫ জোড়া ডাউন ট্রেন চালানো হবে। তবে রবিবারে মেট্রোর সূচিতে কোনও বদল হয়নি। সকাল এবং সন্ধেবেলায় যখন সবচেয়ে বেশি ভিড় থাকে, তখন ৭ মিনিট অন্তর ট্রেন চলবে।

দমদম থেকে দক্ষিণেশ্বর এবং কবি সুভাষ থেকে দক্ষিণেশ্বরের ট্রেন পাওয়া যাবে সকাল ৭টা থেকে। সেই সূচিতেো কোনও বদল করা হয়নি। সোমবার থেকে শুক্রবার এখন চলে ২৭২টি ট্রেন। তা বাড়িয়ে করা হচ্ছে ২৭৬টি। এই ব্যবস্থা চালু হয়েছে ২৭ ডিসেম্বর থেকে। কলকাতা মেট্রো সোম-শুক্রবার অতিরিক্ত ৪টি ট্রেন চালাবে।

আরও পড়ুন: ২৫ ডিসেম্বরের নিয়মে বদল, বর্ষশেষে 'আলাদা' হবে পার্ক স্ট্রিট! না জানলে পস্তাবেন...

২৭৬টি ট্রেনের মধ্যে ১৭৩টি (৮৬টি আপ এবং ৮৭টি ডাউন) কবি সুভাষ এবং দক্ষিণেশ্বরের মধ্যে চলাচল করবে। সকাল-সন্ধের ব্যস্ত সময়ে ৫ মিনিট অন্তর ট্রেন পাওয়া যাবে।প্রথম এবং শেষ ট্রেনের সময় একই থাকছে। সেখানে কোনও বদল করা হয়নি। অর্থাৎ দমদম থেকে দক্ষিণেশ্বর এবং কবি সুভাষ থেকে দক্ষিণেশ্বর, দমদম থেকে কবি সুভাষ এবং দক্ষিণেশ্বর থেকে কবি সুভাষের ট্রেন পাওয়া যাবে সকাল ৭টা থেকে।

অন্যদিকে, শেষ ট্রেনের সময়ও একই থাকছে। দক্ষিণেশ্বর থেকে কবি সুভাষগামী শেষ ট্রেন ছাড়বে রাত ৯টা ১৮ মিনিটে। দমদম থেকে কবি সুভাষ এবং দক্ষিণেশ্বর থেকে কবি সুভাষের ট্রেন সাড়ে ৯টা থেকেই ছাড়বে। ইস্ট-ওয়েস্টে রবিবারের পরিষেবায় কোনও বদল আসছে না। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোয় ট্রেনের সময়সূচি একই থাকছে। মেট্রো যাত্রীদের কাছে কর্তৃপক্ষ আবেদন করেছেন, করোনা-বিধি মেনে চলুন। মাস্ক না পরলে মেট্রোয় চড়তে দেওয়া হবে না। এ নিয়ে লাগাতার প্রচার করছে মেট্রো।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Kolkata metro