৮ জানুয়ারি ধর্মঘটে গন্ডগোলের আশঙ্কায় ভারত পেট্রোলিয়াম, পুলিশি নিরাপত্তার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

৮ জানুয়ারি ধর্মঘটে গন্ডগোলের আশঙ্কায় ভারত পেট্রোলিয়াম, পুলিশি নিরাপত্তার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের

বাম ও কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠনের ডাকা ৮ জানুয়ারি ধর্মঘট। সেই ধর্মঘট নিয়ে আতঙ্কিত ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেড

  • Share this:

ARNAB HAZRA

#কলকাতা: বাম ও কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠনের ডাকা ৮ জানুয়ারি ধর্মঘট। সেই ধর্মঘট নিয়ে আতঙ্কিত ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেড। ভারত পেট্রোলিয়ামের পূর্বাঞ্চলের সদরদফতর এবং প্লান্ট ইউনিটগুলিতে চূড়ান্ত গন্ডগোলের আশঙ্কা রাষ্ট্রায়ত্ব সংস্থাটির। কলকাতা হাইকোর্টে তাই ধর্মঘটকে বেআইনি ঘোষণার আবেদন রেখে মামলা করে বিপিসিএল। মঙ্গলবার মামলাটির শুনানি হয় বিচারপতি শেখর ববি শরাফের বেঞ্চে।

বিপিসিএলের আইনজীবী সুবীর সান্যাল আদালতকে জানান, ২০ডিসেম্বর শ্রমিকদের তরফে ধর্মঘটের নোটিশ দেওয়া হয়। যে নোটিশ চ্যালেঞ্জ করে ইতিমধ্যে ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রাইব্যুনালে আবেদন করেছে ভারত পেট্রোলিয়াম। লেবার কমিশনারের উপস্থিতিতে দুই পক্ষের আলোচনার পর ১৩ জানুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন নির্দিষ্ট হয়েছে। এই অবস্থায় ৮ জানুয়ারি ধর্মঘটে ভারত পেট্রোলিয়াম-এর পরিষেবা ব্যাপকহারে ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে । প্লান্টে ঢোকার মুখে শ্রমিকদের জোর করে আটকানোর আশঙ্কা থাকছে।

শ্রমিকদের তরফে আদালতে জানানো হয়, হাইকোর্ট ধর্মঘটকে বেআইনি ঘোষণা করতে পারে না। তবে দুই পক্ষের সওয়াল-জবাবের পর বিচারপতি শেখর ববি শরাফ পুলিশি নিরাপত্তার নির্দেশ দেন। ভারত পেট্রোলিয়াম-এর পূর্বাঞ্চলীয় সদর দফতর এবং সব কার্য্যালয় ও প্লান্টগুলির আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশকে পদক্ষেপ করতে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। পাশাপাশি ধর্মঘটের দিন কাজে যোগ দিতে ইচ্ছুক শ্রমিকদের জোর করে আটকানো হলে পুলিশকে পদক্ষেপ করার নির্দেশও জারি হয়েছে।

অন্যদিকে, আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকারের জনস্বার্থ মামলায় ৮ জানুয়ারি ধর্মঘটের দিন রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রাজ্যকে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিয়েছে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। জোর করে ধর্মঘট করার চেষ্টা হলে রাজ্যকে পদক্ষেপ করার নির্দেশ জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। ধর্মঘট ও তার প্রভাবে ক্ষয়ক্ষতির হিসাব সংক্রান্ত রিপোর্টও রাজ্যকে পেশ করতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

First published: 10:46:00 PM Jan 07, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर