‘মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপোর ১০০ কোটির বাংলো, পরিবারের আয়ের উৎস কী?’ মমতার উদ্দেশ্যে কটাক্ষ বিজয়বর্গীর

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের আয়ের উৎসে নজর বিজেপির ৷

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 04, 2017 06:53 PM IST
‘মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপোর ১০০ কোটির বাংলো, পরিবারের আয়ের উৎস কী?’ মমতার উদ্দেশ্যে কটাক্ষ বিজয়বর্গীর
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 04, 2017 06:53 PM IST

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারের আয়ের উৎসে নজর বিজেপির ৷ কলকাতায় এসে এমন মন্তব্যই করলেন বিজেপি শীর্ষ নেতা কৈলাস বিজয়বর্গী ৷ সারদা , নারদ কাণ্ডে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা ছাড়াও এবার মমতার পরিবারকে আক্রমণের পথে হাঁটলেন কৈলাস বিজয়বর্গী ৷ মুখ্যমন্ত্রীর গ্রেফতারির চ্যালেঞ্জের উত্তরেও বিজয়বর্গীর সাফ জবাব দুর্নীতি করলে সিবিআই গ্রেফতার করবেই ৷

মালদহের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেখানে বিজয়বর্গীর মন্তব্যকেই হাতিয়ার করে গেরুয়া শিবিরের প্রতি আক্রমণ শানাচ্ছেন, তখন কলকাতাতে রাজ্য সফরে আসা বিজেপি শীর্ষ নেতা বিজয়বর্গীও মমতা সমালোচনায় সরব ৷ এদিন সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের আয় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কৈলাস ৷ বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো ১০০ কোটি দিয়ে বাংলো বানাচ্ছেন ৷ তাঁর পরিবারের আয়ের উৎস কী? আমাদের কাছে সব তথ্য আছে ৷ সময়মতো সেই তথ্য প্রকাশ করব ৷ আমি এখন মুকুল, শুভেন্দুকে নিয়ে ভাবছি না ৷ মুখ্যমন্ত্রীর পরিবারের আয়ের উৎসের উপর আমার নজর আছে ৷’

শীর্ষ বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়বর্গীর বক্তব্যকে আশ্রয় করে এদিন মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন তোলেন, ‘সিবিআই-ইডি দিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে ৷ বিজেপির বিরুদ্ধে কথা বললে ভয় দেখাচ্ছে ৷ ‘বিজেপির নেতা বলছেন প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ, তাই জেলে সুদীপ, তাপস ৷ উনি কি সিবিআই অধিকর্তা? প্রধানমন্ত্রী কি এটা ওনাকে শিখিয়েছেন?’ মুখ্যমন্ত্রীর এই কটাক্ষের উত্তরে কৈলাস বিজয়বর্গী বলেন, ‘সিপিএম আমলে চিটফান্ড শুরু হয়েছিল ৷ তৃণমূলের আমলে একলাফে তা অনেকটা বেড়েছে ৷ শ্যামল সেন কমিশনের তদন্ত প্রকাশ্যে আনা হোক ৷ আমার অভিযোগ এর মধ্যেও দুর্নীতি আছে ৷ BJP কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার আগেই CBI তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট ৷ এর মধ্যে আমি কোথা থেকে আসছি ৷’

আরও পড়ুন,

একজন তৃণমূলকে গ্রেফতার করলে বিজেপির ১ লক্ষ লোক জেলে ঢুকবে, পাল্টা চ্যালেঞ্জ মমতার

Loading...

এতেই শেষ নয়, গ্রেফতারি নিয়ে মমতার চ্যালেঞ্জের জবাবের উত্তরও সাংবাদিক বৈঠকে দেন কৈলাস বিজয়বর্গী ৷ তিনি বলেন, ‘নারদকাণ্ডে তৃণমূলের কেউ গ্রেফতার হলে ,বিজেপি-র ১ লক্ষ মানুষকে গ্রেফতার করব ৷ একথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ এই দেশে কি সংবিধান নেই? নাকি ওঁর নিয়মই চলবে ৷ আমায় গ্রেফতার করতে পারে, কিন্তু যারা গরিবের টাকা মারবে ৷ সিবিআই তাদের গ্রেফতার করবেই ৷’

তৃণমূল রাজনীতির তীব্র সমালোচনা করে কৈলাস বিজয়বর্গীর মন্তব্য, ‘তোষণের রাজনীতি করে তৃণমূল ৷ বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষকে বিশেষ সুবিধা দেয় অথচ রাজ্যে আদিবাসীরা উপেক্ষিত ৷ এখানে আদিবাসীরা সুরক্ষিত নয় ৷’

মাহালি দম্পতির তৃণমূলে যোগ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে বাকি বিজেপি নেতার মতো বিজয়বর্গীরও ক্ষোভ উগরে দেন ৷ শুধু তৃণমূল নয় তার নিশানায় পুলিশও ৷ বিজয়বর্গীর অভিযোগ, ‘পুলিশই মাহালি দম্পতিকে ভয় দেখিয়েছে ৷ তৃণমূলে যোগ না দিলে মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখানো হয়েছে ৷ এফআইআর করতে দেয়নি পুলিশ ৷’

First published: 06:36:44 PM May 04, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर