• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • IN WB ASSEMBLY ELECTION HABRA BJP CANDIDATE RAHUL SINHA FILES PETITION IN CALCUTTA HIGH COURT CHALLENGING THE RESULTS WHERE HE GOT DEFEATED BY TMC CANDIDATE JYOTI PRIYA MALLICK SB

Rahul Sinha: হাবড়ার হার মানতে পারছেন না, 'রেকর্ড' বদলাতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ রাহুল সিনহা!

রাহুলের আবেদন

Rahul Sinha: আদালতের কাছে হাবড়ার বিজেপি প্রার্থী রাহুল সিনহার আর্জি, ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে। তাই পুনর্গণনা করা হোক হাবড়া কেন্দ্রের।

  • Share this:

    #কলকাতা: স্বপ্ন ছিল ২০০ আসনের। থেমে যেতে হয়েছে ৭৭-এ। বস্তুত বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে এবার ভরাডুবি হয়েছে বিজেপির। বিপুল আসন নিয়ে ফের ক্ষমতায় এসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তিনি হেরেছেন নন্দীগ্রাম থেকে। তারপর নন্দীগ্রামের পুনর্গণনার আর্জি নিয়ে দ্বারস্থ হয়েছেন হাইকোর্টে। আর তারপর থেকেই তৃণমূল ও বিজেপির একাধিক কেন্দ্রের পরাজিত প্রার্থীরা পুনর্গণনার আর্জিতে আদালতের আঙিনায় পৌঁছেছেন। দেরিতে হলেও এবার সেই পথে হাঁটলেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথা এবারের নির্বাচনে হাবড়া কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী রাহুল সিনহা। আদালতের কাছে তাঁর আর্জি, ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে। তাই পুনর্গণনা করা হোক হাবড়া কেন্দ্রের।

    এর আগেও নানা সময়ে নানা ভোটে দাঁড়িয়েছেন রাহুল সিনহা। কিন্তু জিততে পারেননি একবারও। এবার হাবড়া থেকে তাঁকে প্রার্থী করা হয়েছিল। আর প্রবল গেরুয়া হাওয়ায় ভর করে তিনি এবার রেকর্ড বদলাতে পারবেন বলেই দাবি করছিলেন। কিন্তু তৃণমূলের হেভিওয়েট প্রার্থী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কাছে ৩ হাজার ৮৪১ ভোটে পরাজিত হন তিনি। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এখন রাজ্যের বনমন্ত্রী।

    সেই ক্ষত কিছুতেই মানতে পারছেন না রাহুল। তাই কলকাতা হাইকোর্টে বিজেপির পরাজিত প্রার্থীর দাবি, পুনর্গণনা করা হোক হাবড়া কেন্দ্রের। আগামী ৯ অগস্ট এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে। বিজেপির অন্য হেরে যাওয়া প্রার্থীদের মতোই রাহুল সিনহার অভিযোগ, ভোট গণনার দিন গরমিল করা হয়েছে। তাই পুনর্গণনা করা হোক। ভোটের প্রচারে রাহুল সিনহার বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ উঠেছিল। তবু রাহুল সিনহা দাবি করেছিলেন, তিনিই জয়ী হবেন। কিন্তু দেখা যায় হেরে গিয়েছেন তিনি। শেষমেশ এবার হাইকোর্টের দ্বারস্থ তিনি। যদিও ফল প্রকাশের এতদিন পরে কেন আবেদন করলেন তিনি, সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে রাজি হনি রাহুল সিনহা।

    প্রসঙ্গত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ যাঁদের এই ধরনের মামলার শুনানি হয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে হাইকোর্টের তরফে নির্বাচন সংক্রান্ত নথি সংরক্ষণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইভিএম-ও সুরক্ষিত রাখতে বলা হয়েছে। রাহুল সিনহার ক্ষেত্রেও তা করা হয় কিনা, সেটাই এখন দেখার।

    Published by:Suman Biswas
    First published: