'আরও কঠিন কথা শুনতে হবে,' বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন দিলীপ ঘোষ

'আরও কঠিন কথা শুনতে হবে,' বক্তব্য রাখতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন দিলীপ ঘোষ
বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

ফের পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি হয়ে বক্তব্য রাখতে মঞ্চে উঠে কেঁদে ফেললেন দিলীপ ঘোষ৷ একই সঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্যে নিজের অবস্থানেই অনড় থাকলেন দিলীপ৷

  • Share this:

#কলকাতা: গুলি করে মারার হুমকিতে দিন দুয়েক আগেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের রোষের মুখে পড়েন৷ প্রকাশ্যে সমালোচনা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ তা সত্ত্বেও বাংলায় দিলীপ ঘোষের উপরেই আস্থা রাখল বিজেপি নেতৃত্ব৷ ফের পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি হয়ে বক্তব্য রাখতে মঞ্চে উঠে কেঁদে ফেললেন দিলীপ ঘোষ৷ একই সঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্যে নিজের অবস্থানেই অনড় থাকলেন দিলীপ৷

ন্যাশনাল লাইব্রেরিতে বিজেপি-র পুনর্নির্বাচিত রাজ্য সভাপতি বললেন, 'বিজেপির উপর প্রতিদিন আক্রমণ করা হচ্ছে৷ ২ হাজার বিজেপি কর্মী জেলে৷ খুন, আত্মহত্যা বলে চালাচ্ছে৷' এরপরেই নিহত কর্মীদের স্মৃতিতে আবেগে কেঁদে ফেলেন তিনি৷

দিন দুয়েক আগে দিলীপ ঘোষ একটি সভায় হুমকি দেন, 'উত্তরপ্রদেশ, অসমে যে ভাবে গুলি করে মারা হয়েছে দেশদ্রোহীদের, এখানে বিজেপি ক্ষমতায় এলে দেশদ্রোহীদের গুলি করে মারা হবে৷' তাঁর সেই মন্তব্যের পরেই প্রকাশ্যে সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় বলেন, 'অত্যন্ত দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য৷' এর আগে গরুর দুধে সোনা রয়েছে বলে মন্তব্য করেও দেশজুড়ে বিতর্ক ও রসিকতা তৈরি হয় বিজেপি রাজ্য সভাপতির কথায়৷

বিতর্কিত মন্তব্য প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার দিলীপ ঘোষ বলেন, 'আমার কথায় বিতর্ক হচ্ছে৷ আমি তাতে পরোয়া করি না৷ হতাশা থেকেই সমালোচনা হচ্ছে৷ আমাদের কথা শুনতে হবে৷ আমরা রাজ্যে এখন গুরুত্বপূর্ণ৷ এখন বিজেপির সদস্য ৯৮ লক্ষ৷ আরও কঠিন কথা শুনতে হবে৷ কঠিন কথা শোনার সহ্যশক্তি বাড়ান৷'

First published: 01:50:56 PM Jan 16, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर