• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • মৃত রোগীর বাড়িতে ৮% হারে সুদ সহ বকেয়া টাকা চেয়ে আইনি নোটিস নার্সিংহোমের

মৃত রোগীর বাড়িতে ৮% হারে সুদ সহ বকেয়া টাকা চেয়ে আইনি নোটিস নার্সিংহোমের

File Photo

File Photo

মৃত রোগীর বাড়িতে ৮% হারে সুদ সহ বকেয়া টাকা চেয়ে আইনি নোটিস নার্সিংহোমের

  • Share this:

     #কলকাতা: স্বাস্থ্য কমিশনের তোয়াক্কা না করেই বেসরকারি হাসপাতালের অমানবিক কীর্তি! রোগীর মৃত্যুর দেড় মাস পর এবার বাড়িতে আইনি নোটিশ পাঠিয়ে টাকা দাবি করল সিএমআরআই। একইসঙ্গে বকেয়া টাকার আট শতাংশ হারে সুদও চেয়ে বসেছে ওই নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। বকেয়া না পেলে ফৌজদারি মামলার হুমকিও দেওয়া হয়েছে। নোটিস পেয়ে দিশেহারা লিলুয়ার অপূর্ব মণ্ডল ও তাঁর পরিবার।

    মাথার যন্ত্রণা নিয়ে দেড় মাস ধরে সিএমআরআইতে ভরতি ছিল লিলুয়ার কোনা পূর্বপাড়ার বাসিন্দা অভিজিৎ মণ্ডল। দুটি অপারেশনের পরেও রোগমুক্তি ঘটেনি তার। অবশেষে, মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে অভিজিতকে ভরতি করা হয় এএসএসকেএমে। সেখানেই মৃত্যু হয় তার।

    ছেলের মৃত্যুর শোক এখনও তাজা। তারমধ্যেই নতুন করে বিপত্তি। অভিজিতের চিকিৎসার বকেয়া টাকা চেয়ে এবার আইনি নোটিস পাঠাল সিএমআরআই কর্তৃপক্ষ।

    অমানবিক নার্সিংহোম

    - অভিজিতের চিকিৎসার জন্য বকেয়া টাকা চায় সিএমআরআই কর্তৃপক্ষ - বকেয়া ৯ লক্ষ ৭২ হাজার ২৮ টাকা চেয়ে আইনি নোটিস পাঠানো হয়েছে - ১৭ অগাস্ট সিএমআরআই থেকে এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়া হয় অভিজিৎকে - ১৭ অগাস্ট থেকে ৮% হারে বকেয়া টাকার সুদও দাবি করেছে নার্সিংহোমটি - ১৫ দিনের মধ্যে টাকা না পেলে ফৌজদারি মামলার হুমকিও দিয়েছে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ

    অভিজিতের পরিবারের দাবি, গত সতেরোই অগাস্ট টাকা দিতে না পারার জন্য মুচলেকাও লিখিয়ে নেয় সিএমআরআই কর্তৃপক্ষ। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের এমন আইনি পদক্ষেপে স্তম্ভিত লিলুয়ার ওই পরিবারটি।

    আইনি নোটিসে লেখা, জ্বর ও খিঁচুনি নিয়ে সিএমআরআই-তে ভরতি হয়েছিল অভিজিৎ। সেই তথ্যও অসত্য বলে দাবি অভিজিতের বাবা-মায়ের। চাপ দিয়ে বিল বাড়ানো, টাকা নিয়েও চিকিৎসা না করা - এমন নানা অভিযোগ বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে ছিলই। কিন্তু, সিএমআরআই-এর কীর্তি ভিন্ন নজির তৈরি করল। বুঝিয়ে দিল, স্বাস্থ্য কমিশন গঠনের পরেও নার্সিংহোমগুলির দাপট সমানে অব্যাহত।

    First published: