যাদবপুরে রাজ্যপালকে কালো পতাকা, গাড়ি আটকে গো-ব্যাক স্লোগান

যাদবপুরে রাজ্যপালকে কালো পতাকা, গাড়ি আটকে গো-ব্যাক স্লোগান
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়
  • Share this:
#কলকাতা:  যাদবপুরে পড়ুয়াদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় ৷ কোর্ট বৈঠকে যোগ দিতে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার মুখেই রাজ্যপালের গাড়ি আটকায় পড়ুয়ারা ৷ কালো পতাকা দেখিয়ে গো-ব্যাক স্লোগান বিক্ষোভকারীদের ৷ বিক্ষোভে প্রদর্শনে সামিল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বন্ধু সমিতির সদস্যরা ৷ নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদেই এই বিক্ষোভ ৷ এর জেরে বহুক্ষণ গাড়িতেই আটকে থাকেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় ৷ প্রায় আড়াই ঘণ্টা আটকে থাকার পর বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে রাজ্যপালকে বের করে নিয়ে যায় তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা৷ অন্যদিকে, সমাবর্তন নিয়ে ভেস্তে গিয়েছে কোর্ট বৈঠক ৷ রাজ্যপাল কথা বলবেন পড়ুয়াদের সঙ্গে ৷ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়েই সাংবাদিক বৈঠক করবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় ৷
কোর্ট বৈঠকে যোগ দিতে অরবিন্দ ভবনে প্রবেশের পরও বিক্ষোভ পিছু ছাড়েনি জগদীপ ধনখড় ৷সেখানেও CAA-NRC বিরোধী প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখান পড়ুয়ারা ৷ তবে পড়ুয়াদের তরফে বক্তব্য, কোর্ট মিটিংয়ে তারা কোনও বাধা দিতে চায় না ৷ প্রশ্নের জবাব পেলেই বিক্ষোভ তুলে নেওয়া হবে ৷ ২৪ ডিসেম্বর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তনের প্রথা। কিন্তু, ছাত্রবিক্ষোভের আশঙ্কায় শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এগজিকিউটিভ কাউন্সিল সমাবর্তন পিছোনর সিদ্ধান্ত নেয়। সেদিনই ক্ষোভ উগড়ে দেন রাজ্যপাল। শনিবারই যাদবপুরের উপাচার্যকে লেখা চিঠিতে আচার্য রাজ্যপাল জানিয়ে দেন, 'আইন মেনে কাজ করেনি এগজিকিউট কাউন্সিল। তাই কাউন্সিলের ২১ ডিসেম্বরের সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত বাতিল। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের ১৭ নম্বর ধারা অনুযায়ী তাঁর এই ক্ষমতা আছে। এগজিকিউটিভ কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অস্বীকার করেই এগোতে হবে উপাচার্যকে।' উপাচার্যকে হুঁশিয়ারি দিয়ে, আচার্য-রাজ্যপাল লিখেছিলেন, 'মনে রাখবেন, এই নির্দেশ না মানলে কড়া পদক্ষেপের মুখে পড়তে হবে। বেআইনি সমাবর্তন হলে তার ফল ভুগতে হবে পড়ুয়াদেরও।' বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে রবিবার কোনও মন্তব্য করা হয়নি। সোমবার বসবে কোর্টের বৈঠক। ট্যুইট করে এদিনের কোর্টের বৈঠকে যাওয়ার কথা জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।
First published: December 23, 2019, 2:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर