corona virus btn
corona virus btn
Loading

বৃহস্পতিবার থেকে কলকাতায় আরও বাড়ছে সরকারি বাসের সংখ্যা, ৯০০ বাস নামবে শহরে

বৃহস্পতিবার থেকে কলকাতায় আরও বাড়ছে সরকারি বাসের সংখ্যা, ৯০০ বাস নামবে শহরে

দফতরের আধিকারিকদের বলা হয়েছে, সকাল থেকে ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে। যদি দেখা যায় রাস্তায় লোক বেশি, বাস কম, তাহলে যেখানে বাস প্রয়োজন সেখানে বাস পাঠানো হবে।

  • Share this:

ABIR GHOSHAL

#কলকাতা: আগামিকাল থেকে পথে নামছে বেশি সরকারি বাস। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর ৯০০ বাস আগামিকাল থেকে রাস্তায় থাকবে৷ রাজ্য পরিবহন দফতর সূত্রে খবর, ৬০০ বাস রাস্তায় নামানো হয়েছে। এর ফলে গত দু'দিনের মতো ভোগান্তি তৈরি হয়নি কলকাতায়। অন্যদিকে ২২ টি রুটের বেসরকারি বাস ও মিনিবাস রাস্তায় নামল আজ। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, আগামিকাল বাসের সংখ্যা দ্বিগুণ করা হবে। ১ জুন থেকে ৭০% হাজিরা নিয়ে চলছে একাধিক সরকারি অফিস। এছাড়া হাতিবাগান, নিউ মাকেট সহ একাধিক বাজার খুলে গিয়েছে। বেসরকারি অফিস অবধি বেশ কয়েকটা খুলে গিয়েছে। এই অবস্থায় সাধারণ মানুষের যাতায়াতের প্রধান মাধ্যম ছিল সরকারি বাস। তবে বুধবারও মাথা খুঁড়ে সেই সরকারি বাস না পেয়ে দিনভর নাজেহাল হচ্ছিলেন যাত্রীরা। বেশ কয়েকজন ক্ষোভ উগড়ে দেন। শেষমেষ বিকেলে বাসের সংখ্যা বাড়ানো হলেও পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে একটু বেশি সময় লেগেছে। তাই সমস্যা মেটাতে কাল থেকে সরকারি বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

লকডাউন অধ্যায়ে কলকাতায় প্রায় ৫০ টি রুটে সরকারি বাস পরিষেবা চালু করা হয়। তার জন্যে মোট ২৪০টি সরকারি বাস চলাচল শুরু হয়। লকডাউন অধ্যায়ে যে সংখ্যক বাস চলেছে তাতে অসুবিধা হলেও বাস চলাচল করে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দিতে পারা গিয়েছে। কিন্তু এক ধাক্কায় মাসের প্রথম দিন থেকে বহু লোক রাস্তায় নেমে পড়েন। বিভিন্ন দোকান, বাজার, অফিস খুলে যাওয়ায় যে অতিরিক্ত মানুষ রাস্তায় নামলেন তা ২৪০টি বাস দিয়ে মোকাবিলা করা সম্ভব ছিল না। যার জেরে কামালগাজি, ডানলপ, ডালহৌসি বা এসপ্ল্যানেড বা পার্ক স্ট্রিট সব জায়গায় বাসের জন্য লাইন লম্বা হয়েছে । বাসে জায়গা পাননি যাত্রীরা। অসুবিধার বিষয় যখন পরিবহণ দফতরের কানে গিয়ে পৌছয় ততক্ষণে অনেক অফিস চালু হয়ে গিয়েছে। অনেকের নামের পাশে ডিউটি রোস্টারে লেট পড়ে গিয়েছে। তড়িঘড়ি আরও ১০০ বাস নামাতে বললেও যাত্রী সংখ্যার অনুপাতে তা অত্যন্ত কম। ফলে যাত্রীদের ভোগান্তি অব্যাহত থাকে।

এই পরিস্থিতিতে দফতর সিদ্ধান্ত নিয়ে বাসের সংখ্যা ৬০০ করে দেওয়া হয়। মনে করা হচ্ছিল এই ৬০০ বাস দিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা সম্ভব। কিন্তু তা দিয়েও না হওয়ায় এবার ৯০০ বাস নামানো হচ্ছে। একই সঙ্গে দফতরের আধিকারিকদের বলা হয়েছে, সকাল থেকে ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে। যদি দেখা যায় রাস্তায় লোক বেশি, বাস কম, তাহলে যেখানে বাস প্রয়োজন সেখানে বাস পাঠানো হবে।

Published by: Simli Raha
First published: June 3, 2020, 4:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर