corona virus btn
corona virus btn
Loading

নৃশংস! 'পাবজি' খেলা নিয়ে অশান্তি, শহরের বন্ধুর পেটে ছুরি চালিয়ে এফোঁড়-ওফোঁড় করল যুবক

নৃশংস! 'পাবজি' খেলা নিয়ে অশান্তি, শহরের বন্ধুর পেটে ছুরি চালিয়ে এফোঁড়-ওফোঁড় করল যুবক
প্রতীকী ছবি

আক্রান্ত যুবক ও অভিযুক্ত সানি দুজনেই 'পাবজি স্কোয়াডে'র সদস্য।

  • Share this:

#কলকাতাঃ অনলাইনে এই মুহূর্তে সবথেকে জনপ্রিয় মোবাইল গেম 'পাবজি'। এই গেমের মূল লক্ষ্য শত্রুকে ধ্বংস করা। আর সেই গেম খেলা নিয়েই বচসার জেরে বন্ধুকে ছুরি দিয়ে আঘাত করল যুবক। মঙ্গলবার রাতে গড়িয়াহাট থানা এলাকার ডোভার টেরেস এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। বন্ধুর পেটে ছুরি দিয়ে আঘাত করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে সানি নামে অভিযুক্ত যুবককে। বুধবার আদালতে তোলা হলে সানিকে পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, আক্রান্ত যুবক ও অভিযুক্ত সানি দুজনেই 'পাবজি স্কোয়াডে'র সদস্য। মঙ্গলবার রাতে আক্রান্ত ওই যুবক সানিকে তাদের গ্রুপ থেকে আচমকাই বের করে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তা নিয়ে প্রথমে দু'জনের মধ্যে বাঁধে বচসা। তারপর তা হাতাহাতিতে গড়ায়। আচমকাই সানি যুবকের পেটে ছুরি চালিয়ে দেয়। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে সেই যুবক। চুরি খুব ধারালো না হওয়ায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন ওই যুবক।

ঘটনা ঘটার কিছু সময় পরেই খবর যায় গড়িয়াহাট থানায়। পুলিশ এসে সানিকে গ্রেফতার করে এবং আক্রান্ত ওই যুবককে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। পুলিশ সূত্রে খবর, সানির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৪ ধারায় অস্ত্র দিয়ে গুরুতর আঘাতের ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

আক্রান্ত এবং অভিযুক্ত দুই যুবকই গড়িয়াহাটের একই এলাকার বাসিন্দা। দু'জনেই প্রতিবেশী। দু'জনই পাবজি স্কোয়াডের সদস্য। তারা যখনই পাবজি খেলে একসঙ্গে খেলে। এই অবস্থায় কেন সানিকে গ্রুপ থেকে বের করে দেওয়া হল তা নিয়ে শুরু হয় বচসা। যদিও পাবজি খেলা নিয়ে এরকম গোলমাল এই প্রথম নয় দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে পাবজি খেলা নিয়ে বিভিন্ন সময় মারধরের ঘটনা আগেও ঘটেছে।

গড়িয়াহাট থানার এক আধিকারিক, "এই ঘটনার খবর পেয়ে আমরা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে যাই এবং অভিযুক্তকে গ্রেফতার করি। মোবাইল গেম খেলা নিয়ে উন্মাদনা এতটাই চরমে ওঠার জেরেই এরকম ঘটনা ঘটে। যেভাবে ছুরি চালানো হয়েছে তাতে প্রাণহানির সম্ভাবনাও ছিল। গোলমালের জেরে কেন ছুরি চালাল সে বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে সানি জানায়, আচমকা তাকে গ্রুপ থেকে বের করে দেওয়ার বিষয়টি সে মেনে নিতে পারেনি। তাই এই ঘটনা ঘটিয়ে ফেলেছে।"

SUJOY PAL

Published by: Shubhagata Dey
First published: April 8, 2020, 9:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर