corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা প্রতিরোধে বিনামূল্যে মাস্ক, স্যানেটাইজারের দাবিতে আন্দোলনে নামছে ডিওয়াইএফআই 

করোনা প্রতিরোধে বিনামূল্যে মাস্ক, স্যানেটাইজারের দাবিতে আন্দোলনে নামছে ডিওয়াইএফআই 
ফাইল ছবি

কোরোনা আতঙ্ক ইতিমধ্যেই পা রেখেছে রাজনীতির বৃত্তেও।

  • Share this:

#কলকাতা: রোটি-কাপড়া-মকান বা বিজলি-সড়ক-পানি অথবা শিক্ষা ও কাজের দাবিতে আন্দোলন চলতে থাকে। কিন্তু সময়ের ফেরে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের তালিকায় ঢুকে পড়েছে মাস্ক ও স্যানিটাইজার। বিনামূল্যে মাস্ক ও স্যানেটাইজারের দাবিতে আন্দোলনে নামছে ডিওয়াইএফআই। আগামিকাল থেকে রাজ্যজুড়ে আন্দোলন চালানো হবে বলে জানিয়েছেন ডিওয়াইএফআই-য়ের রাজ্য সভানেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, "করোনা নিয়ে মানুষ আতঙ্কিত। প্রতিষেধক হিসেবে প্রয়োজন স্যানেটাইজার ও মাস্ক। অথচ এই দুটো জিনিসই পাওয়া যাচ্ছে না কালোবাজারির জেরে। তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপের দাবিতে আমরা আন্দোলন শুরু করব। একইসঙ্গে আমাদের দাবি বিনামূল্যে এই দুটি জিনিস মানুষকে দেওয়া হোক। প্রশাসনের তরফে সচেতনতা শিবির তৈরি করা হোক।"

পুরসভা নির্বাচন কড়া নাড়ছে রাজ্যের দোরগোড়ায়। আর কোরোনা আতঙ্ক ইতিমধ্যেই পা রেখেছে রাজনীতির বৃত্তেও। করোনা নিয়ে সতর্কীকরণের প্রচারকে হাতিয়ার করেও পুরসভা নির্বাচনে ভোটারদের কাছে যেতে চাইছে রাজনৈতিক দলগুলিও। সেক্ষেত্রে মাস্ক ও স্যানেটাইজার নিয়ে শাসকের বিরুদ্ধে সুর চড়ানোটাকেও স্বাভাবিক বলেই মনে করছে রাজনীতির কারবারিদের একাংশ। অন্যদিকে, করোনা নিয়ে দলের মধ্যেও সতর্কতার পদক্ষেপ করছে ডান-বাম সব পক্ষই। বড় সভা বা মিছিলের চাইতে ছোট ছোট সভা করে প্রচার। প্রচারের সময়েও যাতে সঠিকভাবে নিরাপত্তা নেওয়া হয়, সেদিকেও নজর রাখছে দলীয় নেতৃত্ব। সিপিএমের কলকাতা জেলা কমিটির সম্পাদক কল্লোল মজুমদার বলেন, "করোনা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে একটা সমস্যা। চিনের পাশাপাশি অন্যান্য দেশেও ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। আমরাও বিজ্ঞানসম্মত ভাবে তার প্রতিকারের জন্য যে পদক্ষেপ করা উচিত সেই কথাই বলছি। একইসঙ্গে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি। নির্বাচন কোন সময়ে হয় সেই সময়ে পরিস্থিতি কোন দিকে থাকে সেটাও একটা বিষয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলে এলে হয়তো কিছুই করতে হবে না।"

তিনি আরও বলেন, কলকাতা পুরসভায় আমাদের বড় সভা বলতে কয়েকটি ওয়ার্ড নিয়ে একটি সভা। ছোট সভার দিকেও গুরুত্ব দেওয়া হবে। কিন্তু বছর কয়েক পরিস্থিতি খারাপ হয়েছে। মহল্লা বৈঠক করলে শাসকদলের হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে। শাসকদল হোক বা বিরোধী। ডান হোক বা বাম। করোনা নিয়ে পুরসভা নির্বাচনে করোনা নিয়ে যে প্রচার সরগরম হতে চলেছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত রাজনৈতিক মহল। সিপিএমের যুব সংগঠনের এটাই প্রথম পদক্ষেপ বলেই মনে করেন তাঁরা।

UJJAL ROY

Published by: Shubhagata Dey
First published: March 15, 2020, 3:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर