• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Kolkata Long Route Bus Serivce: দূরপাল্লার সরকারি বাসে আজ থেকে মিলবে জল-খাবার, বাসেই থাকছে ফুড কর্নার

Kolkata Long Route Bus Serivce: দূরপাল্লার সরকারি বাসে আজ থেকে মিলবে জল-খাবার, বাসেই থাকছে ফুড কর্নার

পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের দূরপাল্লার বাসে অত্যাধুনিক এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। তবে দূরপাল্লার ভলভো (Volvo Bus) বাসেই দেওয়া হবে এই পরিষেবা।

পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের দূরপাল্লার বাসে অত্যাধুনিক এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। তবে দূরপাল্লার ভলভো (Volvo Bus) বাসেই দেওয়া হবে এই পরিষেবা।

পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের দূরপাল্লার বাসে অত্যাধুনিক এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। তবে দূরপাল্লার ভলভো (Volvo Bus) বাসেই দেওয়া হবে এই পরিষেবা।

  • Share this:

#কলকাতা: আজ, বৃহস্পতিবার, থেকে আরও আরামদায়ক হচ্ছে দূরপাল্লার বাস যাত্রা। বাস যাত্রীদের কথা মাথায় রেখেই আজ থেকে পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের দূরপাল্লার বাসে অত্যাধুনিক এই পরিষেবা চালু করা হচ্ছে। তবে দূরপাল্লার ভলভো বাসেই দেওয়া হবে এই পরিষেবা।রাজ্যের একাধিক পরিবহণ নিগম ভলভো বা ভলভোর ধাঁচে অত্যাধুনিক বাস পরিষেবা চালু করেছে দীর্ঘ দিন ধরেই। সেই বাস পরিষেবায় বিমান যাত্রার ধাঁচেই এবার দেওয়া হচ্ছে হালকা খাবার। দেওয়া হবে আজ থেকে জলের বোতলও। তবে এটি দেওয়া হবে বিনামূল্যে।

এছাড়া দূরপাল্লার বাসে যাতায়াত করার জন্যে অবসাদ কাটাতে দেওয়া হচ্ছে সংবাদপত্র। বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি তিন ভাষাতেই দেওয়া হবে এই সংবাদপত্র। আপাতত একটি রুটেই আজ থেকে এই পরিষেবা চালু হয়ে যাচ্ছে। এসপ্ল্যানেড থেকে সিউড়ি ভায়া বোলপুর রুটে এই পরিষেবা চালু হল। পশ্চিমবঙ্গ পরিবহণ নিগমের এমডি রাজনবীর কাপূর জানিয়েছেন, "দূরপাল্লার বাসযাত্রাকে আরও আরামদায়ক করে তোলাই আমাদের লক্ষ্য। তাই যাত্রীদের সুবিধার জন্য এই পরিষেবা চালু হল।"

ভলভো বাসে থাকছে একটা ৫০০ মিলিলিটার জলের বোতল। এই বোতল অবশ্য বিনামূল্যে দেওয়া হবে। তবে কেউ অতিরিক্ত জল চাইলে তিনি কিনে নিতে পারবেন।  বাসের মধ্যেই ফুড স্টল বা কর্নার রাখা হয়েছে। বিস্কুট, কেক, স্যান্ডউইচ, চকোলেট পাওয়া যাবে এখান থেকে। তবে তা কিনে খেতে হবে। এর পাশাপাশি চেষ্টা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই বাসে ওয়াই-ফাই পরিষেবা চালু করে দেওয়ার। দীর্ঘ দিন ধরেই বেসরকারি দূরপাল্লার ভলভো বাসে জলের বোতল ও বিস্কুটের একটা প্যাকেট দেওয়া হয়। কিন্তু কখনও সরকারি উদ্যোগে এই পরিষেবা দেওয়া হত না। বেসরকারি বাসে অবশ্য খাবার কিনে খাওয়ার সুবিধা নেই। কোনও স্টপেজে দাঁড়ালে বাস থেকে নেমে খাবার কিনতে হয়। সরকার অবশ্য চাইছে নন স্টপ বাস চালাতে। তাই অন বোর্ড এই ব্যবস্থা চালু করে দেওয়া হল।

Published by:Pooja Basu
First published: