• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • FIR LODGED AFTER EDUCATION MINISTER PARTHA CHATTERJEES ORDER ON ST PAULS STUDENT HARASSMENT CASE

সেন্ট পলসে ছাত্রকে নগ্ন করে প্রহারের ঘটনায় উদ্বিগ্ন শিক্ষামন্ত্রী, পুলিশে অভিযোগ দায়ের

ছবি: নিউজ এইটিন বাংলা ৷

সেন্ট পলসের কমনরুমে ছাত্রকে নগ্ন করে প্রহারের ঘটনায় পুলিশে অভিযোগ দায়ের

  • Share this:

    #কলকাতা: শিক্ষামন্ত্রীর কড়া অবস্থানের পর তৎপর কলেজ কর্তৃপক্ষ। ঘটনা প্রকাশ্যে আসার দুদিন পর চারজনের নামে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় এফআইআর দায়ের করল সেন্ট পলস কলেজ কর্তৃপক্ষ। ঘটনায় আশ্বস্ত হলেও, আতঙ্ক কাটছে না অভিযোগকারী ছাত্রের।

    সেন্ট পলসে ছাত্রের নগ্ন ভিডিও ভাইরাল ৷ খাস কলকাতার সেন্ট পলস কলেজের কমনরুমে মদ্যপানের প্রতিবাদ করে নিগৃহীত ছাত্র। ঘটনায় উদ্বিগ্ন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ৷ তাঁর নির্দেশেই পুলিশে দায়ের হল অভিযোগ ৷ দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের আশ্বাস দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ৷ বিশৃঙ্খলা এড়াতে সেন্ট পলস কলেজে মোতায়েন কড়া পুলিশি প্রহরা ৷

    মদ্যপানের প্রতিবাদ করে হেনস্থার শিকার দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। সেন্ট পলস কলেজের কমনরুমে নগ্ন করে ওই ছাত্রকে হেনস্থা ও ভিডিও করে সোশ্যালে ছেড়ে দেওয়া হয় ৷ অভিযোগের আঙুল উঠেছে প্রাক্তনী ও বহিরাগতদের বিরুদ্ধে।

    ঘটনার কথা জানতে পেরে উদ্বেগ প্রকাশ করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় ৷ তাঁর হস্তক্ষেপেই সোমবার আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় অনন্ত প্রামাণিক (অস্থায়ী কর্মী), অভিজিৎ দলুই (দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র), শেখ এনামূল হক (বহিরাগত) ও অর্ণব ঘোষ (বহিরাগত)-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে কলেজ কর্তৃপক্ষ ৷ এর আগে বারুইপুর থানাতেও অভিযোগ জানায় ছাত্রের পরিবার ৷

    আরও পড়ুন 

    শাড়ি পরে ম্যারাথন দৌড়, বাজিমাৎ সাইক্লিংয়েও, ব্যতিক্রমী প্রয়াস কলকাতার পূজার

    নিগৃহীত ছাত্রের দাবি, ১৭ মে সন্ধ্যার পর কলেজে মদের আসর বসেছিল। বহিরাগত ও প্রাক্তনীদের মদ্যপানের প্রতিবাদ করায় তাঁকে নগ্ন করে হেনস্থা করা হয়। শুধু তাই নয়। হেনস্থার ভিডিও মোবাইলে তুলে তা ভাইরাল করা হয়।

    লজ্জায় ও ভয়ে কলেজে আসাই বন্ধ করে দেয় ওই ছাত্র। শনিবার কলেজে এসে অন্য পড়ুয়াদের বিষয়টি জানায় সে। এরপরই উত্তেজনা ছড়ায় কলেজ চত্ত্বরে।  প্রশ্ন উঠেছে, কলেজে এত বড় ঘটনা ঘটলেও তা কেন কারও নজরে এল না? কলেজের নিরাপত্তারক্ষীরাই বা কী করছিলেন?

    সোমবার কলেজ কর্তৃপক্ষ ও ছাত্রের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ। শুরু হয়েছে তদন্ত। অভিযুক্তদের খোঁজে চলছে তল্লাশি। এরই মধ্যে ঘটনায় অভিযুক্ত অর্ণব ঘোষ সোশাল মিডিয়ায় তার সাফাই দিয়েছে।

    এদিন কলেজের গভর্নিং বডির বৈঠক। তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ। এদিন আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার সামনে দোষীদের শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ দেখায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা।

    First published: