• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • FAKE KOLKATA POLICE TRAFFIC SURGENT IDENTIFIED COMPLAINT LODGED IN CYBER CELL SDG

Fake Kolkata Police Officer|| হট রেড লিপস্টিক-সানগ্লাস! গায়ে কলকাতা পুলিশের উর্দি! নজরে মহিলা 'ট্রাফিক সার্জেন্ট'

সুলগ্না ঘোষ।

Fake Kolkata Police Officer Identified: ভুয়ো কেএমসি কর্তা , একাধিক ভুয়ো সিবিআই আধিকারিকের পর এ বারে পুলিশের নজরে ভুয়ো কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের (Kolkata Police) লেডি অফিসার সুলগ্না ঘোষ।

  • Share this:

    #কলকাতা: ভুয়ো কেএমসি (Kolkata Municipal Corporation) কর্তা তথা IAS দেবাঞ্জন দেব, একাধিক ভুয়ো সিবিআই (CBI) আধিকারিকের পর এ বারে পুলিশের নজরে ভুয়ো কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের (Kolkata Traffic Police) লেডি অফিসার সুলগ্না ঘোষ।

    হট রেড লিপস্টিক, চোখে সানগ্লাস, কানে কয়েক জোড়া দুল। কখনও চুলে পনিটেল আবার কখনও টপ নট। এই বাহারি সাজসজ্জার সঙ্গে পরনে কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) ট্রাফিক সার্জেন্টের দুধ সাদা উর্দি! সোশ্যাল মিডিয়ায় দিন কয়েক ধরে ঘুরছিল সুন্দরী এই মহিলা ট্রাফিক কর্তার ছবি। একে এত সুন্দরী, তার ওপরে গায়ে পুলিশকর্তার পোশাক, তাই তা নজর কেড়েছিল অনেকেরই। এমনকি নিজেকে কলকাতার পুলিশ কমিশনার (Kolkata Police Commissioner) সৌমেন মিত্রকে বাবা বলেও নাকি পরিচয় দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিও পোস্ট করেছিল সুলগ্না। তবে সম্প্রতি নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সব ছবি ডিলিট করে দেয় সে। তাতে সন্দেহ দানা বাঁধে। এরপর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কেউ যুবতীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন কলকাতা পুলিশের সাইবার সেলে।

    পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, তদন্তে নেমে চোখ কপালে ওঠে পুলিশের। তদন্তকারী আধিকারিকরা জানতে পেরেছেন, বেশ কিছু দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেকে ট্রাফিক সার্জেন্ট পরিচয় দিয়ে একাধিক ছবি পোস্ট করছিলেন বিক্রমগড়ের বাসিন্দা সুলগ্না ঘোষ। পরে সেই ছবি নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে ডিলিটও করে দেন। ইতিমধ্যেই সুলগ্নাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। শুধুমাত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের দর বাড়াতে সে এই কাজ করেছে, নাকি এর পিছনে অন্য কোনও উদ্দেশ্য রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে যুবতীর বিরুদ্ধে প্রতারণার কোনও অভিযোগ মেলেনি। উল্লেখ্য, সুলগ্নার ফেসবুক বন্ধুর তালিকায় একাধিক ট্রাফিক সার্জেন্ট রয়েছেন।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: