EC Banned Rahul Sinha: '৮ জনকে মারা উচিত ছিল', মন্তব্যের জেরে ৪৮ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা রাহুল সিনহার প্রচারে

EC Banned Rahul Sinha: '৮ জনকে মারা উচিত ছিল', মন্তব্যের জেরে ৪৮ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা রাহুল সিনহার প্রচারে

রাহুল সিনহার প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল নির্বাচন কমিশন।

৪৮ ঘণ্টার জন্য রাহুল সিনহার প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল নির্বাচন কমিশন।

  • Share this:

    #কলকাতা: চারজন নয়.শীতলকুচিতে আটজনকে মেরে ফেলা উচিত ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর, মন্তব্য করেছিলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা। এবার তার জেরেই ৪৮ ঘণ্টার জন্য তাঁর প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করল নির্বাচন কমিশন।  কমিশনের তরফে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে বলা হয়েছে, ভবিষ্যতে এই ধরনের ঘটনা অনভিপ্রেত, কমিশনের নিয়ম লঙ্ঘনকারী, তাই তাঁকে নোটিশ না দিয়ে জরুরি ভিত্তিতে তাঁর প্রচার বন্ধ রাখছে নির্বাচন কমিশন।

    রবিরা  হাবড়ার চোঙদা মোড় থেকে বাণীপুর পর্যন্ত মিঠন চক্রবর্তীকে নিয়ে মিছল করেন রাহুল সিনহা।  মিঠু প্রচার শেষে চলে গেলেও সন্ধ্যায় হাবড়া পুরসভা এলাকায় প্রচার করছিলেন হাবড়ার বিজেপি প্রার্থী রাহুল সিনহা। সেখানেই শীতলকুচি-কাণ্ড নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এই বিতর্কিত মন্তব্য করেন রাহুল সিনহা। তিনি বলেন, শীতলকুচিতে ৪ জনের বদলে ৮ জনকে মারা উচিত ছিল। কেন কেন্দ্রীয় বাহিনী ৪ জনকে মারল তার জন্য বরং শো কজ করা উচিত তাঁদের। মন্তব্য সামনে আসায় তীব্র বিতর্ক শুরু হয়।

    মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই মন্তব্যের নিন্দা করে বলেন, "গুলিতে ঝাঁঝরা করে দিয়েছে বলছে চারজনের বদলে আটজনকে মারা উচিত ছিল, এরা দেশের নেতা!" নাগরিক সমাজও নিন্দায় মুখর হয় এই মন্তব্যে। প্রসঙ্গত শুধু রাহুল সিনহাই নন, শীতলকুচি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন একাধিক বিজেপি নেতাই। বরানগরের এক সভা থেকে দিলীপ ঘোষ বলেন, বাড়াবাড়ি করলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে। এই নিয়েও কমিশনে গিয়েছিল তৃণমূল।

    উল্লেখ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘেরাও মন্তব্যের ব্যখ্যায় অসন্তুষ্ট কমিশন তাঁ প্রচার কর্মসূচিতে নিষেঝাজ্ঞা জারি করেছে।  তৃণমূল নেত্রী এই ঘটনাকে অসাংবিধানিক ও অগণতান্ত্রিক বলে ব্যখ্যা করেছেন। আজ দুপুর বারোটা থেকে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে ধরনায় বসছেন তিনি। থাকছে না কোনও দলীয় প্রতীক বা পতাকা ।

    Published by:Arka Deb
    First published: