বেসরকারি স্কুলগুলিতে বাংলা পড়ানো হচ্ছে তো? এবার নজরদারি চালাবে রাজ্য সরকার

বেসরকারি স্কুলগুলিতে বাংলা পড়ানো হচ্ছে তো? এবার নজরদারি চালাবে রাজ্য সরকার
পার্থ চট্টোপাধ্যায়

কোন কোন স্কুল বাংলা পড়াচ্ছে বা কোন কোন স্কুলে বিষয় হিসাবে বাংলা নেই তার তালিকা তৈরি করবে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।বেসরকারি স্কুলগুলোতে

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের বেসরকারি স্কুলগুলোতে বাংলা পড়ানো হচ্ছে নাকি তা নিয়ে কড়া মনোভাব নিতে চলেছে রাজ্য। বুধবার এমন  ইঙ্গিত দিয়েছেন খোদ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রীর অভিযোগ অভিভাবকরা অভিযোগ করছেন অনেক বেসরকারি স্কুলের বাংলা পড়ানো হচ্ছে না। এক্ষেত্রে রাজ্যের অবস্থান স্পষ্ট করে শিক্ষামন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন স্কুলগুলিতে বাংলা পড়ানো বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় চিন্তাভাবনাও হবে। অবশ্য শিক্ষামন্ত্রী র মন্তব্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া বেসরকারী স্কুল গুলোর।

বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলগুলো বাংলা পড়ানো নিয়ে উদ্যোগী নয়। এই ধরনের অভিযোগ একাধিকবার করেছেন রাজ্যের শিক্ষাবিদদের একাংশ। মূূূলত বেশিরভাগ বেসরকারি স্কুলগুলোতে প্রথম ভাষা হিসেবে ইংরেজি ও দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে হিন্দি পড়ানো হয় বলে অভিযোগ তাদের। বাংলা ভাষা বাধ্যতামূলক করা নিয়েে নির্দিষ্ট আইনের দাবি ও উঠে এসেছে শিক্ষাবিদদের মধ্য থেকে। রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর এও এ নিয়ে একাধিকবার অভিযোগ জমা দিয়েছেন অভিভাবকরাই। আর এবার তা নিয়ে সরব হলেন খোদ রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। স্কুল শিক্ষা দপ্তর এ অভিযোগ প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে এদিন তিনি বাংলা ভাষা কেন পড়ানো হবে না তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। ক্ষোভের সুরে তিনি বলেন "বাংলায়় থাকে অথচ বাংলাা পড়ানো হবে না এই দ্বিচারিতা কেন হবে। সবারই বাংলা শেখার অধিকার আছে।"শুধুুু তাই নয়, এবার বেসরকারি স্কুলগুলোর ওপর বাংলা পড়ানো নিয়ে নজরদারি ও করা হবে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী।

স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, কোন কোন স্কুল বাংলা পড়াচ্ছে বা কোন কোন স্কুলে বিষয় হিসেবে বাংলা নেই তার জন্য একটি নির্দিষ্ট তালিকা তৈরি করবে স্কুল শিক্ষা দপ্তর। এক্ষেত্রে জেলা স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শক রা এই নজরদারির কাজ করবেন। তবে বুধবার শুধুমাত্র বাংলা ভাষা নিয়ে নয়, বেসরকারি স্কুল গুলির ফি বৃদ্ধি নিয়ে ও সরব হন শিক্ষা মন্ত্রী। তিনি জানান "সরকার নির্ধারিত ফি ছাড়া কোন স্কুল অতিরিক্ত ফি নিতে পারবেন না। বেসরকারি স্কুল গুলির ক্ষেত্রে কিভাবে তা কার্যকর করা যায় তা নিয়ে সরকার ভাবনা চিন্তা করছে।"

SOMRAJ BANERJEE

First published: February 5, 2020, 11:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर