নিষিদ্ধ হওয়ার পরও লালবাতি ব্যবহার করে বিতর্কে তৃণমূল মন্ত্রী– News18 Bengali

নিষিদ্ধ হওয়ার পরও লালবাতি ব্যবহার করে বিতর্কে তৃণমূল মন্ত্রী

নিষিদ্ধ হওয়ার পরও লালবাতি ব্যবহার করে বিতর্কে তৃণমূল মন্ত্রী

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 29, 2017 02:04 PM IST
নিষিদ্ধ হওয়ার পরও লালবাতি ব্যবহার করে বিতর্কে তৃণমূল মন্ত্রী
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:May 29, 2017 02:04 PM IST

#কলকাতা: বরকতির পর এবার লালবাতি বিতর্কে অরূপ বিশ্বাস ৷ সম্প্রতি কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদের প্রাক্তন ইমাম বরকতির গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার নিয়ে তৈরি হয় দেশজোড়া বিতর্ক ৷ পুলিশের হস্তক্ষেপে ইমামের গাড়ির মাথা থেকে লালবাতি খুলে নেওয়া হলেও রাজ্যের পূর্ত ও ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের গাড়িতে এখনও উপস্থিত লালবাতি ৷ এই ঘটনা সামনে আসতেই ফের তৈরি হয়েছে বিতর্ক ৷

ভিআইপি সংস্কৃতি ঘোচাতে গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে মোদি সরকার ৷ পয়লা মে থেকে গোটা দেশে কার্যকর হয়েছে এই সিদ্ধান্ত ৷ নতুন নির্দেশ অনুযায়ী, অ্যাম্বুলেন্স, দমকলের মত জরুরি পরিষেরার সঙ্গে যুক্ত গাড়িতেই শুধুমাত্র নীল আলো লাগানো যাবে।

শুধুমাত্র রাষ্ট্রপতি, উপ-রাষ্ট্রপতি, দেশের প্রধান বিচারপতি ও লোকসভার স্পিকারের মতো ব্যক্তিত্বদের গাড়ি ছাড়া আর কোনও নেতা-মন্ত্রীর গাড়িতে লাল বাতি লাগানো যাবে না ৷ এই নির্দেশের পরও মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের গাড়িতে লাল বাতি থাকায় উঠেছে প্রশ্ন ৷

এবিষয়ে পূর্ত, ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার এখনও লালবাতি নিষিদ্ধ করেনি ৷’

এর আগে টিপু সুলতান মসজিদের মৌলানা নুরুর রহমান বরকতিকেও প্রধানমন্ত্রী মোদির লালবাতি নিষিদ্ধকরণের নির্দেশ সম্পর্কে জানানো হলে তিনি তা উড়িয়ে দিয়ে তখন দাবি করেছিলেন, ‘আমার কাছে ব্রিটিশ সরকারের অনুমতি আছে ৷ গাড়িতে লাল বাতি লাগানোর এই অনুমতি আর কারোর কাছে নেই ৷ কেন্দ্রীয় সরকারের লালবাতি বন্ধ করার কোনও ক্ষমতাই নেই ৷ ভারত সরকারের আগে নিজেদের আইন তৈরি করা উচিত ৷’ পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে খুলে নেওয়া হয় বরকতির গাড়ির বাতি ৷ এঘটনার প্রভাবে পরে ইমাম পদ থেকেও বহিষ্কৃত করা হয় মৌলানা নুরুর রহমান বরকতিকে ৷

শাসক দলের মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের লালবাতি ব্যবহার নিয়ে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়কে প্রশ্ন করা হলে তিনি এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি ৷

First published: 02:04:13 PM May 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर