Home /News /kolkata /
চিরঘুমে 'সাহেব', মুম্বই থেকে কলকাতায় এল তাপস পালের মরদেহ

চিরঘুমে 'সাহেব', মুম্বই থেকে কলকাতায় এল তাপস পালের মরদেহ

প্রয়াত তাপস পাল

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: মুম্বই থেকে কলকাতায় আনা হল তাপস পালের মরদেহ। রাতে বাড়িতেই থাকবে অভিনেতার মরদেহ। বুধবার বিকেলে শেষকৃত্য অভিনেতার। কেওড়াতলায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। আগামিকাল রবীন্দ্রসদনে শায়িত থাকবে তাপস পালের মরদেহ।

মঙ্গলবার সকাল সকালই দুঃখের খবরে ঘুম ভাঙল বাঙালির ৷ ভোর রাতে মুম্বইয়ে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করলেন বাংলা চলচ্চিত্রের ‘সাহেব’ ৷ প্রয়াত অভিনেতা ও প্রাক্তন সাংসদ তাপস পাল ৷ মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬১ বছর ৷

ইংরেজিতে যাকে বলে ‘নেক্সট ডোর বয়’, বাংলা সিনেমার ঘরানায় ঠিক ঘরের ছেলেই ছিলেন তাপস পাল ৷ ১৯৮০ সালে গোলাকার মুখাবয়ব ৷ ঠোঁটের ওপর সদ্য গজানো গোঁফ ৷ ‘দাদার কীর্তি’র নিপাট ভাল মানুষ তাপসকে আজও ভুলতে পারেনি আপামোর বাঙালি ৷ আর সেই থেকেই সিনেমার পর্দার মধ্যে দিয়ে বাঙালির ঘরে ছেলে হয়ে দাঁড়ালেন তাপস পাল৷ ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’, ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘তুমি কত সুন্দর’-এর মতে ছবিতে পর পর মন জয় করেন তিনি ৷ বলিউডে মাধুরী দীক্ষিতের সঙ্গে জুটি বেঁধেও ‘অবোধ’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তাপস পাল ৷

তবে শুধুই মেইন স্ট্রিম বাংলা ছবিতে নয়, বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত-র অন্যধারার ছবিতেও দুর্দান্ত অভিনয় করেছিলেন তাপস পাল ৷ নজর কেড়েছিলেন ‘উত্তরা’ ও ‘মন্দ মেয়ের উপাখ্যান’ ছবিতেও ৷ বাংলা সিনেমায় একসময় তাপস পাল ছিলেন তুরুপের তাস ৷ সিনেমায় নতুন নায়িকা আসা মানেই তাপসের বিপরীতে ৷ আর তারপর বক্স অফিসে সেই ছবি সুপারহিট ৷ ঠিক যেমন তাপস পাল-দেবশ্রী রায় ৷ তরুণ মজুমদারের ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’ ছবিতে জুটি বাঁধলেন ৷ বিপুল সফল হয়েছিল সেই ছবি ৷ তারপর একে একে ‘সাথীহারা’, ‘চোখের আলোয়’, ‘তবু মনে রেখো’ ৷

এরপর তাপস পাল জুটি বাঁধলেব শতাব্দী রায়ের সঙ্গে ৷ শতাব্দীর সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘গুরুদক্ষিণা’ তো বাংলা ছবিরে মাইলস্টোন ৷ এরপর ইন্দ্রাণী হালদার, ইন্দ্রাণী দত্ত, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও জুটি বেঁধেছিলেন তিনি তিনি ৷ পরিচালক দেবাদিত্যের ‘আটটা আটের বনগাঁ লোকাল’ ছবিতে শেষ দেখা গিয়েছিল তাপস পালকে ৷

অঞ্জন চৌধুরী, অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়, তরুণ মজুমদার, তপন সিনহা, হরনাথ চক্রবর্তী, প্রায় সব জনপ্রিয় পরিচালকদের ছবিতেই অভিনয় করেছেন তাপস পাল ৷

২০০৯ সালে রাজনীতিতে পা রাখেন তাপস পাল ৷ ২০০৯ সালেই তৃণমূলের হয়ে ভোটের লড়াইয়ে কৃষ্ণনগর থেকে জিতে সাংসদ হন তিনি ৷ তবে সিনেমায় বাঙালির কাছে ‘সাহেব’ হলেও, রাজনৈতিক জীবনে বহুবারই বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন তাপস পাল ৷

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Tapas Pal Death