corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা ভয়ে গৃহবন্দী মানুষের মানসিক যন্ত্রণা কাটাতে বিনামূল্যে কাউন্সেলিং-এর ব্যবস্থা স্বাস্থ্য দফতরের

করোনা ভয়ে গৃহবন্দী মানুষের মানসিক যন্ত্রণা কাটাতে বিনামূল্যে কাউন্সেলিং-এর ব্যবস্থা স্বাস্থ্য দফতরের
ফাইল ছবি

সকাল ১১ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এই পরিষেবা দেওয়া হবে।

  • Share this:

#কলকাতা: সারা বিশ্বজুড়ে নভেল করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক আর কাটছেই না। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু মিছিল চলছেই। বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৬ লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে আর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ২,৫২,০০০ পেরিয়ে গেছে। ভারতও ব্যতিক্রম নয়। এদেশেও করোনা আক্রান্ত ৪৭,০০০ ছুঁইছুঁই। আর করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ১৫৮৩। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও তথৈবচ। এ রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। রাজ্যে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৪৪, আর মৃত্যু হয়েছে ৬৮ জনের।

মঙ্গলবার পর্যন্ত এ রাজ্যে মোট হোম কোয়ারেন্টাইন রয়েছেন ৫,৫৬১ জন, ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ করেছেন ৬৪,৬২৫ জন। অন্যদিকে বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল এবং কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ৪,৭১২ জন রয়েছেন। হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন পর্ব বা পর্যবেক্ষণ শেষ করেছেন ১৬,৭২৭ জন।

কোয়ারেন্টাইনে বা পর্যবেক্ষণে থাকা ছাড়াও বহু মানুষ এই লকডাউনের সময় নিজেকে গৃহবন্দী রেখেছে। বাড়িতে থাকতে থাকতে এদের অনেকের মধ্যেই মানসিক অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। বিভিন্ন মানসিক সমস্যা দেখা দিচ্ছে কোয়ারেন্টাইনে থাকা অনেকের মধ্যেই। গত ২২শে মার্চ জনতা কারফিউ। আর তারপর ২৪ মার্চ থেকে চলছে লকডাউন। এই দীর্ঘ সময় বাড়িতে থাকতে থাকতে মানসিকভাবে হাঁপিয়ে উঠেছেন অনেকেই আর তাদেরই পাশে দাঁড়িয়ে মনোবিদের পরামর্শ দিতে চলেছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

লকডাউনের সময় যারা বাড়িতে আটকে আছেন বা হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন বা হোম কোয়ারেন্টাইনে যারা আছে, তাদের মানসিক অস্থিরতা দূর করতে বিনামূল্যে কাউন্সেলিং-এর ব্যবস্থা করল স্বাস্থ্য দফতর। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের হেল্পলাইন ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২/ ০৩৩ ২৩৪১ ২৬০০

সকাল ১১ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এই পরিষেবা দেওয়া হবে। যে কোনও ব্যক্তি এই হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে নির্দিষ্ট সময় বুকিং করতে পারেন। সেই সময় ধরেই তিনি মনোবিদের পরামর্শ পাবেন। অন্যদিকে যে সমস্ত সরকারি হাসপাতাল বা কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পর্যবেক্ষণে রয়েছেন যারা, সেই সমস্ত সেন্টারগুলোতে পৃথক মনোবিদ রাখার ব্যবস্থা করেছে স্বাস্থ্য দফতর৷

Published by: Ananya Chakraborty
First published: May 6, 2020, 10:04 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर