corona virus btn
corona virus btn
Loading

মেট্রোয় মৃত্যুভয় ! কী বললেন মেট্রো রেলওয়ের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় ?

মেট্রোয় মৃত্যুভয় ! কী বললেন মেট্রো রেলওয়ের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় ?
  • Share this:

#কলকাতা:  অফিস টাইমে ফের দুঃসহ অভিজ্ঞতা মেট্রোয়। অল্পের জন্য বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচলেন যাত্রীরা। ময়দান স্টেশনে ঢোকার আগে বিপত্তি। আগুন লেগে যায় মেট্রোর একটি রেকে। প্রায় ২০ মিনিট টানেলেই দাঁড়িয়ে ছিল ট্রেন। প্রবল আতঙ্কের মধ্যেই ট্রেন থেকে বেরোন যাত্রীরা। দুর্ঘটনার তদন্তে চারজনের কমিটি গঠন করেছে মেট্রো।

রেকে আগুন লেগেছে। তবুও ছুটছে মেট্রো। ভিতরে প্রাণ হাতে করে কয়েকশো যাত্রী। বৃহস্পতিবার এমনই অভিজ্ঞতা হল দমদমগামী মেট্রোর যাত্রীদের। তখন বিকেল ৫টা ৫ । ময়দান স্টেশনে ঢোকার সময় ট্রেনের সামনের দিক থেকে প্রথম কামরায় আগুন লাগে। টানেলে দাঁড়িয়ে পড়ে ট্রেন। বিকট শব্দের পর ট্রেনের আলোও নিভে যায়। টানেলের মধ্যে তখন প্রাণ সংশয়ে যাত্রীরা। ট্রেনের মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অনেকে। বহু যাত্রী বাইরে আসার পরেও আতঙ্ক কাটিয়ে উঠতে পারেননি। আগুন আতঙ্কে অসুস্থ কমপক্ষে চল্লিশ জন যাত্রী। দ্রুত চিকিৎসার জন্য তাঁদের ভর্তি করা হয় এসএসকেএম হাসপাতালে।

মেট্রো রেলওয়ের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য জানান,

ট্রেন ময়দান স্টেশনে ঢোকার আগে স্টেশন কর্মীরা প্রচুর ধোঁয়া দেখতে পান। ধোঁয়া মানেই আমরা ধরে নিই, কোথাও না কোথাও আগুন লেগেছে। সেজন্য আমরা সঙ্গে সঙ্গে ট্রেনটিকে থামিয়ে, পাওয়ার অফ করে দিই। তারপর মোটরম্যান কেবল দিয়ে একজন একজন করে যাত্রীকে বের করে প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা হয়। স্টেশনে যে জলের ব্যবস্থা মজুত থাকে তাই দিয়ে স্টেশনকর্মীরা আগুন নিভিয়ে দেন। সন্ধে ছ'টার আগেই সমস্ত যাত্রীদের ট্রেনের ভিতর থেকে বের করে আনা হয়েছে। এটা দুর্ঘটনা তো অবশ্যই বলব, কিন্তু সবাই সুস্থ আছেন, সেটা জেনে নিশ্চিন্ত।

এই দুর্ঘটনার জন্য মেট্রো কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গুরুতর গাফিলতির অভিযোগ আনেন যাত্রীরা! জানান, '' ধোঁয়া দেখার পরও ট্রেন ছোটান চালক। হেল্পলাইন নম্বরও কাজ করেনি, মেট্রোর তরফে কোনও ঘোষণাও হয়নি।''

প্রবল আতঙ্কের মধ্যে যাত্রীরা দরজা ভাঙার চেষ্টা করেন। কাচ ভেঙেও বেরনোর চেষ্টা করেন অনেকে। যথারীতি মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে সবটাই নাকি স্বাভাবিক। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ঘটনাস্থলে পৌঁছন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। দুর্ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ টালিগঞ্জ থেকে সেন্ট্রাল পর্যন্ত মেট্রো বন্ধ ছিল।

আরও পড়ুন-'' জানলা না ভাঙলে সব যাত্রীই সাফোকেশনে মারা যেতেন ''

First published: December 27, 2018, 11:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर