কলকাতা

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

৯০ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ ফিরেছে, বাকি জায়গায় জল না সরলে বিদ্যুতের কাজ সম্ভব নয়: মমতা

৯০ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ ফিরেছে, বাকি জায়গায় জল না সরলে বিদ্যুতের কাজ সম্ভব নয়: মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

ঘূর্ণিঝড়ের বিপর্যয়ের পরবর্তী অবস্থায় মোকাবিলায় যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ চলছে ৷

  • Share this:

#কলকাতা: ভয়ঙ্কর তাণ্ডব চালিয়ে বিদায় নিয়েছে আমফান ৷ আমফানের ধ্বংসলীলার সবে এক সপ্তাহ ৷ এখনও বিপর্যয়ের ক্ষতি সামলে উঠতে পারেনি রাজ্যবাসী ৷ ঘূর্ণিঝড়ের বিপর্যয়ের পরবর্তী অবস্থায় মোকাবিলায় যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ চলছে ৷ নেমেছে সেনা ৷ পুরোদমে কাজ চালাচ্ছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীও ৷ বুধবার নবান্ন থেকে প্রশাসনিক বৈঠেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ৯০ শতাংশ এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব হয়েছে ৷ তবে গ্রামের দিকে বহু জায়াগায় এখনও বিদ্যুৎ ফেরানো সম্ভব হয়নি ৷ বহু জায়গায় জল জমে থাকায় বিদ্যুতের কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না ৷

শহর ও শহরতলি অনেকটা সামলে উঠলেও মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সুন্দরবন ৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ ৮টি জেলায় ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ৷ উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বেশি ক্ষতি ৷ সুন্দরবনের সর্বনাশ হয়ে গিয়েছে ৷ সুন্দরবন,নামখানায় বাঁধের অবস্থা খারাপ ৷ সাড়ে ৪ লক্ষ বিদ্যুতের খুঁটি পড়েছে আমফানে ৷ বিকল ট্রান্সফর্মার ৷ নোনা জলে ডুবে রয়েছে বহু এলাকা ৷ যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ চললেও জল না নামায় বিদ্যুতের খুঁটি বসানো যাচ্ছে না ৷’ বিদ্যুৎ না থাকায় বেসরকারি সংস্থা সিইএসসি-র ব্যর্থতার দায়ও রাজ্য সরকারের উপর চাপিয়ে দেওয়া নিয়েও আক্ষেপের সুর শোনা যায় মুখ্যমন্ত্রী গলায়৷ তিনি বলেন, ‘সিপিএমের আমলে সিইএসসিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। একটি বেসরকারি সংস্থা ৷ কিন্তু এই পরিস্থিতিতে সেটা নিয়েও রাজনীতি শুরু হয়ে গেল।’

Published by: Elina Datta
First published: May 27, 2020, 7:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर