• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BJP HIGHER LEADERSHIP GAVES POWER TO DILIP GHOSH FOR PARTY RESTRUCTURE SB

Dilip Ghosh: দিল্লির নেতাদের সঙ্গে ঘনঘন ফোন, বদল নিয়ে মুখ খুললেন দিলীপ! গুঞ্জন বিজেপিতে

দিলীপে ভরসা

Dilip Ghosh: আপাতত ঠিক হয়েছে, আপাতত দিলীপ ঘোষকে সামনে রেখেই সাংগঠনিক রদবদলের পথে হাঁটবে বিজেপি।

  • Share this:

#কলকাতা: তাঁর নেতৃত্বেই 'সাফল্য' পেয়েছে বিজেপি। বঙ্গে ক্ষমতা দখলের স্বপ্ন দেখলেও তা পূরণ হয়নি বটে, তবে ১৮ সাংসদ ও ৭৭ বিধায়ক নিয়ে বাংলার বিরোধী দল এক এবং একমাত্র এখন বিজেপি। আর এই উত্থানের ক্ষেত্রে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ভূমিকার কথা অনস্বীকার্য। বাংলার ভোট প্রচারে এসে স্বয়ং নরেন্দ্র মোদিও তারিফ করেছেন দিলীপ ঘোষের সাংগঠনিক দক্ষতার। কিন্তু রাজ্য সভাপতি পদে দিলীপের মেয়াদ শেষ হচ্ছে এ বছরই। বিজেপির রীতি অনুযায়ী, দুবার রাজ্য সভাপতির পদে বসলে আর ওই পদ আঁকড়ে থাকা যায় না। তাই দলীয় নিয়মেই সরে যাওয়ার কথা দিলীপ ঘোষের। কিন্তু তাঁর জায়গায় কে বসবেন, এ নিয়ে বঙ্গ বিজেপির অন্দরে চর্চা কম নেই। কিন্তু দিলীপ ঘোষের বিকল্প কি আছে বঙ্গ বিজেপিতে? সূত্রের খবর, সেই বিষয়টিই ভাবাচ্ছে দিল্লির নেতাদের। তাই আপাতত ঠিক হয়েছে, আপাতত দিলীপ ঘোষকে সামনে রেখেই সাংগঠনিক রদবদলের পথে হাঁটবে বিজেপি।

সোমবার কলকাতায় বৈঠকে বসছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্বে। সাংগঠনিক রদবদলের বিষয়টিও সেখানে উঠে আসবে বলে খবর। আর তার আগেই দিল্লির নেতাদের সঙ্গে একাধিকবার কথা হয়েছে দিলীপ ঘোষের। বিজেপি সূত্রের খবর, আপাতত দিলীপ ঘোষকে সরানোর কোনও পরিকল্পনা নেই। তবে, দলকে মজবুত করতে সাংগঠনিক রদবদল করা হবে। আর সেই রদবদলের রাশ থাকছে দিলীপ ঘোষের হাতেই। তিনদিন ব্যাপী হতে চলা এই বৈঠকে উত্তরবঙ্গ ও নদিয়া জেলাকে বাদ রাখা হয়েছে। দিলীপ ঘোষও বলেছেন, 'আমাদের দলে অনেক নতুন লোক এসেছেন। আমরা বিরোধী দল হয়েছি। এবার আমাদের রদবদল করা হতেই পারে। পরিবর্তন সময়েরই নিয়ম।'

যদিও বিজেপি সূত্রের খবর, দিন কয়েক আগেই দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা দিলীপ ঘোষের কাছে দলের নতুন রাজ্য সভাপতির জন্য নাম প্রস্তাব করতে বলেন। জানা যায়, বিজেপির রাজ্য সভাপতি পদে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারের নাম প্রস্তাব করেছিলেন দিলীপ নিজেই। সেই তালিকায় আরও কিছু নাম থাকলেও সুকান্তর নাম নিয়েই চর্চা হয়েছিল বেশি। বিজেপির অন্দরে সুকান্ত দিলীপ-ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত। যদিও অন্যান্য অনেকের তুলনায় সুকান্ত তেমন পরিচিত মুখ নন। তবে, নিজের এলাকায় বারবার সাংগঠনিক দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি।

কিন্তু দিলীপ ঘোষের বিকল্প কি হয়ে উঠতে পারবেন এই মুহূর্তে বঙ্গ বিজেপির আর কোন নেতা? ২০২২-এর ডিসেম্বর মাসে রাজ্য সভাপতির মেয়াদ শেষ হচ্ছে দিলীপ ঘোষের। দু'বার রাজ্য সভাপতি পদে রয়েছেন দিলীপ। তাই দলীয় নীতিতেই তিনি আর রাজ্য সভাপতি পদে থাকতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে সভাপতি পদ যাওয়ার পর দিলীপ ঘোষকে পুরস্কৃত করা উচিৎ বলে মত অনেকের। কারও কারও ধারণা ছিল, নরেন্দ্র মোদির দ্বিতীয় মন্ত্রিসভা সম্প্রসারণে জায়গা হতে পারে দিলীপের, কিন্তু তাও হয়নি। সেক্ষেত্রে আরও কিছুদিন দিলীপকেই সংগঠনের মুখ রেখে দিতে চাইছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব, সূত্রের খবর এমনটাই।

Published by:Suman Biswas
First published: