• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BJP CRITICIZES ELECTION COMMISSION FOR ANNOUNCING BYE ELECTION ONLY IN BHAWANIPORE DMG

BJP attacks Election Commission: তামাশা করছে কমিশন, শুধু ভবানীপুরের উপনির্বাচনে ক্ষোভ বিজেপি-র! পুরভোট কবে, প্রশ্ন তুলল সিপিএম

উপনির্বাচন নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সিপিএম- বিজেপি-র৷

বানীপুর সহ তিন কেন্দ্রে ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়েই কার্যত প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (BJP attacks Election Commission)৷

  • Share this:

    #কলকাতা: ভবানীপুর, সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুর- এই তিন কেন্দ্রে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর উপনির্বাচন ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন৷ রাজ্যের মোট সাতটি বিধানসভা কেন্দ্র এই মুহূর্তে বিধায়কশূন্য অবস্থায় রয়েছে৷ যদিও বাকি চার কেন্দ্রে ভোট ঘোষণা করা হয়নি৷ আর এই বিষয়টিকে সামনে এনেই নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি৷ উপনির্বাচনকে স্বাগত জানিয়েও সিপিএমের প্রশ্ন, রাজ্যে বাকি থাকা পুরভোট কবে হবে?

    প্রথম থেকেই এখনই রাজ্যে উপনির্বাচনের বিরোধিতা করে এসেছে বিজেপি৷ ভবানীপুর সহ তিন কেন্দ্রে ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়েই কার্যত প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ সামশেরগঞ্জ এবং জঙ্গিপুরে ভোট স্থগিত হয়ে গিয়েছিল৷ এই দুই কেন্দ্র নিয়ে প্রশ্ন না তুললেও শুধু ভবানীপুরে উপনির্বাচন নিয়েই যে তাঁদের আপত্তি, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি৷

    দিলীপ ঘোষ বলেন, 'সাতটা কেন্দ্রে ভোট হওয়ার কথা ছিল৷ শুধু তিনটেতে কেন হচ্ছে বুঝতে পারলাম না৷ মুর্শিদাবাদের দুটো কেন্দ্রে ভোট বাকি ছিল, সেখানে ভোট হচ্ছে ঠিক আছে৷ কিন্তু শুধু ভবানীপুরে উপনির্বাচন কেন? বাকি তিনটেতে কেন হচ্ছে না? ভোটের পর তো গোটা পশ্চিমবঙ্গে একই পরিস্থিতি আছে৷ তার পরেও কেন এমন সিদ্ধান্ত? আর যখনই, যেখানে ভোট হোক না কেন রাজনৈতিক দলকে প্রস্তুত থাকতে হয়, আমরাও আছি৷ কিন্তু ভবানীপুরে এর আগের বার ভোটের সময় প্রার্থীর উপরে শারীরিক আক্রমণ হয়েছিল৷ তাহলেই বোঝা যাচ্ছে যে ওখানকার পরিস্থিতি কতটা শান্তিপূর্ণ৷'

    কমিশনের বিরুদ্ধে কার্যত তোপ দেগে বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, 'কমিশনের আচরণ, ঘোষণার প্রশংসা করার অধিকার যেমন প্রতিটি রাজনৈতিক দলের আছে, তেমনই সমালোচনা করার অধিকারও আছে৷ কমিশনের এই সিদ্ধান্ত, ঘোষণা গোটা পরিস্থিতিকে কার্যত তামাশায় পরিণত করেছে৷ শুধু একটি মাত্র কেন্দ্রে উপনির্বাচন কেন? কমিশন সেটা মানুষের সামনে ব্যাখ্যা করুক৷'

    নির্বাচন কমিশন সূত্রে অবশ্য খবর, ভবানীপুরে সময় মতো উপনির্বাচন না হলে রাজ্যে সাংবিধানিক সংকট তৈরি হতে পারত৷ সেই কারণেই শুধুমাত্র ভবানীপুরে উপনির্বাচন করিয়ে নেওয়া হচ্ছে৷  রাজ্যের মুখ্যসচিবের পরামর্শেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কমিশন সূত্রে খবর৷

    অন্যদিকে সিপিএম উপনির্বাচনের দিন ঘোষণাকে স্বাগত জানালেও পুরভোট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে৷ সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, 'আমরা চেয়েছিলাম সময় মতো নির্বাচন হোক৷ সেটা যে কোনও নির্বাচনই হোক না কেন৷ বামফ্রন্ট সময়ে বিধানসভা, লোকসভা থেকে শুরু করে পুরসভা, পঞ্চায়েত সব নির্বাচনই সময়ে হয়েছে৷ রাজ্যে পুরসভাগুলির মেয়াদ ফুরনোর পরে তো দু' থেকে তিন বছর কেটে গিয়েছে৷ পুরভোট কবে হবে রাজ্য সরকার এবং রাজ্য নির্বাচন কমিশন তা স্পষ্ট করুক৷'

    নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে স্বভাবতই স্বাগত জানিয়েছেন পরিবহণ মন্ত্রী এবং কলকাতা পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের প্রধান ফিরহাদ হাকিম ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে বলেন, 'এর পরবর্তী ধাপ নিশ্চিত ভাবে পুরভোট৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: