Home /News /kolkata /
Babul Supriyo: সব জল্পনা শেষে বালীগঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী, আদৌ কতটা খুশি? বাবুল সুপ্রিয় বললেন...

Babul Supriyo: সব জল্পনা শেষে বালীগঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী, আদৌ কতটা খুশি? বাবুল সুপ্রিয় বললেন...

কী বললেন বাবুল?

কী বললেন বাবুল?

Babul Supriyo: একসময় ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। কিন্তু সেই পদ চলে যেতেই বিজেপি ছাড়েন বাবুল সুপ্রিয়। এবার রাজ্যের বিধানসভায় যাওয়ার সুযোগ।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিজেপি ত্যাগ আর তৃণমূলে যোগদান করার সময়ই তিনি বলেছিলেন, 'আমি প্রথম এগারোর প্লেয়ার'। তাই আসানসোলের প্রাক্তন সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় (Babul Supriyo) যখন তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন, রাজনৈতিক মহলের অনেকেই ভেবেছিলেন, বড় পদ পাওয়ার নিশ্চিয়তা নিয়েই পদ্ম ছেড়ে ঘাসফুলে গিয়েছেন বাবুল। মাঝে নানা গুঞ্জন ছড়ালেও বাবুলকে ঠিক মূলস্রোতের রাজনীতিতে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। কলকাতার মেয়র পদে তাঁর নাম ভেসে উঠলেও অচিরেই সেই গুঞ্জন ভুল প্রমাণিত হয়। কিন্তু আর দেরি নয়, এবার সম্ভবত বাবুলকে আনা হতে চলেছে রাজ্য মন্ত্রিসভায়। আর সেই সূত্রেই বালীগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে বাবুলকে প্রার্থী ঘোষণা করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনৈতিক মহল তাই বলছে, শেষমেশ বাবুলকে নিয়ে জল্পনায় ইতি ঘটতে চলেছে।

    একসময় ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। কিন্তু সেই পদ চলে যেতেই বিজেপি ছাড়েন বাবুল সুপ্রিয়। এবার রাজ্যের বিধানসভায় যাওয়ার সুযোগ। কেমন লাগছে? নিউজ 18 বাংলা-কে বাবুল বলেন, ''মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমি অসংখ্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তিনি আমাকে মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ দিলেন আরও একবার। পুরনো কথা কিছু বলতে চাই না। তবে, আমি আহত হয়ে রাজনীতি ছেড়েছিলাম। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে বলেছিলেন, বাংলার মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। সেই সুযোগ তিনি আমায় দিলেন।''

    আরও পড়ুন: উপনির্বাচনে বিরাট চমক তৃণমূলের! দাঁড়াচ্ছেন বাবুল সুপ্রিয়, আসানসোলে কিন্তু অন্য বড় নাম

    আর আসানসোল থেকে একেবারে প্রয়াত সুব্রত মুখোপাধ্য়ায়ের আসন বালীগঞ্জ! কতটা উত্তেজিত বাবুল। তাঁর জবাব, ''বালীগঞ্জ আসনের আলাদা গুরুত্ব আছে। আমি খুবই আনন্দিত। বালীগঞ্জ আমার প্রিয় জায়গা। আগামী কয়েকদিন এবং তার পর থেকে টানা কাজ করে যাব মানুষের জন্য।''

    আরও পড়ুন: ডাস্টবিনে ফেলছিলেন একটি ব্যাগ, তার মধ্যে এ কী! বড় অভিযোগে বইমেলায় গ্রেফতার বলিউড অভিনেত্রী

    প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীপদ খুইয়ে বাবুল সুপ্রিয় ঘোষণা করে দিয়েছিলেন, আর রাজনীতি করবেন না তিনি। সেইসঙ্গে ঘোষণা করেছিলেন, তাঁর নির্দিষ্টভাবে একটাই দল, একটা বিশ্বাসেই তাই তিনি বিশ্বাসী থাকতে চান। কিন্তু প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সেই ঘোষণা বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে BJP ছেড়ে সরাসরি তিনি যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে। কিন্তু এর পর? বাবুল নিজেও বারবার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, ধৈর্য ধরতে হবে। মাঝে নানা সাংগঠনিক দায়িত্বে বাবুলকে রাখা হলেও বড় পদ অধরাই ছিল বাবুলের। এবার সেই ঘাটতি মিটতে চলেছে।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Babul supriyo, TMC

    পরবর্তী খবর