• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • BABUL SUPRIYO MAKES IT CLEAR THAT HE WILL NOT CAMPAIGN IN BHABANIPUR DMG

Babul Supriyo will not campaign in Bhabanipur: প্রশংসা করলেও প্রচার নয়, ভবানীপুরে প্রিয়াঙ্কার অনুরোধ ফেরালেন বাবুল

প্রিয়াঙ্কার অনুরোধ ফেরালেন বাবুল৷

ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালকে প্রার্থী করেছে বিজেপি৷ দলীয় সূত্রে খবর, এ দিন বাবুলের সঙ্গে ফোনে কথা হয় প্রিয়াঙ্কার ()৷

  • Share this:

প্রত্যক্ষ রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন৷ শুধু সাংসদ হিসেবে নিজের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন৷ এ হেন বাবুল সুপ্রিয়র নাম ভবানীপুরের উপনির্বাচনের জন্য বিজেপি-র তারকা প্রচারকদের তালিকায় দেখে চমকে উঠেছিলেন অনেকেই৷ বাবুল অবশ্য স্পষ্ট করে দিলেন, ভবানীপুরে বিজেপি-র হয়ে প্রচার করবেন না তিনি৷

ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালকে প্রার্থী করেছে বিজেপি৷ দলীয় সূত্রে খবর, প্রার্থী হওয়ার পর বাবুলের সঙ্গে ফোনে কথা হয় প্রিয়াঙ্কার৷ ভবানীপুরের বিজেপি-কে প্রার্থীকে উপনির্বাচনের জন্য শুভেচ্ছাও জানান আসানসোলের সাংসদ৷ সূত্রের খবর, ফোনে কথোপকথনের মাঝেই বাবুলকে তাঁর হয়ে ভবানীপুরে প্রচারে আসার জন্য অনুরোধ করেন প্রিয়াঙ্কা৷ কিন্তু বাবুল স্পষ্ট জানিয়ে দেন, যেহেতু তিনি কোনও দলীয় রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত থাকতে চান না, তাই ভবানীপুরে প্রচারে থাকতে পারবেন না৷

একসময়ে বাবুল সুপ্রিয়র আইনি উপদেষ্টা ছিলেন পেশায় আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা৷ ব্যক্তিগত পরিচয়ের সূত্রেও বাবুলকে ভবানীপুরে প্রচারে আসতে অনুরোধ করেন তিনি৷ যদিও সেই অনুরোধও ফিরিয়ে দেন আসানসোলের সাংসদ৷

বাবুলের ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, আসানসোলের সাংসদের অনুমতি না নিয়েই তাঁর নাম তারকা প্রচারকদের তালিকায় ছাপিয়ে দেওয়া হয়েছিল৷ তা নিয়ে ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভও প্রকাশ করেন বাবুল৷ প্রসঙ্গত, ভবানীপুরের জন্য বিজেপি-র তারকা প্রচারকদের তালিকায় আট নম্বরে ছিল বাবুল সুপ্রিয়র নাম৷

তবে প্রিয়াঙ্কার নাম ভবানীপুরের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হওয়ার পরই তাঁর প্রশংসা করে ট্যুইটও করেন বাবুল সুপ্রিয়৷ আসানসোলের সাংসদ দাবি করেন, প্রিয়াঙ্কার দৃঢ় মানসিকতা দেখে তিনিই তাঁকে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার জন্য জোর করেছিলেন৷ তাই প্রিয়াঙ্কা ভবানীপুরের মতো কেন্দ্রে প্রার্থী হওয়ায় তিনি খুশি৷

গত বিধানসভা নির্বাচনে টালিগঞ্জ কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়েও পরাজিত হন বাবুল সুপ্রিয়৷ এর পর কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকেও বাদ পড়েন৷ তার কয়েক দিনের মধ্যেই সক্রিয় রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নেন আসানসোলের সাংসদ৷ সিদ্ধান্ত বদলের জন্য বাবুলকে বুঝিয়েছিলেন অমিত শাহ সহ দলের শীর্ষ নেতারাও৷ কিন্তু তার পরেও নিজের সিদ্ধান্তেই অনড় থেকে যান বাবুল৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published: