Home /News /kolkata /
Arpita Mukherjee | Partha Chatterjee: কবে থেকে পার্থর সঙ্গে যোগাযোগ? কীভাবে ঘনিষ্ঠতা? ইডির কাছে 'সব' বললেন অর্পিতা!

Arpita Mukherjee | Partha Chatterjee: কবে থেকে পার্থর সঙ্গে যোগাযোগ? কীভাবে ঘনিষ্ঠতা? ইডির কাছে 'সব' বললেন অর্পিতা!

জুটি

জুটি

Arpita Mukherjee | Partha Chatterjee: গোটা বাংলার মানুষ যখন পার্থ-অর্পিতার ঘনিষ্ঠতার চর্চায় মেতে, ঠিক তখনই ইডির সূত্র জানাচ্ছে, পার্থর সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলেছেন অর্পিতা।

  • Share this:

    #কলকাতা: তাঁর দুটি ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে কোটি কোটি টাকা, সঙ্গে সোনার গহনা, বিদেশি মুদ্রা সহ আরও দামী নানা জিনিসপত্র। তাই ইডির শত সহস্র প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। কারণ একমাত্র তাঁর উত্তরই করতে পারে শত রহস্যের সমাধান। তাই ইডির তরফে প্রতিদিন দফায় দফায় জেরা চলেছে তাঁকে। এমনকী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা কতদিনের, কেন এত সম্পত্তি দেখভালের দায়িত্ব শুধুমাত্র অর্পিতাকেই দিলেন পার্থ? এই নানা প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে অর্পিতাকে।

    গোটা বাংলার মানুষ যখন পার্থ-অর্পিতার ঘনিষ্ঠতার চর্চায় মেতে, ঠিক তখনই ইডির সূত্র জানাচ্ছে, পার্থর সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলেছেন অর্পিতা। ইডির করা জেরার মুখে পড়ে তাদের ঘনিষ্ঠতার কথা স্বীকার করেছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। ইডি সূত্রে খবর, অর্পিতা স্বীকার করেছেন যে, অসমবয়স্ক হলেও তার বন্ধু ছিলেন পার্থ।

    আরও পড়ুন: ফের দুর্নীতির অভিযোগ, এবার ১০০ দিনের কাজে! লক্ষ লক্ষ টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ

    গত ২৩ জুলাই গ্রেফতার হওয়ার পর ইডির হেফাজতেই রয়েছেন অর্পিতা। দফায় দফায় জেরা করা হয়েছে তাকে। শুধু টাকার উৎস নিয়েই নয়, পার্থর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা নিয়েও একের পর এক প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছেন অর্পিতা। জেরার মুখেই ইডি আধিকারিকদের বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটের হদিশ দিয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয় , ইডি সূত্রে এটাও জানা গেছে যে পার্থর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক তিনি অস্বীকার করেননি একটি বারের জন্য।

    আরও পড়ুন: পার্থ-পর্বে বিরাট রদবদল, সংগঠনে আমূল পরিবর্তন তৃণমূলের! বাদ বড় বড় নাম

    তার দাবি ২০১৭ সালে স্ত্রী বিয়োগের পর থেকেই তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা শুরু হয় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। তবে বন্ধুত্ব, ঘনিষ্ঠতা থাকলেও পার্থর রাজনৈতিক জীবন নিয়ে বিন্দুমাত্র আগ্রহী ছিলেন না তিনি। ইডির কাছে এমনই দাবি করেছেন অর্পিতা। তবে কি টাকার কথা তিনি অস্বীকার করছেন? সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ইডি জানায়, পুরোপুরি অস্বিকার না করলেও তিনি বলেন প্রথমে সরকারি ছাপমারা খামের ভেতর যে টাকা আছে সেটি তিনি জানতেন না।

    এই বিষয়ে অনেক পরে তিনি জানতে পারেন। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন লোক এসে তার বাড়িতে খামে ভর্তি টাকা এনে রেখে যেত। প্রাথমিকভাবে নাকি তাকে বলা হয়েছিল যে ওই সমস্ত ঝাপ মারা ঘামে নাকি রয়েছে সরকারি নথিপত্র কিন্তু পরে তিনি বুঝতে পারেন যে তাতে আসলে রয়েছে টাকা। এমনকি অর্পিতা দাবি করেছেন এই টাকা কার তিনি জানতে চেয়েছিলেন পার্থর কাছে, তখন তার জবাবে পার্থ বলেছিলেন যে টাকা যেমন আছে তেমনই যেন থাকে। প্রতি মুহূর্তে রহস্যের যত খুলছে, আবার দানাও বাঁধছে রহস্য।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Arpita Mukherjee, Partha Chatterjee Arrest, SSC Scam

    পরবর্তী খবর