দিল্লির পর এবার কলকাতাতেও ‘গোলি মারো......’, বিজেপির মিছিল থেকে উঠল বিতর্কিত স্লোগান

দিল্লির পর এবার কলকাতাতেও ‘গোলি মারো......’, বিজেপির মিছিল থেকে উঠল বিতর্কিত স্লোগান

অমিত শাহের জনসভাগামী বিজেপি মিছিল থেকেই ফের শোনা গেল গোলি মারো৷

  • Share this:

#কলকাতা: যে স্লোগান নিয়ে এত বিতর্ক, সেই ‘গোলি মারো...’ স্লোগানই বিজেপির মিছিল থেকে আবার উঠল ৷ এবার দিল্লি নয়, কলকাতার প্রকাশ্য রাস্তায় ৷ রবিবার ধর্মতলায় পুলিশের সামনেই বিজেপির মিছিল থেকে উঠল বিতর্কিত স্লোগান ৷এদিন অমিত শাহের জনসভাগামী বিজেপি মিছিল থেকেই ফের শোনা গেল গোলি মারো৷

যে স্লোগান নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি, তা আবারও শোনা গেল তিলোত্তমার রাস্তায় ৷ রবিবারের কলকাতা সাক্ষী রইল আজাদি বনাম গোলি মারো-র ৷ অমিত শাহের সভা শুরুর আগেই ধর্মতলা চত্বরে ধুন্ধুমার। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরের প্রতিবাদে, রবিবার দুপুরে গ্র্যান্ড হোটেলের সামনে বিক্ষোভে বসে পড়ুয়ারা। বিক্ষোভে যোগ দেয় বাম-কংগ্রেস সমর্থকরাও। তখন উল্টো দিক থেকে বিজেপির মিছিল আসতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি।

রবিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের শহীদ মিনারের সমাবেশ যাওয়ার পথে বিজেপির মিছিল থেকে স্লোগান উঠলো 'দেশকে গদ্দারোঁ কো, গোলি মারো শালো কো'! সেখানে চলছিল পড়ুয়াদের বিক্ষোভ কর্মসূচি ৷ অমিত শাহের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন পড়ুয়াদের একটি সংগঠন ৷ তাদের মিছিল ক্রমাগত ভেসে আসছিল আজাদি স্লোগান ৷ তারই পাল্টা প্রত্যুত্তর হিসেবে গোলি মারো ভেসে আসে বিজেপির মিছিল থেকে ৷ এরপরই বিজেপি কর্মী ও পড়ুয়াদের মধ্যে বচসা বাঁধে ৷ বিজেপি-বিক্ষোভকারী সামলাতে হিমশিম খায় পুলিশ ৷

উল্লেখ্য, দিল্লি নির্বাচনের প্রচারের সময় এই স্লোগান নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি৷ দিল্লিতে প্রচার করতে এসে অনুরাগ ঠাকুর সভায় দাঁড়িয়ে এই স্লোগান দেওয়ায় নির্বাচন কমিশন তাঁকে প্রচার থেকে বিরত করে৷ তাই নিয়ে বিরোধীরাও কথা বলতে ছাড়েনি৷এমনকী দিল্লি নির্বাচনে ভরাডুবির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ স্বীকারও করেন, 'গুলি মারো' মন্তব্য করা উচিত হয়নি৷ কিন্তু এদিন ফের কলকাতায় অমিত শাহের সভার দিনেই শোনা গেল বিতর্কিত গোলি মারো স্লোগান ৷

First published: March 1, 2020, 4:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर