ফের কলেজ ক্যাম্পাসে ভোটের দামামা, ১৪ নভেম্বর প্রেসিডেন্সিতে নির্বাচন

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী, দশদিন আগে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ভোটের দিন ঘোষণা করল প্রেসিডেন্সি ৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 21, 2019 05:30 PM IST
ফের কলেজ ক্যাম্পাসে ভোটের দামামা, ১৪ নভেম্বর প্রেসিডেন্সিতে নির্বাচন
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 21, 2019 05:30 PM IST

#কলকাতা: প্রায় আড়াই বছর পর নির্বাচনের দামামা ফের বাজল প্রেসিডেন্সি ক্যাম্পাসে ৷ ছাত্রভোট নিয়ে রাজ্যের সবুজ সঙ্কেত আসতেই প্রথম ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দিন ঘোষণা করল প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় ৷ আগামী ১৪ নভেম্বর প্রেসিডেন্সিতে ছাত্র ভোট ৷

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী, দশদিন আগে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ভোটের দিন ঘোষণা করল প্রেসিডেন্সি ৷ ছাত্র সংসদের ৫টি পদের জন্য নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় ৷ ১৪ নভেম্বর ভোটের মাধ্যমে পড়ুয়ারা সভাপতি, সহ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক,সহ সম্পাদক ও ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ পদে নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচন করবে ৷ ভোচের দিন ঘোষণার পর থেকেই ক্যাম্পাস জুড়ে কড়া নিরাপত্তা ৷ কলেজে  বহিরাগত ঢোকায় নিষেধাজ্ঞা ৷ এমনকি প্রচারেও থাকতে পারবেন না কোনও বহিরাগত, নিয়ম জারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৷

গত বৃহস্পতিবার ছাত্রভোট নিয়ে নীতি বদল করে রাজ্য। যাদের অধীনে কলেজ নেই, এমন চারটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আপাতত ছাত্রভোট করার নির্দেশ দিয়েছে উচ্চশিক্ষা দফতর।বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়  ছাত্রভোট করতে পারবে যাদবপুর, প্রেসিডেন্সি, রবীন্দ্রভারতী। নিয়ম ও ভোটের দিন করার বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উপরই ছেড়ে দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ৷ সোমবার বৈঠকে বসে প্রেসিডেন্সি কর্তৃপক্ষ ঠিক করে ১৪ নভেম্বর হবে ছাত্রভোট।

রাজ্যে শেষ বার ছাত্রভোট হয়েছিল ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে। ছাত্র সংসদের নির্বাচন ঘিরে বিভিন্ন কলেজে অশান্তির প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী দাওয়াই দেন, সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজের মডেলে অরাজনৈতিক ছাত্র কাউন্সিল গড়ার। পরে বিধানসভায় বিল এনে সরকার সেই কাউন্সিল গড়ার সিদ্ধান্ত নিলেও এখনও তা গড়া হয়নি। ছাত্র কাউন্সিলের বিরোধিতাতেও নামে বিরোধী দলের ছাত্র সংগঠনগুলি। তৃণমূলের ছাত্র সংগঠন টিএমসিপি’ও রাজনৈতিক ছাত্র সংসদেরই পক্ষে। এই প্রেক্ষাপটেই আপাতত রাজ্যের চার বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ভোট করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। প্রেসিডেন্সিতে মূলত পাঁচটি পদের জন্য লড়াই হবে।

First published: 03:36:07 PM Oct 21, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर