KKR vs SRH: স্পিনারের ছড়াছড়ি দুই দলে, আজ চিপকে বল ঘুরলেই বাজি কেকেআরের!

KKR vs SRH: স্পিনারের ছড়াছড়ি দুই দলে, আজ চিপকে বল ঘুরলেই বাজি কেকেআরের!

এখনও পর্যন্ত একে অপরের বিরুদ্ধে ১৯ টি ম্যাচ খেলেছে কলকাতা ও হায়দরাবাদ।

এখনও পর্যন্ত একে অপরের বিরুদ্ধে ১৯ টি ম্যাচ খেলেছে কলকাতা ও হায়দরাবাদ।

  • Share this:

    #চেন্নাই: এর আগে কখনও চিপকে কেকেআর বনাম হায়দরাবাদের ম্যাচ হয়নি। ফলে আজকের ম্যাচে কোন দলের পাল্লা ভারি, সেটা বলা কিছুটা মুশকিল। তবে গত মরশুমের নিরিখে বললে, হায়দরাবাদকে প্রথম ম্যাচে হারিয়েছিল কেকেআর। তবে শেষ পর্যন্ত গতবার কেকেআর প্লে-অফের টিকিট পায়নি। নেট রান রেট-এর হিসাবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর চলে যায় প্লে-অফে। এখনও পর্যন্ত একে অপরের বিরুদ্ধে ১৯ টি ম্যাচ খেলেছে কলকাতা ও হায়দরাবাদ। তার মধ্যে ১২ টি জিতেছে কলকাতা। সাতটি হায়দরাবাদ। পরিসংখ্যানের নিরিখে বলা যায়, কেকেআরের পাল্লা ভারি। তার উপর গতবারের থেকে এবার কেকেআর-এর টিম অনেক বেশী ব্যালান্সড।

    এমনিতে চিপকের উইকেট স্পিন-সহায়ক বলে শোনা যায়। তবে এই উইকেটে আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর বিরুদ্ধে আরসিবির পেসার হর্ষল প্যাটেল পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন। ফলে আজ প্রথম একাদশ নির্বাচনে যথেষ্ট বেগ পেতে হবে কেকেআর ও হায়দরাবাদকে। এমনিতে দুই দলেই স্পিনারের ছড়াছড়ি। হরভজন সিং, শাকিব আল হাসান, সুনীল নারিন, বরুণ চক্রবর্তীর মতো স্পিনার রয়েছে কেকেআরে। উল্টোদিকে হায়দরাবাদের স্পিন বিভাগের দায়িত্বে আফগানিস্তানের রশিদ খান। এছাড়া মুজিবুর রহমান ও শাহবাজ নাদিম রয়েছেন দলে। প্রথম ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও আরসিবির ম্যাচে ১৭টি উইকেট পড়েছিল। তার মধ্যে ১১ টি পেয়েছিলেন পেসাররা। স্পিনাররা পেয়েছিলেন মাত্র দুটি উইকেট। এবার দেখার আজকের ম্যাচে চিপকের উইকেট থেকে স্পিনাররা সাহায্য পাবেন কিনা!

    চিপক এখনও পর্যন্ত নটি ম্যাচ খেলেছে কেকেআর। তার মধ্যে সাতটি হেরেছে তারা। ২০১২ সালে এই উইকেটে ম্যাচ জিতেছিল নাইটরা। তার মধ্যে ছিল ফাইনাল ম্যাচ। এখানেই প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কলকাতা। হায়দরাবাদ এখানে তিনটি ম্যাচ খেলেছে। চেন্নাইয়ের কাছে তিনটি ম্যাচেই হেরেছে তারা। আজ কেকেআরের বিরুদ্ধে ভুবনেশ্বর কুমার বড় বিপদ ডেকে আনতে পারেন। কারণ কলকাতার বিরুদ্ধে তাঁর রেকর্ড বরাবরই ভয়ানক। এখনো পর্যন্ত কেকেআরের বিরুদ্ধে নেমে ২৭টি উইকেট পেয়েছেন তিনি। তবে কলকাতার ফায়দা হতে পারে হরভজন সিংকে নিয়ে। ২০১৯-এ চেন্নাইয়ের এই উইকেটে কার্যকরী হয়েছিলেন তিনি। হাতের তালুর মতো তিনি চিপকের উইকেট চেনেন।

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    লেটেস্ট খবর