IPL 2021: নাটকীয় ম্যাচে শেষ বলে মুম্বইকে হারাল আরসিবি

IPL 2021: নাটকীয় ম্যাচে শেষ বলে মুম্বইকে হারাল আরসিবি

দুর্ধর্ষ মেজাজে ব্যাট করলেন এবি ডি ভিলিয়ার্স

দুই বল বাকি থাকতে দু রান নিতে গিয়ে ৪৮ রানে রান আউট হলেন ডিভিলিয়ার্স।শেষ বল পর্যন্ত গড়াল নাটকীয় ম্যাচ

  • Share this:

    আরসিবি জয়ী ২ উইকেটে

    #চেন্নাই: এবি ডি ভিলিয়ার্স যেদিন খেলবেন সেদিন বিপক্ষ বোলারদের দেখা ছাড়া কিছু করার থাকবে না। সেটাই নিয়ম, সেটাই ভবিতব্য। এদিন যেমন ম্যাচের মাঝামাঝি সময়ে আরসিবি চাপে পড়ে গেলেও বরফ-শীতল মানসিকতায় এবং অসামান্য দক্ষতায় ম্যাচ বের করে আনলেন মুম্বইয়ের কবল থেকে। বুঝিয়ে দিলেন কেন তাঁকে জিনিয়াস বলা হয়। বুমরার চতুর্থ ওভারে যেভাবে রান তুললেন তাতেই ম্যাচের ভবিতব্য নির্ধারিত হয়ে গেল।বয়স বেড়েছে, কিন্তু দক্ষতা একই আছে।মুম্বইয়ের দেওয়া ১৫৯ রান তাড়া করতে নেমে আরসিবির শুরুটা ছিল বেশ ভাল। বিরাট কোহলির সঙ্গে শুরু করেছিলেন ওয়াশিংটন সুন্দর।

    ১০ রান করে সুন্দর ফিরে গেলেও বিরাট কোহলি নিজের ছন্দে ব্যাট করছিলেন। রজত পতিদার ৮ করে ফিরে গেলেন বোল্টের বলে বোল্ড হয়ে। এলেন ম্যাক্সওয়েল। এসেই রুদ্র মূর্তি ধারণ করলেন। ৩৯ রানের ইনিংস সাজানো ছিল তিনটি বাউন্ডারি এবং দুটি ওভার বাউন্ডারি দিয়ে। একটা ছক্কা হাঁকালেন ১০০ মিটার। মনে হচ্ছিল সহজেই সময়ের অনেক আগে ম্যাচ বের করে নেবে আরসিবি। কিন্তু ম্যাক্সওয়েল ফিরে গেলেন জেনসেনের বলে। ধরা পড়লেন লিনের হাতে। বিরাট নিজে এলবি হলেন বুমরার বলে। তাঁর সংগ্রহ ৩৩।

    শাহবাজ তাড়াতাড়ি ফিরে গেলেও ড্যান ক্রিশ্চিয়ানকে নিয়ে লড়াই জারি রাখেন ডিভিলিয়ার্স। প্রথাগত ক্রিকেটের বাইরে শট খেলার জন্য বিখ্যাত তিনি। সেরকমই কিছু শট খেললেন এদিন। ড্যান ক্রিশ্চিয়ান ফিরে গেলেন বলে ১ করে। বুমরার বলে পয়েন্টে ক্যাচ ধরলেন চাহার। আইপিএলের 'এল ক্লাসিকো'। বিরাট কোহলি বনাম রোহিত শর্মা। মুম্বই বনাম বেঙ্গালুরু। লাল বনাম নীলের লড়াই। যদিও চ্যাম্পিয়নশিপের বিচারে দুই দলের লড়াই চলে না, তবুও একাধিক দুরন্ত ক্রিকেটার থাকাটা দুই দলের প্রধান আকর্ষণ।

    একদিকে যদি থাকেন রোহিত শর্মা, সূর্যকুমার, পোলার্ড, হার্দিক পান্ডিয়া র মত তারকা, অন্যদিকে বিরাট কোহলি, ওয়াশিংটন, সিরাজ, জেমিসন দের মত তারকা। পয়সা উসুল ছাড়া আবার কী? উদ্বোধনী ম্যাচে টস জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর বিরাট কোহলির মুখে বড় হাসি দেখা দিয়েছিল। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ জিতলেও টসে বারবার হারতে হয়েছিল বিরাটকে। কুইন্টন ডি কক কোয়ারেন্টাইন পর্ব কাটাচ্ছেন, তাই এদিন খেলতে পারেননি। রোহিতের সঙ্গে মুম্বইয়ের হয়ে ওপেন করেন ক্রিস লিন। দুজনে মিলে বেশ ভাল শুরু করেছিলেন। যদিও চিদাম্বরম স্টেডিয়ামের উইকেটে বল পড়ে ধীরে আসছিল ব্যাটে।

    রোহিত একটি বাউন্ডারি এবং একটি ওভার বাউন্ডারি মেরে সবে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। এমন সময় ব্যক্তিগত ১৯ রানের মাথায় রান আউট হয়ে ফিরে যেতে হল মুম্বই অধিনায়ককে। লিনের ভুল কলে সারা দিয়ে ভুল করলেন রোহিত। বিরাটের থ্রো ধরে উইকেট ভেঙে দিলেন চাহাল। মুখে ষ্পষ্ট হতাশা নিয়ে ফিরে গেলেন হিটম্যান। সূর্যকুমার এসেই প্রথম বলে বাউন্ডারি মারলেন। লিন এবং সূর্য মিলে ৭০ রানের পার্টনারশিপ গড়লেন।

    জেমিসনের বলে ৩১ করে উইকেটের পেছনে ধরা পড়লেন সূর্য। লিন মাত্র ১ রানের জন্য অর্ধশতরান হাতছাড়া করলেন। ওয়াশিংটনের বলে মারতে গিয়ে সোজা ওপরে উঠে গেল বল। পেছনদিকে অনেকটা দৌড়ে দুর্দান্ত ক্যাচ নিলেন ওয়াশিংটন নিজেই। হার্দিক পান্ডিয়া দুটি বাউন্ডারি মারলেও হার্শাল প্যাটেলের বলে এলবি হয়ে ফিরে গেলেন ১৩ করে। প্রায় একটা ফুলটস বল লাইন মিস করে আউট হলেন। ঈশান কিষান ফিরে গেলেন ২৮ করে। দুটি বাউন্ডারি এবং একটি ওভার বাউন্ডারি মারলেন ঈশান। প্যাটেলের বলে এলবি হয়ে ফিরলেন। শেষ তিন ওভার পোলার্ড এবং ক্রুনাল চেষ্টা করে গেলেন মুম্বইয়ের রান বাড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার।

    কিন্তু দিনটা মুম্বইয়ের ছিল না। টুর্নামেন্টের নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরে শুরু করার ট্রেন্ড বজায় রাখল পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা।দুই বল বাকি থাকতে দু রান নিতে গিয়ে ৪৮ রানে রান আউট হলেন ডিভিলিয়ার্স।শেষ বল পর্যন্ত গড়াল নাটকীয় ম্যাচ।এই বছরটা বিরাট কোহলির দলের হবে কিনা সেটা হয়তো সময় বলবে। কিন্তু গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জিতে শুরু করতে পারাটা অবশ্যই লাল জার্সিধারীদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: