• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • IPL
  • »
  • KKR EAGER TO GET BACK TO WINNING WAYS AGAINST RAJASTHAN ROYALS AT WANKHEDE RRC

RR vs KKR: সঞ্জুদের বিরুদ্ধে জিততে মরিয়া নাইটরা

RR vs KKR: সঞ্জুদের বিরুদ্ধে জিততে মরিয়া নাইটরা

আজ জিততে মরিয়া নাইট রাইডার্স। আলোচনায় কোচ এবং অধিনায়ক

প্রতিপক্ষ যে দলই হোক, আজ জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবা সম্ভব নয় শাহরুখ খানের দলের কাছে। শেষ ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংস দলের ২২০ রান তাড়া করে ২০২ পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছিল নাইট শিবির

  • Share this:

    #মুম্বই: দুটো দল জয় দিয়ে শুরু করেছিল আইপিএল অভিযান। কিন্তু তারপর থেকে দুজনের গ্রাফ অনেকটা একইরকম। হারের হ্যাটট্রিক করে বসে আছে কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং রাজস্থান রয়েলস। লিগ তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে কেকেআর। সবার নীচে রাজস্থান। নিজেদের শেষ ম্যাচে বিরাট কোহলির দলের কাছে ১০ উইকেটে হেরে গিয়েছে গোলাপি জার্সিধারীরা। মাঠ এবং মাঠের বাইরে একাধিক সমস্যায় জর্জরিত। অধিনায়ক সঞ্জু দুর্দান্ত শতরান করলেও তারপর থেকে ধারাবাহিকতা নেই। দায়িত্ব নিয়ে খেলতে পারছেন না। এরকম চলতে থাকলে দেশের মাটিতে হতে চলা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে তাঁর নাম বাদ পড়া সময়ের অপেক্ষা।

    বাটলার, মিলার সেভাবে জ্বলে উঠতে পারছেন না। আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ মূল্যের ক্রিকেটার মরিস ব্যাট হাতে একটা ম্যাচ দলকে জিতিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু তাঁর থেকে টানা ভাল প্রদর্শন আশা করা যায় না। মুস্তাফিজুর, জয়দেব এবং চেতন সাকারিয়া - তিন বাহাতি পেসার বোলিং বিভাগের ভরসা। রিয়ান পরাগ এবং রাহুল টেওয়াটিয়া কোন দিন ভালো খেলবেন, কোন দিন ঝোলাবেন, কেউ জানে না। পাশাপাশি লেগ স্পিনার গোপাল চূড়ান্ত ব্যর্থ। তবে রাজস্থান দলের শক্তি বা দুর্বলতা নিয়ে ভাবার সময় নেই নাইট রাইডার্স দলের।

    প্রতিপক্ষ যে দলই হোক, আজ জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবা সম্ভব নয় শাহরুখ খানের দলের কাছে। শেষ ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংস দলের ২২০ রান তাড়া করে ২০২ পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছিল নাইট শিবির। একটা সময় ৫ উইকেট হারিয়েও যেভাবে রাসেল, কার্তিক এবং প্যাট কামিন্স লড়াই চালিয়ে ছিলেন তা মন কেড়ে নেয় ক্রিকেটপ্রেমীদের। দলের লড়াকু মনোভাবের প্রশংসা করতে শোনা যায় মালিক শাহরুখ খানকে। অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যান যেমন রান করতে পারছেন না, তেমনই তাঁর অধিনায়কত্বের ধরণ কিছু প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে। সঠিক বোলিং পরিবর্তন এবং ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে ভাবতে হবে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে।

    ওপরের দিকের ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নিতে হবে। শুভমান গিল ভালো শুরু করেও লম্বা ইনিংস খেলতে পারছেন না। রানা প্রথম দুটো ম্যাচে অর্ধশতরান করলেও তারপর দুটো ম্যাচে ব্যর্থ। রাহুল ত্রিপাঠী শেষ তিনটি ম্যাচে কেন দলে আছেন উত্তর নেই। গুরকিরত মানকে দলে নিয়েছে কেকেআর। তাঁকে সুযোগ দেওয়া হোক দাবি উঠছে। পাশাপাশি পবন নেগীকে খেলানোর চিন্তাভাবনা চলছে।

    যাই হোক, যে কোনও মূল্যে জিততে হবে। না হলে প্লে-অফের রাস্তা ক্রমশ কঠিন হয়ে পড়বে দুবারের চ্যাম্পিয়ন দলের কাছে। তবে আজ বেগুনি জার্সিধারীদের অন্যতম চিন্তার কারণ ওয়াংখেড়েতে তাঁদের অভিশপ্ত পরিসংখ্যান। নটা ম্যাচ খেলে মাত্র একটি জয় রয়েছে কেকেআর শিবিরের। তাই আজ এই পরিসংখ্যান উল্টোদিকে ঘোরাতে পারে কিনা শাহরুখ খানের দল সেটাই দেখার।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    লেটেস্ট খবর